‘আমার ভার্জিনিটি, আমার চয়েজ’

বিনোদন ডেস্ক:

যৌনতা নিয়ে খোলামেলা মন্তব্য করে আগেও আলোচিত হয়েছেন বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত প্রবাসী মডেল ও অভিনেত্রী মাকসুদা আক্তার প্রিয়তি। সেই ধারাবাহিকতায় এবার নারীর ‘ভার্জিনিটি’ নিয়ে কথা বলেছেন মিস আয়ারল্যান্ড খ্যাত এই সুন্দরী।

বুধবার (২০ জুন) সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ফেসবুকে দেওয়া এক স্ট্যাটাসে প্রিয়তি এ নিয়ে কথা বলেন।

স্ট্যাটাসে প্রিয়তি লিখেন, ‘আমার এই ধরনের প্রশ্নের সম্মুখীন শুধুমাত্র দক্ষিণ এশিয়ার দুই থেকে তিনটি দেশের মহিলাদের থেকে হতে হয়।

মহিলা: আল্লাহ, বিয়ে ছাড়া বাচ্চা হয় কীভাবে?

আমি: হায় আল্লাহ , বিয়ে করার পর আপনারা বাচ্চা হত্যা (অ্যাবোরশন অথবা ডিঅ্যান্ডসি) করার লাইসেন্স পেলেন কোথা থেকে?

আমি জানি যে, বিয়ের পর মহিলারা সবচেয়ে বেশি ভ্রুণ হত্যা, অর্থাৎ ৯৭% বিবাহিত কাপল অ্যাবোরশন অথবা ডিঅ্যান্ডসি করে থাকেন। যদিও আমি শুধুমাত্র মহিলাদের একার দোষ দেবো না, স্বামীরও থাকে।

মহিলা: ওয়েল, আমার শরীর, আমার চয়েজ!

আমি: তাহলে, আমার ভার্জিনিটি, আমার চয়েজ।

বাই দ্য ওয়ে, বিয়ের সময় ভার্জিনিটি সার্টিফিকেট দিয়ে বিয়ে করেছিলেন নাকি? কীভাবে প্রুফ করলেন আপনি মিস ভার্জিন ছিলেন?

তবে হ্যাঁ, এখনো সমাজে ভার্জিন ছেলে বা মেয়ে আছে।  শুধুমাত্র কাউকে প্রশ্ন করার আগে ভাবুন, কথাগুলো কতখানি সামঞ্জস্য (সামঞ্জস্যপূর্ণ)।’

প্রসঙ্গত, ২০১৪ সালে ‘মিজ আয়ারল্যান্ড’ প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন হয়ে বিশ্ব মিডিয়ার নজরে আসেন মাকসুদা আক্তার প্রিয়তি। ২০১৫ সালে ‘মিজ আর্থ’ প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন হয়ে বিশ্ব সুন্দরীর খেতাব নিজের করে নেন।

পেশাগতভাবে আয়ারল্যান্ডে বিমান চালনার সঙ্গে যুক্ত রয়েছেন এই তারকা। মডেলিং ও বিভিন্ন চ্যারিটি কাজের সঙ্গে যুক্ত থাকেন ভালো লাগা থেকে। ইতোমধ্যে আয়ারল্যান্ডের চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন।

সাব্বির// এসএমএইচ//২১শে জুন, ২০১৮ ইং ৭ই আষাঢ়, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

Check Also

বিপদ জয় করে বিজয়ের দেশে ফিরে আসা

জার্নাল ডেস্ক : জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে অংশ নেওয়া বাংলাদেশ নৌ বাহিনীর জাহাজ ‘বিজয়’  সাক্ষাৎ বিপদ …

‘টাকা দিয়ে বিপদ কিনেছি’

জার্নাল ডেস্ক ‘টাকা দিয়ে বিপদ কিনেছি ‘।    এভাবেই নিজের হতাশার কথা  জানিয়েছেন বসনিয়ায় আটকে …