ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ালেন লুলা

0

আর্ন্তজাতিক ডেস্ক :

আসন্ন ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন সাবেক প্রেসিডেন্ট লুইজ ইনাকিও লুলা ডি সিলভা। নিজের পরিবর্তে তিনি তার সতীর্থ ফার্নান্দো হাদ্দাদকে প্রেসিডেন্ট প্রার্থী হিসেবে ঘোষণা করেছেন। মঙ্গলবার দেশটির ওয়ার্কাস পার্টির নেতা গ্লিইসি হোফম্যান এই সিদ্ধান্তের কথা ঘোষণা করেছেন বলে জানিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি।

লুলা দুর্নীতির দায়ে বর্তমানে ১২ বছরের কারাদণ্ড ভোগ করছেন। গত দু সপ্তাহ আগে ব্রাজিলের শীর্ষ নির্বাচনি আদালত সুপিরিয়র ইলেক্টোরাল কোর্ট-টিএসই জানায়, লুলা প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে প্রার্থী হওয়ার ‘অযোগ্য। প্রেসিডেন্ট পদে প্রার্থী হওয়ার রেজিস্ট্রেশন করার জন্য সময় বাড়ানোর জন্য সুপ্রিম কোর্টের কাছে আবেদন করেছিলেন লুলার আইনজীবীরা। তারা আগামী ১৭ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত সময় বাড়ানোর কথা বলেছিলেন। তবে সুপ্রিম কোর্ট সেই আবেদন খারিজ করে দেওয়ার পর লুলার দল ওয়ার্কার্স পার্টি কৌশল পরিবর্তনের সিদ্ধান্ত নেয়।

ব্রাজিলের পুলিশ সদর দফতরের সামনে মঙ্গলবার সমর্থকদের উদ্দেশে লুলার লেখা একটি চিঠি পড়ে শোনান গ্লিইসি হোফম্যান। চিঠিতে বলা হয়, সাবেক প্রেসিডেন্ট লুইজ ইনাকিও লুলা ডি সিলভা আগামী ৭ অক্টোবর অনুষ্ঠেয় নির্বাচন থেকে নিজেকে প্রত্যাহার করে নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। একই সঙ্গে তিনি ফার্নান্দো হাদ্দাদকে প্রেসিডেন্ট প্রার্থী হিসেবে ঘোষণা দিয়েছেন।

সোমবার রাত পর্যন্ত ওয়ার্কার্স পার্টির সদস্যরা লুলাকেই প্রেসিডেন্ট প্রার্থী হিসেবে রাখার চেষ্টা করে যায়। কারণ কারাগারে থাকার পরও লুলা দেশটিতে ব্যাপক জনপ্রিয় নেতা। নির্বাচনি জরিপ সংস্থা ডাটাফোলহা’র হিসাব মতে, প্রায় ৪০ শতাংশ ভোটার লুলাকে ভোট দিতে চায়। লুলার স্থলাভিষিক্ত নতুন প্রার্থী হাদ্দাদ লুলার সরকারের শিক্ষামন্ত্রী ছিলেন। তাকে সাও পাওলোর শহরটির বাইরের মানুষ খুব কমই চেনে।

সাব্বির// এসএমএইচ//১২ই সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং ২৮শে ভাদ্র, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

Share.

Comments are closed.