বঙ্গবন্ধুর সময়েই বাংলাদেশ স্বল্পোন্নত দেশ হিসেবে যাত্রা শুরু করে: প্রধানমন্ত্রী

0

নিজস্ব প্রতিবেদক :

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বঙ্গবন্ধুর সময়েই বাংলাদেশ স্বল্পোন্নত দেশ হিসেবে যাত্রা শুরু করেছে।
বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী এ কথা বলেন।
প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমার ভাবতে অবাক লাগে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কীভাবে এত কম সময়ে দেশের জন্য এত কাজ করেছেন। তার নেতৃত্বে ও নির্দেশে বাংলাদেশ স্বাধীনতা অর্জন করে। যুদ্ধ শেষ হওয়ার পর তিনি বিধ্বস্ত দেশকে গড়ে তুলতে নানা পদক্ষেপ নেন। এটি খুবই কঠিন কাজ ছিল। একটি প্রদেশকে রাষ্ট্রে পরিণত করতে প্রয়োজনীয় সব ব্যবস্থা তিনি গ্রহণ করেছিলেন। বাংলাদেশ তখনই স্বল্পোন্নত দেশ হিসেবে যাত্রা শুরু করে।

প্রধানমন্ত্রী আরো বলেন, ’মানুষ অনেক আকাঙ্ক্ষা নিয়ে রাজনীতি করে। কিন্তু যে রাজনীতি আমি আমার বাবার কাছ থেকে, মায়ের কাছ থেকে শিখেছি সেটি হলো নিজের উন্নয়নের জন্য নয়, মানুষের কল্যাণের জন্য কাজ করা, তাদের সুন্দর জীবন উপহার দেয়া।’
স্বল্পোন্নত দেশ থেকে বাংলাদেশ উন্নয়নশীল দেশে উত্তীর্ণ হওয়ার যোগ্যতা অর্জন করায় আয়োজিত অনুষ্ঠানে সংবর্ধনা দেয়া হচ্ছে প্রধানমন্ত্রীকে।  
অনুষ্ঠানের শুরুতে জাতিসংঘের স্বীকৃতিপত্র প্রধানমন্ত্রীর হাতে তুলে দেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। এর পর একটি স্মারক ডাক টিকিট ও ৭০ টাকার স্মারক মুদ্রা উন্মোচন করেন প্রধানমন্ত্রী।
অনুষ্ঠানে রাজনৈতিক নেতা, মন্ত্রিসভার সদস্য, সরকারি কর্মকর্তা, বিদেশি সংস্থার প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।
এর আগে বৃহস্পতিবার ভোরে ধানমন্ডির বঙ্গবন্ধু স্মৃতি জাদুঘরের সামনে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পুষ্পস্তবক অর্পণের মধ্য দিয়ে দিবসটির উদযাপন শুরু হয়।

সাব্বির// এসএমএইচ//২২শে মার্চ, ২০১৮ ইং ৮ই চৈত্র, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

Share.

Comments are closed.