জাতীয় পার্টির মহাসমাবেশে লাঙ্গল নিয়ে সংঘর্ষ

0

নিজস্ব প্রতিবেদক:

রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে শুরু হয়েছে সংসদের বিরোধী দল জাতীয় পার্টির মহাসমাবেশ। তবে শুরুতেই সঙ্গে আনা প্রতীক লাঙ্গল ও সমাবেশস্থলে থাকা চেয়ার নিয়ে সংঘর্ষে জড়ায় দলটির নেতাকর্মীরা। যদিও এ সময় প্রধান অতিথি জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ও সাবেক রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ সমাবেশস্থলে অনুপস্থিত ছিলেন।

এদিকে শনিবার বেলা ১১টায় মহাসমাবেশ শুরু হওয়ার কথা থাকলেও সকাল ৯টা থেকেই সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে জাতীয় পার্টির নেতাকর্মী-সমর্থকরা আসতে শুরু করেন। সকাল সাড়ে ৯টার দিকেই সোহরাওয়ার্দী উদ্যান ভরে যায় দেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে আসা নেতাকর্মীতে।

এসময় এসব কর্মী-সমর্থকদের মধ্যে বাকবিতণ্ডা হয়। একপর্যায়ে তারা সঙ্গে আনা লাঙ্গল প্রতীক একে অন্যের দিকে ছুঁড়ে দিতে থাকেন, সমাবেশস্থলের চেয়ারও ছোড়াছুড়ি করেন। এতে বেশ কয়েকজন আহত হন। এর মধ্যে একজন মাথায় আঘাতপ্রাপ্ত হলে তাকে চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়।

বেলা ১১টার পর সমাবেশস্থলে উপস্থিত হন দলটির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ। এসময় পানিসম্পদমন্ত্রী আনিসুল ইসলাম মাহমুদ, সমবায় প্রতিমন্ত্রী মশিউর রহমান রাঙ্গা, মহাসচিব এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদারসহ সিনিয়র অনেক নেতাকে মঞ্চে দেখা যায়।

দলীয় সূত্রে জানা গেছে, মহাসমাবেশ থেকে আগামী নির্বাচন, জোট গঠনসহ রাজনৈতিক গুরুত্বপূর্ণ বার্তা দেবেন সাবেক এই রাষ্ট্রপতি। পাশাপাশি তিনি দলীয় নেতা-কর্মীদের নানান দিক-নির্দেশনা দেবেন।

জাতীয় পার্টি সূত্রে জানা যায়, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ এবং উত্তর ছাড়াও দোহার, নবাবগঞ্জ, নারায়ণগঞ্জ, সোনারগাঁ, নরসিংদী, সাভার, ধামরাই, কালীগঞ্জ, কেরানীগঞ্জ, মানিকগঞ্জসহ ঢাকার আশপাশের এলাকা থেকে বিপুলসংখ্যক নেতাকর্মী মহাসমাবেশে অংশ নিয়েছে। এ ছাড়াও বরিশাল, রংপুর, সিলেট, চট্টগ্রামসহ দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চল থেকে বাস, ট্রেন এবং লঞ্চে নেতাকর্মীরা মহাসমাবেশে যোগ দিতে ঢাকায় এসেছেন।

মহাসমাবেশ বর্ণাঢ্য করতে নেয়া হয়েছে সব ধরনের প্রস্তুতি। শাহবাগ থেকে প্রেস ক্লাব পর্যন্ত নানা রঙের ব্যানার-ফেস্টুন দিয়ে সাজানো হয়েছে। নগরীর প্রধান প্রধান সড়কে নির্মাণ করা হয়েছে একাধিক তোরণ।

এর আগে, শুক্রবার (১৯ অক্টোবর) দলের কেন্দ্রীয় নেতাদের সঙ্গে নিয়ে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সভামঞ্চ পরিদর্শন করেন জাপা মহাসচিব এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদার। এ সময় তিনি বলেন, মহাসমাবেশে সারাদেশ থেকে লাখ লাখ জনতা যোগ দেবে। এই সমাবেশ হবে আগামী রাজনীতির টার্নিং পয়েন্ট। এই সমাবেশ থেকে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ দেশবাসীকে নতুন বার্তা দেবেন।

সাব্বির// এসএমএইচ//২০শে অক্টোবর, ২০১৮ ইং ৫ই কার্তিক, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

Share.

Comments are closed.