ত্রাণ নিয়ে বিএনপি মিথ্যাচার করছে :কাদের

0

বিডিজার্নাল প্রতিবেদক

বন্যার্তদের জন্য ত্রাণের অভাব নেই উল্লেখ সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘বন্যা শেষ হলেও পুনর্বাসন না হওয়া পর্যন্ত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে থাকবেন। এ ছাড়া আওয়ামী লীগের প্রতিটি নেতাকর্মী বানভাসিদের পাশে অবস্থান করছেন। ত্রাণ দিচ্ছেন খোঁজ খবর নিচ্ছেন।’

উত্তরাঞ্চলের নজিরবিহীন বন্যায় ঘরবাড়ি, রাস্তা ঘাট ও স্কুল-কলেজ বিলীন হলেও হতাশ না হওয়ার আহ্বান জানিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা দেখতে সফরে আসছেন।’

নীলফামারীর সৈয়দপুর স্টেডিয়াম চত্বরে শুক্রবার সকাল সাড়ে ১১টার দিকে ত্রাণ বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন সেতুমন্ত্রী।

অনুষ্ঠানে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক, সাংগঠনিক সম্পাদক খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, বিএম মোজাম্মেল হক, প্রেসিডিয়াম সদস্য বাবু সতিশ চন্দ্র রায়, সংসদ সদস্য নাজমুল হক প্রধান, জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ খালেদ রহীম, জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি দেওয়ান কামাল আহমেদ উপস্থিত ছিলেন।

ত্রাণ নিয়ে বিএনপি মিথ্যাচার করছে অভিযোগ করে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর যে অভিযোগ করেছেন সেটি ভিত্তিহীন ও মিথ্যা। বিএনপির কোনো নেতানেত্রী হাওরাঞ্চল, উপকূল এমনকি উত্তরাঞ্চলেও ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে দাঁড়ায়নি। বন্যার্তদের পাশে না দাঁড়িয়ে তারা ষোড়শ সংশোধনীর সুপ্রিম কোর্টের রায় নিয়ে ষড়যন্ত্রে লিপ্ত রয়েছে।’

রায়ে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জেনারেল জিয়াউর রহমানের অবৈধ ভাবে ক্ষমতা দখল এবং উড়ে এসে জুড়ে বসা বিষয়টি প্রতিষ্ঠিত হলেও বিএনপি মৌনতা প্রকাশ করছে।

তিনি বলেন, ‘আমরা ধরে নেব বিএনপির মৌনতা সুপ্রিম কোর্টের রায়কে মেনে নিয়েছে।’

মন্ত্রী-এমপি না থাকলেও বন্যা কবলিত এলাকায় জেলা প্রশাসন, উপজেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসন এমনকি দলের মাঠ পর্যায়ের নেতাকর্মীরা ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রমে তৎপর থাকবেন বলে প্রতিশ্রুতি দেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

সৈয়দপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে ৩০০ জনের মাঝে দশ কেজি করে চাল এবং নগদ ৫০০ করে টাকা বিতরণ করেন ওবায়দুল কাদের। সেখানে সভাপতিত্ব করেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্বাস আলী সরকার।

এসএমএইচ, শুক্রবার, ১৮ আগস্ট ২০১৭। ৩ ভাদ্র ১৪২৪

Share.

Comments are closed.