অনলাইনে ক্লাসঃ আর্থিক টানপোড়নে শিক্ষার্থীরা

নাজমুল রাতুল:

অনলাইন ক্লাস চালু হওয়ার পরে বিপাকে পড়েছে সকল ছাত্র ছাত্রীরা। কারণ, পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রীদের একটি বড় অংশ এসেছে গ্রাম ও মফস্বল থেকে। তাদের অধিকাংশের পরিবার আর্থিকভাবে সচ্ছল নয়। তাদের অনলাইনে ক্লাস করার জন্য প্রয়োজনীয় গ্যাজেট (ল্যাপটপ, স্মার্টফোন) নেই। ইন্টারনেট কেনার সামর্থ নেই আর দুর্বল ইন্টারনেট সিগনাল তো আছেই।

তাছাড়া বেশির ভাগ শিক্ষার্থী করোনা সংকটের পূর্বে টিউশন, পার্টটাইম চাকরি, অনলাইন ছোটখাটো ব্যবসা সহ আরো নানা ভাবে অর্থ উপার্জন করতো। এবং নিজের খরচ কিছুটা হলেও নিজেই চালাতে পারতো। বর্তমানে তাদের সেই আয়ের রাস্তা পুরোপুরি বন্ধ। তারা পরিবারের উপর নির্ভরশীল হয়ে পড়েছে। তাই এই মুহূর্তে বাড়তি খরচের কোনো উপায় তাদের নেই। ফলে কিভাবেই বা তারা নতুন করে বাসায় ব্রডব্যান্ড সংযোগ নেবে। কিংবা প্রয়োজনীয় ডিভাইস (স্মার্টফোন,ল্যাপটপ, রাউটার) কিনবে।

ইউসিজি একটি জরিপ থেকে জানা যায়, দেশের ৬৩টি বিশ্ববিদ্যালয়ে অনলাইনে তাদের শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালনা করছে। বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রীরা ক্লাস করতে পারছে,পরীক্ষা দিতে পারছে, ভর্তি কার্যক্রম চালাতে পারছে, তাতে কোন অসুবিধা হচ্ছে না। সারা বিশ্বের সব দেশের অধিকাংশ বিশ্ববিদ্যালয় এখন অনলাইনে তাদের শিক্ষা কার্যক্রম চালাচ্ছে। সেই পথ অনুসরণ করে বাংলাদেশের বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলো তাদের কার্যক্রম চালাচ্ছে। অনলাইন কার্যক্রম অব্যাহত রাখার কথা বলে বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশন।

এদিকে এক ঘণ্টার একটি ভিডিও ক্লাসের জন্য ৭০০-১০০০ মেগাবাইট ডাটা প্রয়োজন হয়। একজন শিক্ষার্থীর যদি পাঁচটি কোর্স থাকে এবং সপ্তাহে কোর্সপ্রতি একটি করে অনলাইন ক্লাস হয়। তবে মাসে ২০টি ক্লাসের জন্য তাকে বেশ বড় ধরনের খরচ বহন করতে হচ্ছে। অথচ তার পরও অনলাইনে ক্লাসের সময় ভালো নেটওয়ার্ক পাওয়া যাচ্ছে না।

বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী আসিফ মাহমুদ বিডি জার্নালকে জানান, অনলাইনে পাঠদানের জন্য নতুন ওয়াইফাই বা ব্রডব্যান্ড সংযোগ নিতে ৩ থেকে ৭ হাজার টাকা পর্যন্ত খরচ হচ্ছে। এরপর মাসে মাসে তো ৫০০ থেকে দেড় হাজার টাকা পর্যন্ত বিল রয়েছে। এই খরচ অনেক শিক্ষার্থীর পক্ষে মেটানো সম্ভব হচ্ছেনা। ঠিক এই সময়ে ইচ্ছে থাকা সত্ত্বেও সংখ্যাগরিষ্ঠ ছাত্র-ছাত্রীরা অনলাইন ক্লাস করতে পারছে না।

মহামারী করোনাভাইরাস এর কারণে পৃথিবীর অন্যান্য দেশের মতো বাংলাদেশেও গত ২৪ শে মার্চ থেকে লকডাউন শুরু হয়। বন্ধ হয়ে যায় সকল সরকারি বেসরকারি কার্যক্রম। ঘোষণা আসে সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধের।

বিডিজা৩৬৫ / এনআর

Check Also

পদ্মা সেতু উদ্বোধন ২৫ জুন

জার্নাল ডেস্ক : পদ্মা নদীর ওপর উদ্বোধনের অপেক্ষায় থাকা সেতুর নাম নদীর নামেই থাকছে। আগামী …

হজ ফ্লাইট শুরুর নতুন তারিখ ৫ জুন

জার্নাল ডেস্ক : সৌদি কর্তৃপক্ষের অনুরোধে বাংলাদেশ থেকে হজের ফ্লাইট ৩১মে থেকে পিছিয়ে ৫জুন থেকে …