রোহিঙ্গাদের কষ্ট দেখতে আসুন, সু চিকে আহ্বান জাতিসংঘের

0

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

মিয়ানমারে সেনা ও পুলিশের নির্মম অত্যাচারের শিকার হয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়া লাখ লাখ রোহিঙ্গাদের অবর্ণনীয় কষ্ট দেখতে মিয়ানমারের ক্ষমতাসীন দলের নেত্রী অং সান সু চিকে আহ্বান জানিয়েছেন জাতিসংঘের মানবাধিকার সংস্থার কয়েকজন বিশেষজ্ঞ। খবর বার্তা সংস্থা রয়টার্সের।

মঙ্গলবার আনুষ্ঠানিক বিবৃতিতে তারা বলেন, ‘আমরা অং সান সু চিকে ব্যক্তিগতভাবে রোহিঙ্গাদের দেখার জন্য আহ্বান জানাচ্ছি।’

তারা আরও বলেছেন, চলমান সংকট বিষয়ে দায়ী ব্যক্তিদের জবাবদিহিতার আওতায় আনাসহ যেসব প্রতিশ্রুতি সু চি দিয়েছেন সেগুলো ‘ফাঁকা বুলিতে’ পরিণত হয়েছে। কারণ ইতিমধ্যেই লাখ লাখ রোহিঙ্গা পালিয়ে গেছে।

মিয়ানমারের রোহিঙ্গা ওপর নির্যাতনের ঘটনাকে জাতিসংঘ ‘জাতিগত নিধন’ বলে আখ্যা দিয়েছে। তবে সু চি এই অভিযোগ অস্বীকার করেছেন।

৫০ বছর সামরিক শাসনের পর গত বছর ক্ষমতায় আসে নোবেল জয়ী অং সান সু চির সরকার। রাখাইনে চলমান সহিংসতায় মানবাধিকার লঙ্ঘনের যে অভিযোগ উঠেছে তা অস্বীকার করে আসছেন সু চি। তার এই অবস্থানের কারণে নোবেল পুরস্কার ফেরত নেয়ার জন্য বিশ্বজুড়ে দাবি উঠছে।

সামরিক-খসড়াকৃত মিয়ানমারের সংবিধান অনুযায়ী দেশটির নিরাপত্তা বাহিনীর ওপর খুবই কম নিয়ন্ত্রণ আছে অং সান সু চির। সংবিধান অনুযায়ী সু চি রাষ্ট্রপতি হতে পারবেন না এবং রাজনৈতিক সংস্কারে সেনাদের ভেটো দেয়ার ক্ষমতা রয়েছে।

গত ২৫ আগস্ট মিয়ানমার সেনাবাহিনীর অভিযান শুরুর পর থেকে এ পর্যন্ত চার লাখ ৮০ হাজার রোহিঙ্গা শরণার্থী সীমান্ত পার হয়ে বাংলাদেশে ঢুকেছে বলে জানিয়েছে জাতিসংঘ।

এসএমএইচ// মঙ্গলবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৭ ১১ আশ্বিন ১৪২৪

Share.

Comments are closed.