৮টি উপায়ে ওজন কমবে চার কেজি

0

লাইফস্টাইল ডেস্ক :

কে না চায় স্লিম হতে? শারীরিক কসরত আর ডায়েট কন্ট্রোল করে কিছুদিন ওজন ঠিক রাখতে পারলেও পরে ফের আগের অবস্থা ফিরে যেতে হয়। এক গবেষণায় দেখা গেছে শতকরা মাত্র আটজন ওজন কমাতে সফল হন। ওজন কমাতে বিখ্যাত মার্কিন গবেষক স্টিফেন শাপিরো আটটি পরামর্শ দিয়েছেন।

. নিজেকে তৈরি করুনওজন কমাতে যে ঘাম ঝরাতে হবে এজন্য নিজের মনকে প্রস্তুত করুন। কারণ কী করতে যাচ্ছেন তা যদি নিজের কাছে পরিষ্কার না হয়, তাহলে মাঝপথ থেকে ফিরে আসতে চাইবেন। এজন্য চিকিসৎকরা বলছেন, ‘আগে স্বপ্ন নির্ধারণ, পরে হাঁটা শুরু করুন।’

এক্ষেত্রে সফল হতে দুটি পরামর্শ মাথায় রাখতে পারেন, প্রথমত- ভাবুন এত কষ্টের পর ফল কী পাবেন, দ্বিতীয়ত- ওই পথে হাঁটতে প্রতিবন্ধকতা কী কী।

. আগের ব্যর্থতার কারণ খুঁজে বের করুননিশ্চয়ই এই প্রথম ওজন কমানোর কথা ভাবছেন না, আগেও চেষ্টা করেছেন। কিন্তু হয়ে উঠেনি। তাই আগে কেন পারেননি সেই কারণগুলো খাতায় লিখুন এবং নিজেকে প্রশ্ন করুন-

আগের পরিকল্পনা বাস্তবসম্মত ছিল কিনা?

খাদ্য বাছাই ঠিক ছিল কি না?

দ্রুত ফলাফলের আশা করেছেন কি না?

খাদ্য ও শরীর চর্চার পরিকল্পনায় ভুল ছিল কি না?

. খাদ্যের তালিকা তৈরি করুনচিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী খাবারের তালিকা করুন। সারাদিন সে অনুযায়ী খান। এক্ষেত্রে কোনো রকম অলসতা করা যাবে না।

. শরীরচর্চার পরিকল্পনা করুনআপনার ইচ্ছামত ব্যায়ামের তালিকা করুন। সময় নির্বাচন করুন (সেক্ষেত্রে সকালকেই বেছে নিন)। এক্ষেত্রে হাঁটা, দৌঁড়ানের, সাঁতারকাটা এবং সাইক্লিং পছন্দের তালিকায় রাখতে পারেন। কেননা এতেই বেশি ক্যালোরি ঝড়ে।

. খুঁজে বের করুন আপনার কোন অভ্যাসটি ওজন কমাতে সহযোগিতা করতে পারেগবেষণায় দেখা গেছে, মানুষের অনেক অভ্যাসই আছে যেটা স্বভাবগতভাবেই শরীর থেকে ক্যালোরি কমাতে সহযোগিতা করে। বিশেষ করে সকালে বার্গার না খেয়ে ডিম দিয়ে নাস্তা করা। ১৫০০ মিলি পর্যন্ত পানি পান করা ইত্যাদি। এমন অভ্যাসগুলো নিয়মিত করুন।

. অনলাইনের সঙ্গীকে সাথে নিনবর্তমানে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমের কল্যাণে এই কাজটি আরো সহজ হয়েছে। কারণ বেশ কিছু গ্রুপ আছে যেগুলোর সদস্যরা আপনার মতই প্ল্যান করে ওজন কমানোর চেষ্টা করছেন। তাদের সাথে পরিচিত হোন এবং একসঙ্গে কাজগুলো করুন। অগ্রগতি এবং অবনতির বিষয় একে অপরকে শেয়ার করুন।

. ব্যর্থতা মেনে নিতে প্রস্তুত থাকুনকথায় আছে- ‘ব্যর্থতাই সফলতার পথ দেখায়’। আপনি এবারের এই ওজন কমানোর মিশনে হয়তো ব্যর্থ হতে পারেন। তবে দমে যাবে না, আবরো শুরু করুন। আপনার অনড় মনোবলই আপনাকে সফল করবে। এজন্য অনুশীলন অব্যহত রাখুন।

. নিজেকে পুরস্কার দিনএত সব প্ল্যান-পরিকল্পনা ঠিক রাখতে পারলে মাঝে মাঝে নিজেই নিজেকে পুরস্কার দিন। এতে আপনার এই চেষ্টা আরও গতি পাবে

নিলা চাকমা/এসএমএইচ//  বৃহস্পতিবার, ৩১ জানুয়ারি ২০১৯, ১৮ মাঘ ১৪২৫

Share.

Comments are closed.