প্রধানমন্ত্রীর দেশে ফেরার দিন আজ

0

নিজস্ব প্রতিবেদক :

আজ ১৭ মে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস। জাতির জনককে হত্যার পর দীর্ঘ ৬ বছরের নির্বাসিত জীবন শেষে ১৯৮১ সালের এই দিনেই দেশে ফিরেছিলেন তিনি। রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা বলছেন, তার এ ফিরে আসা শুধু আওয়ামী লীগ নয় জাতীয় রাজনীতির জন্য ছিল টার্নিং পয়েন্ট। আর দলীয় নেতারা বলছেন, বর্তমানের গতিশীল বাংলাদেশই প্রমাণ করে সেসময়ে আওয়ামী লীগ সঠিক সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন।৭৫ এর ঘৃণ্য হত্যাকাণ্ডের পর বাঙালীর জীবনে একটি ১৭ মে এসেছিলো দীর্ঘ ৬ বছর পর।জার্মানি, ব্রিটেন এবং ভারতে চরম প্রতিকূল পরিস্থিতিতে নির্বাসিত থাকার পর দেশে ফিরেছিলেন জাতির জনকের কন্যা। সামরিক শাসকের চোখ রাঙানি উপেক্ষা করে সেদিন বিমানবন্দরে তাকে স্বাগত জানিয়েছিলেন লাখো জনতা।আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য আমির হোসেন আমু বলেন, ‘আমি শুধু বঙ্গবন্ধুর হত্যার দিনের কথাই বলছি না। পরবর্তী কালেও দেশের মধ্যে কোন চাঞ্চল্য ছিল না।’১৯৮১ সালে আওয়ামী লীগের ফেব্রুয়ারির কাউন্সিলে তাকে সভাপতি করা হয়। এরপর থেকে টানা ৩৭ বছর দলের অভিভাবক হিসেবে হাল ধরে আছেন তিনি।তবে নেতা শেখ হাসিনার রাজনৈতিক জীবন মসৃণ ছিল না কখনই। দেশে আসার পর থেকে একের পর এক তাকে হত্যার ষড়যন্ত্র করা হয়েছে। সরাসরি সশস্ত্র হামলা করা হয়েছে কমপক্ষে ১৫ বার।শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আওয়ামী লীগ সরকার গঠন করেছে ৩ বার আর স্বল্পোন্নত বাংলাদেশ শুরু করেছে উন্নয়নশীল দেশ হবার অভিযাত্রা।

সাইফুল//এসএমএইচ// ১৭ই মে, ২০১৮ ইং ৩রা জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

Share.

Comments are closed.