‘ফেসবুকের সঙ্গে চুক্তি করতে চিঠি পাঠাচ্ছে সরকার’

0

বিডিজার্নাল  প্রতিনিধি  :

ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম বলেছেন, সাইবার নিরাপত্তা প্রতিষ্ঠায় ব্যবহারকারীর তথ্য সংগ্রহের জন্য চুক্তি করতে ফেসবুক কর্তৃপক্ষকে চিঠি পাঠাচ্ছে সরকার। রবিবারই এ চিঠি পাঠানো হবে। শনিবার কারওয়ান বাজারে ডেইলি স্টার সম্মেলন কক্ষে নিরাপদ ইন্টারনেট ব্যবহার সংক্রান্ত একটি গবেষণা প্রতিবেদন প্রকাশের অনুষ্ঠানে এ কথা জানান তিনি।
ওই গবেষণা প্রতিবেদনে বলা হয়, বর্তমানে দেশে প্রায় পাঁচ কোটি ব্যবহারকারীর ৮৫ শতাংশই তরুণ। যাদের বয়স ১১ থেকে ২৫ বছরের মধ্যে। তরুণ বয়সীদের মধ্যে ১৮ বছর পর্যন্ত বয়সীরা নিরাপদ ইন্টারনেট ব্যবহারে সচেতন নন। ৭০ শতাংশ ব্যবহারকারীই ইন্টারনেট ব্যবহার সংক্রান্ত সমস্যায় পড়লে সঠিক দিক-নির্দেশনা পাওয়ার জন্য নির্ভরযোগ্য কাউকে পান না।
অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা রাশেদা কে চৌধুরী, ডেইলি স্টার সম্পাদক মাহফুজ আনাম, গ্রামীণফোনের চিফ করপোরেট অ্যাফেয়ার্স অফিসার মাহমুদ হোসেন, লেখক আনিসুল হক সহ টেলিযোগাযোগ ও তথ্য প্রযুক্তি খাত সংশ্লিষ্টরা।
গবেষণা প্রতিবেদনে বলা হয়, দেশের ১১ থেকে ১৮ বছর বয়সী প্রায় দেড় হাজার জনের মধ্যে জরিপ চালিয়ে এ প্রতিবেদন তৈরি করা হয়েছে। দেখা যায়, ৭০ শতাংশই ইন্টারনেট ব্যবহারে কারও কাছ থেকে দিকনির্দেশনা পায় না এবং ইন্টারনেট ব্যবহার করে কি ধরনের অপরাধের শিকার হতে পারে সে সম্পর্কেও অবহিত নন। ৩০ শতাংশ ব্যবহারকারীই জানিয়েছেন তারা ইন্টারনেট ব্যবহার করতে গিয়ে ‘সাইবার বুলিং’ বা অশোভন বার্তা ও আক্রমণের শিকার হয়েছেন। এ ব্যাপারে তারা প্রতিকার পাওয়ার উপায় সম্পর্কেও জানেন না।
প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম বলেন, নিরাপদ ইন্টারনেট ব্যবহারে সচেতন করে তুলতে কিশোর ও তরুণদের আরও অনেক বেশি কাউন্সিলিং করা প্রয়োজন। একইসঙ্গে সচেতনামূলক প্রচারণাও বাড়ানো দরকার। মন্ত্রণালয় এ বিষয়টি গুরুত্ব দিয়ে বিবেচনা করছে বলেও তিনি জানান।
তিনি আরও বলেন, ফেসবুক ব্যবহার করে হয়রানি, ব্যক্তি চরিত্র হনন, অপপ্রচারের মত ঘটনা বেশি ঘটছে। এ কারণে অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডের সঙ্গে যুক্ত ফেসবুক ব্যবহারকারীর তথ্য পেতে এবং আপত্তিকর বিষয়বস্তু সরিয়ে নিতে চুক্তি করতে ফেসবুক কর্তৃপক্ষকে চিঠি দেওয়া হচ্ছে। রোববারই এ চিঠি পাঠানো হবে বলে তিনি জানান।

বিডিজার্নাল৩৬৫ডটকম// পিবি/ এসএমএইচ// ২৮ নভেম্বর২০১৫

Share.

Leave A Reply