কমছে পেঁয়াজের দাম

0

নিজস্ব প্রতিবেদক :
আসছে ঈদুল আযহায় ও বন্যায় পেঁয়াজের দাম আরো বেড়ে যাওয়ার আশঙ্কায় ভুগছেন ক্রেতারা। ফলে বাড়তি পরিমাণে এ মসলা জাতীয় পণ্য কিনছেন ক্রেতারা। কিন্তু দুই দিনের মাথায় ফের পেঁয়াজের দাম কমতে শুরু করেছে। গেলো শুক্রবার প্রতি কেজি পেঁয়াজ ৬০ টাকা বিক্রি হলেও সোমবার তা বিক্রি হচ্ছে ৪৫ থেকে ৫০ টাকা। সোমবার রাজধানীর কারওয়ান বাজার ও হাতিরপুল বাজার ঘুরে এ চিত্র দেখা যায়।

পাইকারি ব্যবসায়ীরা বলছেন, গেলো দুই সপ্তাহে ভারতের বাজারে পেঁয়াজের দাম বেড়েছে চারগুণ। তাদের দাবি, পেঁয়াজ আমদানির কারণে ভরা মওসুমেও লোকসানে বিক্রি করতে হয় দেশি পেঁয়াজ। পেঁয়াজ আমদানিকারকরা বলছেন, দেশে বছরে প্রায় ২২ লাখ টন পেঁয়াজের চাহিদা রয়েছে। যার মধ্যে চার লাখ টন ঘাটতি মেটানো হয় ভারত থেকে আমদানি করে। কিন্তু বন্যার কারণে দেশে মজুদ পেঁয়াজের প্রায় ৫০ শতাংশ পঁচে গেছে। পাশাপাশি ভারতেও বন্যার কারণে ঘাটতি দেখা দিয়েছে। তবে সরকারিভাবে পেঁয়াজ আমদানির উদ্যোগ বাড়লে পেঁয়াজের দাম গেলো মাসের ন্যায় হবে বলে মনে করছেন ব্যবসায়ীরা।

বিক্রেতারা বলছেন, কয়েকদিন দিন ধরে পেঁয়াজের চাহিদা বেশ বেড়েছে। পেঁয়াজের দাম বাড়ার খবরে সবাই পেঁয়াজ কেনার দিকে ঝুঁকছেন। তারা জানান, পাইকারি দোকান ও আড়ৎ বৃষ্টির পানি ওঠে অনেক পেঁয়াজ নষ্ট হয়ে গেছে। এতে বাজারে পেঁয়াজ ও মশলা জাতীয় পণ্যের সরবরাহ কমেছে। তবে বিক্রেতাদের কথাকে মানতে নারাজ বেসরকারি গ্রুপের কর্মকর্তা লাবন্য আক্তার। তিনি জানালেন, রমজান মাসের পর কিছুদিন এ পণ্যের দাম কম থাকলেও আসছে কোরবানির ঈদকে সামনে রেখে সিন্ডিকেট করে পেঁয়াজ ও মশলার দাম বাড়িয়ে তুলছেন তারা।

অপর ক্রেতা বেসরকারি ব্যাংকের ম্যানেজার সারোয়ার হোসেন বলেন, ব্যবসায়ীরা শুধু অজুহাত খোঁজেন। যোগান থাকলেও তারা সরবরাহের দোহাই দিয়ে বাজারে দর বাড়িয়ে রাখছেন। এবার তো না হয় বন্যা হলো। কিন্তু প্রতিবারই তো ঈদ আসলে তারা পেঁয়াজের দাম বাড়ায়। মূলত তারা সিন্ডিকেট করে চলছে। সারোয়ারের কথার সঙ্গে একমত প্রকাশ করছেন অপর ক্রেতা রেজাউল ও মহিদুল হক।

গেলো বৃহস্পতিবার বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ে ব্যবসায়ীদের সঙ্গে নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যের মূল্য পরিস্থিতি নিয়ে পর্যালোচনা সভা করেছেন বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ। সভায় মন্ত্রী বলেছিলেন, মিশর থেকে পেঁয়াজ আমদানি হচ্ছে। চট্টগ্রাম বন্দর চেয়ারম্যানকে দ্রুততার সঙ্গে আমদানি করা পেঁয়াজ খালাসের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ারও নির্দেশ দেয়া হয়েছে। সরবরাহও স্বাভাবিক থাকবে। তাই পেঁয়াজের দামও আগের অবস্থায় ফিরিয়ে আনতে হবে।

কাওছার আক্তার মুক্তা // এসএমএইচ// ১৪ আগস্ট ২০১৭

Share.

Comments are closed.