গরুর ভুরি ভুনা করার সহজ রেসিপি

0

লাইফস্টাইল ডেস্ক :
ভুড়ি ভুনা এমনই একটি খাবার যা অনেকের কাছে খুবই পছন্দের আবার অনেকের কাছে মোটেই পছন্দের নয়। যারা খান, তারা ভীষণ ভালোবেসে চেটেপুটে খান, যারা খান না তার এর গন্ধও সহ্য করতে পারেন না। আপনি যদি ভুড়ি ভুনা পছন্দকারীদের তালিকায় থেকে থাকেন তবে আজকের রেসিপিটি আপনার জন্য। এটি একটু সময় নিয়ে রান্না করলে পরিপূর্ণ স্বাদ পাওয়া যাবে। চলুন তবে জেনে নেই-

উপকরণ:
ভুড়ি- ৫ কেজি, পেঁয়াজ মোটা করে কাটা- ২ কাপ, কাঁচা ঝাল ছোট পিস করা আধা কাপ, রসুনবাটা- ৩ টেবিল চামচ, আদাবাটা- ২ টেবিল চামচ, ধনে- জিরা বাটা- ৩ টেবিল চামচ, তেল- ২৫০ মিলিলিটার বোতলের তিন বোতল, লবণ- স্বাদমতো, হলুদ- ৫ চা চামচ, এলাচ- ২৫ টি, লবঙ্গ- ২৫ টি, দারুচিনি- ২০ টি, গোলমরিচ- দুই মুঠো, শুকনো মরিচ চেরা- চাহিদা অনুযায়ী, তেজপাতা- ৫/৬ টি, পানি- দুই কাপ, নারকেল কোড়ানো- ১ টি।

প্রণালি:
ভুড়ির চর্বি ফেলে দিয়ে গরম পানি দিয়ে ভুড়ি পরিষ্কার করে ছোট টুকরা করে ( বেশি ছোট করবেননা, রান্নার পর আরও ছোট হয়ে যায় ) আবারও গরম পানি দিয়ে ভালো করে ঘসে ঘসে ধুয়ে নিতে হবে। একমুঠো গোলমরিচ উঠিয়ে রেখে বাকি গোলমরিচ ও গরম মশলা শুকনো তাওয়ায় টেলে গুঁড়ো করতে হবে। এবার একটি কড়াই বা হাঁড়িতে ভুড়ি দিয়ে সব কাটা ও বাটা মশলা, তেজপাতা ও একমুঠো গোলমরিচ দিয়ে ভালভাবে মাখিয়ে এক ঘণ্টা রেখে দিতে হবে।

এবার চুলায় মাঝারি আঁচে জ্বাল দিতে হবে। ভুড়ির পানি বেরিয়ে একটু কষে আসলে পানি গরম করে দিতে হবে। গরম মশলার গুঁড়ো ও কাঁচা ঝাল ভুড়ির ওপর ছিটিয়ে দিতে হবে। এভাবে দুই দিন ধরে কষাতে হবে। পানি শুকিয়ে আসলে প্রয়োজন অনুযায়ী গরম পানি দিতে হবে। তৃতীয় দিন নারকেল থেকে তিন বার পানি দিয়ে দুধ বের করে এর সবটুকু ভুঁড়িতে দিয়ে দিয়ে জ্বাল দিয়ে কষিয়ে তেলের ওপর উঠলে নামাতে হবে।
কাওছার আক্তার মুক্তা // এসএমএইচ// রোববার ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৭। ২৬ ভাদ্র ১৪২৪

Share.

Comments are closed.