আগুনে পুড়ে ১১ শরণার্থীর মর্মান্তিক মৃত্যু

0

আর্ন্তজাতিক ডেস্ক :

গ্রিসের উত্তরাঞ্চলে একটি শরণার্থীবাহী মাইক্রোবাসের সঙ্গে বিপরীত দিক থেকে আসা একটি ট্রাকের সংঘর্ষে ঘটনাস্থলেই ১১ জনের মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে।

বিবিসি তাদের এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, শরণার্থী বহনকারী ওই গাড়িটি গ্রিসের উত্তরে থেসালোনিকি এলাকার দিকে যাচ্ছিল। আর বিপরীত দিক থেকে আসা ট্রাকটি যাচ্ছিল কাভালা শহরের দিকে। পথিমধ্যে ট্রাক ও গাড়িটির মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এ সময় গাড়ি দুটিতে আগুন ধরে যায়।

তবে লরিটির চালক কোনও ধরনের গুরুতর আঘাত ছাড়াই ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যেতে সক্ষম হন। পরে পুলিশ গাড়িটির ভেতর থেকে ১১ জনের লাশ উদ্ধার করে।

স্থানীয় সময় শনিবার গ্রিসের কাভালা শহরের বাইরে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহতরা সবাই তুরস্ক সীমান্ত থেকে আসা শরণার্থী বলে জানিয়েছে বিবিসি।

এদিকে পুলিশ জানিয়েছে, ওই গাড়িটি এর আগে শরণার্থীদের পাচারের কাজে ব্যবহার করা হয়েছিল। তারা বলছে, শনিবার গাড়িটি চেক করার জন্য পুলিশ থামতে নির্দেশ দিলেও তা অমান্য করে সেটির চালক।

ইউরোপে পাড়ি জমানোর জন্য অভিবাসীরা গ্রিসকে অন্যতম রুট হিসেবে ব্যবহার করে থাকে। ২০১৫ সালে তুরস্ক থেকে ১০ লাখের বেশি অভিবাসী গ্রিসে পাড়ি জমান।

তবে ইউরোপীয় ইউনিয়ন ও তুরস্কের মধ্যে একটি চুক্তির পর গ্রিসে অভিবাসীদের পাড়ি জমানোর প্রবাহ কমে যায়। ওই চুক্তিতে বলা হয়, যারা আশ্রয়ের জন্য আবেদন করেননি বা যাদের আবেদন বাতিল হয়েছে তাদের তুরস্কে ফেরত পাঠানো হবে।

সাব্বির// এসএমএইচ//১৪ই অক্টোবর, ২০১৮ ইং ২৯শে আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

Share.

Comments are closed.