বিতর্কিত ডিআরএস পদ্ধতি

0

বিডিজার্নাল ক্রীড়া প্রতিনিধি  :

আবারও বিতর্ক ছড়াল ক্রিকেটের বহুল আলোচিত ডিআরএস পদ্ধতি। ডিআরএস এবার প্রশ্নের সম্মুখীন হয়েছে অ্যাডিলেডের ঐতিহাসিক দিনরাতের টেস্টের দ্বিতীয় দিনে। 

চা বিরতির কিছু পরে নিউজিল্যান্ডের অভিষিক্ত স্পিনার মিচেল স্যান্টনারের একটি বলে লায়ন গিয়েছিলেন সুইপ খেলতে। কিন্তু বল ব্যাটের পেছনের অংশে হাওয়া লাগিয়ে লায়নের কাঁধ স্পর্শ করে চলে যায় প্রথম স্লিপে। কিউইদের তীব্র আবেদনের মুখে লায়ন আউট কিনা, এই সিদ্ধান্ত নিতেই দ্বারস্থ হতে হয়েছিল রিভিউ পদ্ধতির। 
স্যান্টনারের ডেলিভারিটি ছিল ফুল লেংথের। সোজাসুজি ব্যাটসম্যান লায়নের দিকেই তা যাচ্ছিল। আম্পায়ার নাইজেল লং প্রায় পাঁচ মিনিট ধরে রিপ্লে দেখেন। হট স্পট প্রযুক্তিতে অবশ্য বল লায়নের ব্যাট ছুঁয়ে যাওয়ার হালকা একটি নমুনা ধরা পড়েছিল। কিন্তু স্নিকোমিটারে ধরা পড়েনি কিছুই। অ্যাডিলেড ওভালের জায়ান্ট স্ক্রিনে ব্যাপারটা দেখে নিজেকে ‘আউট’ মনে করেই সাজঘরের দিকে হাঁটা ধরেছিলেন লায়ন। কিন্তু স্নিকোমিটারের নমুনা তাঁকে সন্তোর্পনেই ফিরিয়ে নিয়ে আসে মাঠের মাঝখানে। 

b23efaa9302f55d787cd564099ea58a6-01
নাইজেল লং এ সময় সম্ভাব্য এলবিডাব্লিউর নমুনা খোঁজার চেষ্টা করেন। কিন্তু ‘হক আই’ সঙ্গে সঙ্গেই জানিয়ে দেয়, স্যান্টনারের বলটিতে আর যা-ই হোক এলবির নমুনা খুঁজে লাভ নেই। অ্যাডিলেড ওভালের দর্শকদের দুয়োধ্বনির মধ্যেই নাথান লায়নকে ‘নট আউট’ ঘোষণা করেন তিনি।
লংয়ের এই সিদ্ধান্ত কিন্তু বিতর্ক ছড়িয়েছে যথেষ্টই। নিউজিল্যান্ড অধিনায়ক ব্রেন্ডন ম্যাককালাম তো অবাক হয়েছেনই, পুরো ব্যাপারটি বিস্ময়াভূত করে অস্ট্রেলিয়ার বেশ কয়েকজন সাবেক ক্রিকেটারকেও। এবিসি রেডিওর সঙ্গে এক আলাপচারিতায় সম্প্রতি ক্রিকেট থেকে অবসর নেওয়া অস্ট্রেলীয় ক্রিকেটার ক্রিস রজার্স প্রশ্ন রাখেন ঠিক এইভাবেই, ‘তাহলে কী আমরা হট স্পটকে গোনায় ধরছি না? হট স্পটেই তো ব্যাটে লাগার নমুনা দেখা গেল, এখন আর কী লাগে!’ 
তিনি আরও বলেন, নিউজিল্যান্ডের ক্রিকেটাররা সবাই ভেবেছে, এটা আউট। পুরো মাঠই মনে করেছে এটা আউট। এখন চূড়ান্ত সিদ্ধান্তটা যদি ভিন্ন আসে, তাহলে প্রশ্ন ওঠাটাই স্বাভাবিক। 
শেন ওয়ার্ন নিজের ঘটনার সঙ্গে সঙ্গেই এক টুইট বার্তায় ক্ষোভ ঝেরেছেন এই ভাবে, ‘ক্রিকেটের ভয়ংকর পাঁচটা মিনিট গেল। আম্পায়ার নাইজেল লংয়ের সিদ্ধান্তটাও খুব বাজে। লায়ন পুরোপুরি আউট ছিল। সে হাঁটাও দিয়েছিল সাজঘরের দিকে।’ 
তিনি বলেন, ‘হট স্পটই সব জানিয়ে দিয়েছে। সেখানে ব্যাটে বল লাগার নমুনাও দেখা গেছে। ব্যাটে লেগেই বলটা লায়নের কাঁধে লেগেছিল। সময় নষ্ট করে বাজে সিদ্ধান্ত দেওয়ার একটা উদাহরণ দেখলাম।’ 
ম্যাথু হেইডেন হট স্পটের বিষয়টিকে সামনে নিয়ে এসে বলেন, ‘আর কী দরকার একজন ব্যাটসম্যানকে আউট দেওয়ার জন্য! যে সময়টা নষ্ট হল, সেটা কী এই ম্যাচ আর ফিরে পাবে?’ 

বিডিজার্নাল৩৬৫ডটকম// পিবি/ এসএমএইচ// ২৮ নভেম্বর২০১৫

Share.

Leave A Reply