সীতাকুন্ডে ১৬ দিনে আটক ৯৭

0

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি:

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডের বিভিন্নস্থানে রেললাইনের ওপর আড্ডা ও অসতর্কতায় হাটতে গিয়ে গত ২০ দিনে ছয় ব্যক্তি নিহত হয়েছে। দুর্ঘটনায় মৃত্যু কমাতে আটক ও সচেতনতামুলক অভিযান শুরু করেছে রেল পুলিশ। গত ১৬ দিনে ৯৭ জনকে আটক করা হয়েছে। অবশ্য পরে তাদের মুছলেখা নিয়ে ছেড়েও দেওয়া হয়েছে।

সীতাকুণ্ড ও ফৌজদারহাট রেল পুলিশ ফাঁড়ির তথ্যমতে, গত ২৭ জুলাই সীতাকুণ্ড স্টেশনের কাছে মো. মোস্তফা(৫০) নামে এক ব্যক্তি ট্রেনের ধাক্কায় নিহত হয়। গত ০৩ আগষ্ট বাড়বকুণ্ডে অজ্ঞাতনামা(৩৫), গত ১২ অক্টোবর ভাটিয়ারীতে অজ্ঞাত নামা (২২), গত ১৫ আগষ্ট কুমিরা ইউনিয়নের উত্তর মছজিদ্দা এলাকায় অজ্ঞাতনামা(৪০) ব্যক্তি ট্রেনে কাটা পড়ে।

তবে চট্টগ্রাম রেলওয়ে থানার সুত্র মতে, সীতাকুণ্ডে মোট ছয়টি দুর্ঘটনায় ছয়টি অপমৃত্যুর মামলা হয়েছে।

এধরনের নিহতের ঘটনা বন্ধ করতে সীতাকুণ্ড রেল পুলিশ রেল লাইনে আড্ডা, লাইনের ওপর দিয়ে হাটার সময় শুক্রবার (১৮ আগষ্ট) বাড়বকুণ্ড এলাকা থেকে নয়জনকে আটক করে। এছাড়া গত ২ আগষ্ট থেকে উপজেলার বারৈয়ারঢালা, পৌরসদরের বটতল, ইকোপার্ক, ফকিরহাট এলাকায় অভিযান চালিয়ে আরও ৮৮জনকে আটক করেছে।পরে মুছলেখা নিয়ে অভিভাবকদের জিম্মায় দেওয়া হয়েছে।

রেল পুলিশের সীতাকুণ্ড ফাঁড়ির সহকারি উপপরিদর্শক(এএসআই) দেলোয়ার হোসেন বলেন, তারা রেললাইনে জুয়ার আসর, মাদক সেবনকারী কিংবা কানে হেডফোন লাগিয়ে হাটাচলা কিংবা আড্ডা দেওয়া ব্যাক্তিদের আটক করে ফাঁড়িতে নিয়ে আসেন।পরে সতর্ক করে মুছলেখা নিয়ে ছেড়ে দিচ্ছেন। এসময় মানুষ জড়ো হলে তাদের কাছে সতর্কতামুলক লিপলেট বিতরণ করেন।

চট্টগ্রাম রেলওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) এসএম শহীদুল ইসলাম বলেন, রেললাইনের আশপাশে সব সময় ১৪৪ ধারা জারি রয়েছে।চলতি মাসের শুরু থেকে তারা বিভিন্নস্থানে আটক ও সচেতনতা অভিযান চালাচ্ছেন। ট্রেনের ছাঁদে ভ্রমন না করার জন্যও সতর্ক করছেন।

সাব্বির,এসএমএইচ, শনিবার, ১৯ আগস্ট ২০১৭। ৪ ভাদ্র ১৪২৪

Share.

Comments are closed.