যুক্তরাজ্য বাংলাদেশের দীর্ঘ সময়ের বন্ধু : রবার্ট ডিকেনসন

0

তরুণ ও ক্রমবর্ধমান জনসংখ্যার সুযোগ নিয়ে বাংলাদেশে বিনিয়োগের জন্য আরো ব্রিটিশ কোম্পানির এগিয়ে আসা উচিত বলে জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। সামনে এগিয়ে যাওয়ার জন্য বাংলাদেশের আরো প্রত্যক্ষ বিদেশি বিনিয়োগ (এফডিআই) প্রয়োজন বলেও মনে করেন মুস্তফা কামাল।

বুধবার হংকং সাংহাই ব্যাংকিং করপোরেশন (এইচএসবিসি) বাংলাদেশের নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) ফ্র্যানকোইস ডি ম্যারিকোর্টের নেতৃত্বে ব্রিটিশ বিজনেস গ্রুপ (বিবিজি) ও বাংলাদেশে নিযুক্ত ব্রিটিশ হাইকমিশনার রবার্ট চ্যাটারটন ডিকেনসনের সঙ্গে অনুষ্ঠিত এক বৈঠকে এ কথা বলেন অর্থমন্ত্রী। বার্তা সংস্থা ইউএনবি এ তথ্য জানিয়েছে।

এ সময় অর্থমন্ত্রী আরো বলেন, ‘বাংলাদেশ কৌশলগতভাবে ভারত, চীনসহ এশিয়ার অন্যান্য দ্রুত বর্ধনশীল অর্থনীতির দেশের মধ্যে অবস্থিত। তাই সামনে এগোনোর জন্য এটাই ভালো সময়।’

ঢাকায় অবস্থিত ব্রিটিশ হাইকমিশন থেকে জানা গেছে, বৈঠকে বিবিজি গ্রুপের প্রধান ম্যারিকোর্ট বলেন, ‘বাংলাদেশে বড় বড় বিনিয়োগকারী কোম্পানির মধ্যে যুক্তরাজ্যের কোম্পানিগুলো রয়েছে এবং দেশের (বাংলাদেশের) উন্নয়নে পুরোপুরিভাবে সহায়তা করে যাচ্ছে।’

এইচএসবিসি বাংলাদেশের সিইও ম্যারিকোর্ট জানান, এইচএসবিসির ভবিষ্যদ্বাণী অনুযায়ী, ৮ দশমিক ১ শতাংশ হারে প্রবৃদ্ধি নিয়ে এশিয়া প্যাসিফিক অঞ্চলে বাংলাদেশের অর্থনীতি সবচেয়ে দ্রুত বর্ধনশীল।

হাইকমিশনার রবার্ট ডিকেনসন বলেন, ‘যুক্তরাজ্য বাংলাদেশের দীর্ঘ সময়ের বন্ধু। ১৯৭১ সালে বাংলাদেশের জন্মলগ্ন থেকেই ব্রিটিশ কোম্পানিগুলো এখানে রয়েছে।’ আসন্ন বছরগুলোতে বাংলাদেশে ব্রিটিশ ব্যবসার আরো উপস্থিতি প্রত্যাশা করেন ডিকেনসন।

Share.

Comments are closed.