সবজির বাজারে আগুন

0

নিজস্ব প্রতিবেদক

রাজধানীর অধিকাংশ কাচাবাজারে ৬০ টাকার নিচে কোনো সবজি নেই বললেই চলে। শীতের আগাম সবজি শিম, ফুলকপি, বাঁধাকপি, মুলা বাজারে আসার পরও এখনো চড়া দামেই বিক্রি হচ্ছে বেশিরভাগ সবজি। এর সঙ্গে নতুন করে দাম বেড়েছে মুরগির।

শুক্রবার রাজধানীর কারওয়ান বাজার, রামপুরা, মালিবাগ হাজীপাড়া ও খিলগাঁও এলাকার বিভিন্ন বাজার ঘুরে এবং ক্রেতা ও বিক্রেতাদের সঙ্গে কথা বলে এ তথ্য জানা গেছে।

খুচরা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার যে সবজি ৫০ টাকায় বিক্রি হয়েছে সেই সবজির দাম শুক্রবার পাঁচ থেকে ১০ টাকা পর্যন্ত বেড়েছে।

ঢেঁড়স ১০ টাকা বেড়ে বিক্রি হচ্ছে ৬০ টাকায়, বরবটি ৫৫ টাকা, বেগুন ৬৫ টাকা, পটল ৭০ টাকা, চিচিঙ্গা ৬০ টাকা, গাজর ৭০ টাকা, মিষ্টি কুমড়া ৬০ টাকা, করল্লা ৮০ টাকা, কাকরোল ৬৫ টাকা, টমেটো ৫৫ টাকা, কচুর লতি ৬০ টাকা, শসা কেজি প্রতি ৫৫ থেকে ৬০ টাকা, কাঁচামরিচ ৯০ টাকা কেজিতে বিক্রি হচ্ছে।

এছাড়া প্রতি পিস লাউ ৫০-৭০ টাকা, জালি কুমড়া ছোট ৪০ থেকে ৫০ টাকা আর বড়গুলো বিক্রি হচ্ছে ৭০ টাকা দরে।

এছাড়া শীতের আগাম সবজি শিমের কেজি বিক্রি হচ্ছে ১০০-১২০ টাকা, যা গত সপ্তাহে ছিল ১২০-১৪০ টাকা। তার আগের সপ্তাহে ছিল ১৮০-২০০ টাকা কেজি। অর্থাৎ সপ্তাহের ব্যবধান শিমের দাম কেজিতে কমেছে ২০ টাকা এবং দুই সপ্তাহের ব্যবধানে কমেছে ৮০ টাকা পর্যন্ত।

শিমের পাশাপাশি চড়া দামে বিক্রি হচ্ছে ফুলকপি, বাঁধাকপি ও মুলাও। আগের সপ্তাহের মতো ছোট আকারের প্রতি পিস ফুলকপি বিক্রি হচ্ছে ৪০-৫০ টাকা। একই দামে বিক্রি হচ্ছে বাঁধাকপি। মুলা বিক্রি হচ্ছে ৪০-৬০ টাকা কেজি।

এদিকে এক কেজির বেশি ইলিশ মাছ বিক্রি হচ্ছে এক হাজার থেকে এক হাজার ২০০ টাকায়। আর এক কেজির কম ওজনের ইলিশ বিক্রি হচ্ছে ৮০০ টাকায়। তবে অধিকাংশ ব্যবসায়ী ইলিশ মাছ জোড়া হিসেবে বিক্রি করছেন। জোড়া প্রকারভেদে বিক্রি হচ্ছে ৬০০ থেকে এক হাজার ৪০০ টাকা পর্যন্ত।

এছাড়া রুই মাছ কেজি প্রতি ২৩০ থেকে ২৮০ টাকা, তেলাপিয়া ১৩০ টাকা, শিং মাছ আকার ভেদে ৪০০ থেকে ৬০০টাকা কেজি এবং চিংড়ি মাছ ৬০০ থেকে এক হাজার টাকা কেজি দরে বিক্রি হতে দেখা গেছে।

গরু মাংস ৫৫০ টাকা কেজি, খাসি ৭৫০ এবং বয়লার মুরগি কেজি ১৩৫ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

সাব্বির=৭ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং ২৩শে ভাদ্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

Share.

Comments are closed.