ঢাবি ছাত্রীকে হয়রানি, বাস আটকে প্রতিবাদ

0

নিজস্ব প্রতিবেদক :

রাজধানীতে চলাচলরত ট্রাস্ট পরিবহনের একটি বাসে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) এক ছাত্রীকে যৌন হয়রানি করার অভিযোগ পাওয়া গেছে এর প্রতিবাদে ওই পরিবহনের পাঁচটি বাস আটকে রেখেছে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরাআজ রোববার দুপুর আড়াইটা থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা অনুষদের সামনের সড়কে ওই বাসগুলো আটকে রাখা হয়শিক্ষার্থীরা জানান, গত বৃহস্পতিবার রাজধানীর কারওয়ান বাজারের মোড়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ফিন্যান্স বিভাগের এক ছাত্রীকে ট্রাস্ট পরিবহনের একটি বাসের হেলপার যৌন হয়রানি করেন এবং আজেবাজে কথা বলে হুমকি দেন। এর প্রতিবাদে দোষীদের শাস্তির দাবিতে শিক্ষার্থীরা ওই পরিবহনের চারপাঁচটি বাস ক্যাম্পাসে আটকে রেখেছেশাহবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল হাসান এনটিভি অনলাইনকে বলেন, ‘শিক্ষার্থীরা কয়েকটি বাস আটকে রেখেছে। তবে কে যৌন হয়রানি করেছে তা জানা যায়নি। বাস কর্তৃপক্ষ আসছে। ওই মেয়েকে (ঢাবি ছাত্রী) আসতে বলা হয়েছে। তিনি বিস্তারিত অভিযোগ করলে আমরা ব্যবস্থা নেব।এসব বিষয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক . কে এম গোলাম রব্বানী বলেন, ‘আমরা শিক্ষার্থীদের অভিযোগ শুনেছি। এরই মধ্যে শাহবাগ থানাকে জানিয়েছি। তারাও বিষয়টি দেখছে।

এর আগে গত ২১ এপ্রিল রাজধানীর বাড্ডার নর্দ্দা এলাকায় তুরাগ পরিবহনের একটি বাসে উত্তরা ইউনিভার্সিটির একজন ছাত্রী যৌন হয়রানির শিকার হন। পরে তিনি জীবনের ঝুঁকি নিয়ে চলন্ত বাস থেকে লাফ দিয়ে নেমে নিজেকে রক্ষা করেন। ঘটনায় ওই ছাত্রীর স্বামী বাদী হয়ে গুলশান থানায় একটি মামলা করেন। কিন্তু পুলিশ আসামিদের গ্রেপ্তার না করায় উত্তরা ইউনিভার্সিটির শিক্ষার্থীরা তুরাগ পরিবহনের কয়েকটি বাস আটক রাখেন এবং ১৬ ঘণ্টার আল্টিমেটাম দেয়। এরপর পুলিশ রাজধানীর কয়েকটি এলাকায় অভিযান চালিয়ে তুরাগ পরিবহনের ওই বাসের চালক, চালকের সহকারী সুপারভাইজারকে গ্রেপ্তার করে

সাইফুল//এসএমএইচ//২০শে মে, ২০১৮ ইং ৬ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

Share.

Comments are closed.