রাশিয়া বিশ্বকাপে লড়বে ৭ মুসলিম দেশ

0

ক্রীড়া ডেস্ক :

শুরু হয়েছে ক্ষণ গণনা। আগামী ১৪ জুন রাশিয়ায় বসছে বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় টুর্নামেন্ট ‘ফিফা বিশ্বকাপ ফুটবল’। ৩২ দলের অংশগ্রহণে অনুষ্ঠিত হবে বিশ্বকাপের ২১তম আসর। এবারে আসরে অংশগ্রহণকারী দলগুলোর মধ্যে খেলার সুযোগ পেয়েছে ৭টি মুসলিম দেশ। চলুন জেনে নেয়া যাক দলগুলোর সর্ম্পকে।

মিশর
১৯৩৪ ও ১৯৯০ বিশ্বকাপে খেলার সুযোগ পায় মিশর। আর এবার মোহাম্মদ সালাহ’র হাত ধরে তৃতীয়বারের মতো খেলার সুযোগ পাচ্ছে মুসলিম প্রধান দেশটি। বর্তমানে দলটিতে একাধিক তারকা খেলোয়াড় রয়েছে। যারা মিশরসহ বিশ্বের বিভিন্ন লীগে দাঁপিয়ে বেড়াচ্ছেন। যাদের মধ্যে উল্লেখ্যযোগ্য সালাহ, সাঈদ, আহমদ হাসান ও মাহমুদ।

নাইজেরিয়া
১৯৯৪ বিশ্বকাপে প্রথমবার নাম লেখায় নাইজেরিয়া। তিন ম্যাচে দুই জয়ে সবাইকে চমকে দিয়ে গ্রুপ টেবিলে শীর্ষস্থান অর্জন করে দলটি। যদিও সেখানে নক আউট পর্বে কাটা পড়ে নাইজেরিয়া। এরপর ৯৮’র বিশ্বকাপেও একই দশা। গ্রুপ পর্ব পাড়ি দিয়ে নকআউটে ডেনমার্কের কাছে ধূলিসাৎ হয়ে বিদায় নেয় বিশ্বকাপ থেকে। একই অবস্থা ২০১৪ ব্রাজিল বিশ্বকাপেও। তবে এবার রাশিয়া বিশ্বকাপের দিকে তাকিয়ে দলটি।

সৌদি আরব
রাশিয়া বিশ্বকাপে স্বাগতিকদের সঙ্গে উদ্বোধনী ম্যাচ খেলবে সৌদি আরব। ১৯৯৪ সালে বিশ্বকাপে অভিষেক হওয়া দেশটি এ নিয়ে চারবার বিশ্বকাপে খেলার গৌরভ অর্জন করে।

ইরান
১৯৭৮, ১৯৯৮, ২০০৬ ও ২০১৪ বিশ্বকাপে খেলার সুযোগ পায় ইরান। দুঃখজনক ব্যাপার হলো, চারবারের মতো বিশ্বকাপে খেলার সুযোগ পেলেও এখন পর্যন্ত গ্রুপ পর্ব টপকাতে পারেননি দলটি। তারপরও এবারে বিশ্বকাপে অঘটন ঘটাতে প্রস্তুত ইরান। নতুন পুরাতনদের নিয়ে ভালো কিছু করতে প্রতিজ্ঞাবদ্ধদলটি।

তিউনিসিয়া
ইরানের মতো মুসলিম প্রধান দেশ তিউনিসিয়াও মোটে পাঁচবার বিশ্বকাপে খেলার সুযোগ পায়। ১৯৭৮, ১৯৯৮, ২০০২ ও ২০০৬ বিশ্বকাপে খেলে দেশটি। দলটির সর্বোচ্চ অর্জন ১৯৭৮ সালে আর্জেন্টিনা বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্বে মেক্সিকোর বিপক্ষে ৩-১ ব্যবধানে জয়।

মরক্কো
১৯৭০ সালে মেক্সিকো বিশ্বকাপে প্রথমবারের মতো খেলেছিল মরক্কো। এরপর ১৯৮৬, ১৯৯৪ ও ৯৮’র ফ্রান্স বিশ্বকাপে খেলে দলটি। সে বছর গ্রুপ পর্বে তিন ম্যাচে ১ জয় ১ হার আর ১ ড্র নিয়ে সন্তুষ্ট থাকতে হয় মরক্কোবাসীকে। দুই দশকের মধ্যে প্রথমবারের মতো বিশ্বকাপে খেলার সুযোগ পেল মরক্কো। `সি` গ্রুপে কোত দি ভোয়াকে ২-০ গোলে হারিয়ে রাশিয়ার টিকিট হাতে পায় মরক্কো।

সেনেগাল
২০০২ সালে প্রথমবার বিশ্বকাপে জায়গা পায় সেনেগাল। ওই আসরের গ্রুপ পর্বে ফ্রান্সকে হারিয়ে তাক লাগিয়ে দেয় দেশটি। পরের দুই ম্যাচে ডেনমার্ক, উরুগুয়ের সঙ্গে ড্র করে চলে যায় নকআউট পর্বে। যেখানে সুইডেনকে ২-১ হারিয়ে বিশ্বকাপের কোয়ার্টারে চলে যায় সেনেগাল। এরপর দীর্ঘদিন দেখা যায়নি সেনেগালকে। অবশেষ দীর্ঘ ১৬ বছর পর রাশিয়া বিশ্বকাপে নাম লেখাল পশ্চিম আফ্রিকার দেশটি।

সাইফুল//এসএমএইচ//১৬ই মে, ২০১৮ ইং ২রা জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

Share.

Comments are closed.