দুই নম্বর গেট-জিইসি মোড় র‌্যাম্প উদ্বোধন

0

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি:

আখতারুজ্জামান ফ্লাইওভারের ষোলশহর দুই নম্বর গেট-জিইসি মোড় র‌্যাম্প আজ শুক্রবার খুলে দেওয়া হয়েছে। শুক্রবার সকালে র‌্যাম্পটি উদ্বোধন করেন চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (সিডিএ) চেয়ারম্যান আবদুচ ছালাম।

নগরের অন্যতম যানজট কবলিত এবং অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ এলাকা ষোলশহর দুই নম্বর গেটে গাড়ি চলাচল নির্বিঘ্ন করতে এই উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

এ সময় চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (সিডিএ) চেয়ারম্যান আবদুচ ছালাম বলেন, ‘এই লুপ এবং র‌্যাম্প চালুর ফলে নগরের এশিয়ান হাইওয়ের ষোলশহর এবং জিইসি মোড়সহ ওই এলাকায় যান চলাচলে ব্যাপক গতিশীলতা আসবে। ষোলশহর মোড়ে ঘণ্টার পর ঘণ্টা আর যানজটে আটকা থাকতে হবে না।’

রমজান মাসে নগরবাসীর যাতায়াতের সুবিধার কথা বিবেচনা করে খুলে দেওয়া হয়েছিল ষোলশহর দুই নম্বর গেটের লুপ।

সিডিএ কর্মকর্তারা জানান, নগরের মুরাদপুর থেকে লালখানবাজার পর্যন্ত পাঁচ কিলোমিটার দীর্ঘ এ ফ্লাইওভারের মূল অংশ এক বছরেরও বেশি সময় ধরে চালু রয়েছে। তবে জিইসির মোড়ে চারটি র‌্যাম্প এবং ষোলশহর দুই নম্বর গেটের লুপ এবং র‌্যাম্প পুরোপুরি চালু না হওয়ায় ফ্লাইওভারটি মূলত আংশিক গতি পেয়েছে। গত ঈদের আগে বায়েজিদ বোস্তামী সড়ক থেকে উঠা লুপ খুলে দেওয়া হয়েছিল। এতে বায়েজিদ বোস্তামী রোড় প্রান্ত দিয়ে আসা শত শত গাড়ি প্রতিদিন ফ্লাইওভারে নামছিল। কিন্তু ফ্লাইওভার থেকে নামার র‌্যাম্প না থাকায় পুরো সুবিধা পাচ্ছিল না নগরবাসী।

এখন আখতারুজ্জামান ফ্লাইওভারের ষোলশহর দুই নম্বর গেট লুপ এবং জিইসি মোড় র‌্যাম্প চালু হওয়ায় ষোলশহর-দুই নম্বর গেট এলাকার যানজট কমে যাবে।

উল্লেখ্য, ২০১৪ সালের ১২ নভেম্বর আখতারুজ্জামান ফ্লাইওভার নির্মাণকাজের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন হয়। তবে কাজ পুরোদমে শুরু হয় ২০১৫ সালের মার্চে। শুরুতে এর নির্মাণ ব্যয় ধরা হয় ৪৬২ কোটি টাকা। পরে র‌্যাম্প ও লুপ যুক্ত হওয়ায় প্রকল্প ব্যয় বেড়ে হয় ৬৯৮ কোটি টাকা।

সাব্বির// এসএমএইচ//২০শে জুলাই, ২০১৮ ইং ৫ই শ্রাবণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

Share.

Comments are closed.