বাড়িতে করুন এ চারটি ব্যায়াম!

0

লাইফস্টাইল ডেস্ক :

আধুনিক যুগে সকলেই স্বাস্থ্য সচেতন। নিজের শরীরের ব্যাপারে অসচেতনতাই যেন এক ধরণের অসুস্থতা। এ লক্ষ্যে এলাকাকেন্দ্রিক বিভিন্ন জিমের আনাগোনা দেখা গিয়েছে। কিন্তু সবার পক্ষে তো আর জিমে যোগ দেওয়া সম্ভব নয়। বেশিরভাগ মানুষই ভীষণ ব্যস্ত, কেউবা জিমে ব্যায়াম করতে জড়তাবোধ করেন আবার অনেকে পছন্দমতন জিমের সন্ধান পান না। তাই বলে কী ব্যায়াম করা বন্ধ থাকবে? সেটা তো হতে দেওয়া যায় না। নূন্যতম এক্সারসাইজ না করলে শরীরে মেদ জমতে শুরু করে এবং সেটি আপনার অসুস্থতা এবং জড়তার কারণ হয়ে দাঁড়ায়। তাহলে করণীয় কী?

আজকের ফিচারে আপনাদের এমন চারটি ব্যায়ামের সন্ধান দেওয়া হবে যেগুলো করতে সময় লাগবে মাত্র চার মিনিট। আপনি খুব সহজে ঘরে বসেই এগুলো করতে পারবেন। তবে আর দেরি কেন? কথা না বাড়িয়ে চলুন শুরু করা যাক-

১। সিট আপ

দু’পা সামান্য ফাঁক করে দাঁড়ান। এবার নিচু হয়ে বসুন, এমনভাবে বসুন যেন মনে হয় আপনি চেয়ারে বসে আছেন। পিঠ সোজা রেখে সামনের দিকে যতটুকু সম্ভব হেলে পড়ুন। এবার আবার আগের অবস্থানে ফিরে যান। এ ব্যায়ামটি আপনার পা এবং নিতম্বের পেশী শক্ত করবে।

পুশ আপছবি: ব্রাইট সাইড 

২। পুশ আপ

‘এ’ পজিশনের মতন অবস্থান নিন। কাঁধ বরাবর দু’হাত থাকবে। কাঁধ, হাঁটু এবং দু’পা একই সমান্তরাল রেখা বরাবর থাকবে। এবার হাত বাঁকিয়ে ধীরে ধীরে শরীর নিচু করতে থাকুন। চেষ্টা করুন যেন কনুই আপনার শরীরের কাছাকাছি থাকে। এবার আবার আগের অবস্থানে ফিরে যান। এ ব্যায়াম আপনার পেক্টোরাল পেশী এবং ট্রাইসেপ সুগঠিত করতে সাহায্য করবে।

মাউন্টেন ক্লাইম্বারছবি: ব্রাইট সাইড  

৩। মাউন্টেন ক্লাইম্বার 

এ ব্যায়ামটি একটু কঠিন কিন্তু এটি একইসাথে আপনার পেটের পেশী কমিয়ে ক্যালোরি বার্ন করতে সাহায্য করবে। পুশ-আপের মতন শুরু করতে হবে এ ব্যায়ামটি। পেট ভেতরে টেনে ডান পা উঁচু করুন এবং ধীরে ধীরে বুকের কাছে নিয়ে যান। পিঠ এবং নিতম্বের দিকে খেয়াল রাখুন, সেগুলো একদম স্থির থাকা চাই। এবার আবার আগের অবস্থানে ফিরে যান এবং বাঁ পায়েও একই ভাবে করুন।

৪। লাঞ্জেস

কাঁধ বরাবর দু’পা সমান্তরাল করুন। বাঁ পা দিয়ে বেশ বড় কদমে পা ফেলুন। এবার ধাক্কা দিয়ে ডান পা দিয়ে দাঁড়ানোর মতন অবস্থায় যান। অতঃপর ডান পা দিয়ে পুনরাবৃত্তি করুন। এই ব্যায়ামটি করার সময় পিঠ সোজা রাখবেন একদম

ইউএসএ তে লাফানোর মতন এক ধরনের প্রশিক্ষণ ছিলো। সেখান থেকে এ ব্যায়ামটির প্রচলন হয়েছে। প্রথমে দু’হাত শরীরের দু’পাশে রাখুন। অতঃপর লাফ দেওয়ার সঙ্গে সঙ্গে দু’পা প্রসারিত করে দিন দু’পাশে এবং হাত উপরে নিয়ে যান। কয়েকবার পুনরাবৃত্তি করুন।

এখন থেকে আর কোন অজুহাত নয়। আজ থেকেই না হয় শুরু করে দিন ফিট থাকার যাত্রা। শুভকামনা রইলো।

 এসএমএইচ//  শনিবার সেপ্টেম্বর ২০১৭ ২৫ ভাদ্র ১৪২৪

Share.

Comments are closed.