রঙ বাংলাদেশে লাল-সবুজের পোশাক

0

লাইফস্টাইল ডেস্ক :

 বছর ঘুরে আবার ডিসেম্বর। বাঙালির অনন্য অহংকারের মাস। বিজয় গৌরবে মেতে ওঠার উপলক্ষ্য। আজন্ম সৃজনশীল বাঙালির এই উদযাপন কেবল গল্প, গান, কবিতায় নয়, বরং বসনেও হয় স্মৃতি তর্পণ।

বাংলাদেশের ঘরোয়া ফ্যাশন ইন্ডাস্ট্রির অন্যতম শীর্ষ হাউজ রঙ বাংলাদেশ বিজয়ের উদযাপনকে অন্য মাত্রা দিতে বিশেষ ব্যবস্থা করেছে। স্বাধীনতার গান ও বাংলাদেশের পতাকার বিষয়কে এবার ধরা হয়েছে কাপড়ের ক্যানভাসে। মূল রঙ হিসেবে বেছে নেওয়া হয়েছে লাল ও পতাকার সবুজ আর সহকারী রঙ হিসেবে আছে সবুজের সেড, সাদা, টিয়া, গোল্ডেন হলুদ।

কেবল বড়দের নয়, প্রতিটি উপলক্ষ্যে ছোটদের পোশাককে সমান গুরুত্ব দিয়ে থাকে বলেই বাচ্চাদের সংগ্রহও হয় বিশেষভাবে আকর্ষণীয়।

পোশাকের নকশাকে ফুটিয়ে তোলা হয়েছে নানা ভ্যালু অ্যাডেড মিডিয়ার ব্যবহারে। এর মধ্যে রয়েছে স্ক্রিন প্রিন্ট, ব্লক প্রিন্ট, এম্ব্রয়ডারি, হাতের কাজ, গ্লাসওয়ার্ক, ইত্যাদি।

বিজয় উৎসবের পোশাকে রঙ বাংলাদেশে মেয়েদের জন্য রয়েছে শাড়ি, থ্রি-পিস, সিঙ্গেল কামিজ, কুর্তি, ওড়না, ব্লাউজ, আনস্টিচড থ্রি-পিস। ছেলেদের পাঞ্জাবি, কাতুয়া, শার্ট, টি-শার্ট। ছোটদের পোশাকের ক্ষেত্রে সিঙ্গেল কামিজ, ফ্রক, পাঞ্জাবি, শার্ট, টি-শার্ট, কাতুয়া। আরো রয়েছে একই ডিজাইনের পোশাক হিসেবে- কাপল ও ফ্যামিলি ড্রেস। এছাড়াও রয়েছে জুয়েলারি, মেয়েদের ব্যাগ, পার্স ও উপহার সামগ্রী হিসেবে রয়েছে নানা ডিজাইনের মগ।

রঙ বাংলাদেশের সাব ব্র্যান্ড হিসেবে ওয়েস্ট রঙ, শ্রদ্ধাঞ্জলি আর রঙ জুনিয়র এর পোশাকেও রয়েছে বিজয় উৎসবের আমেজ।

মেয়েদের শাড়ি কেনা যাবে ১২০০-৪,০০০ টাকার মধ্যে, সিঙ্গেল কামিজ ৮০০-২০০০ টাকা, থ্রিপিস ২০০০-৩৫০০ টাকা, আনস্টিচ ১,২০০-২,৫০০ টাকা, ব্লাউজ ২০০-৭৫০ টাকা, ওড়না ৫০০-৮৫০ টাকা। ছেলেদের পাঞ্জাবি ৮০০-১,৫০০ টাকা, কাতুয়া ৮০০-১৫০০ টাকা, শার্ট ৬০০-১,০০০ টাকা, টি-শার্ট ৩৫০-৬০০ টাকা। বাচ্চা মেয়েদের ফ্রক ৫০০-৯৫০ টাকা এবং কামিজ ৫০০-৯৫০ টাকা। বাচ্চা ছেলেদের পাঞ্জাবি ৬০০-৮৫০ টাকা, শার্ট ৪৫০-৬৫০ টাকা, টি-শার্ট ৩০০-৫০০ টাকার মধ্যে কেনা যাবে। মগ ২০০-৩৫০ টাকা।

বিজয় উদযাপনের পোশাক রঙ বাংলাদেশ-এর সবগুলো শাখা ছাড়াও, ঘরে বসে অনলাইনে (www.rang-bd.com) কেনার সুযোগ রয়েছে। এক্ষেত্রে রয়েছে ক্যাশ অন ডেলিভারির সুবিধা

সাব্বির// এসএমএইচ//৬ই ডিসেম্বর, ২০১৮ ইং ২২শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

Share.

Comments are closed.