আহলে সুন্নাতের বুজুর্গ দিশারীদের বিরুদ্ধে মিথ্যা প্রচারণা ও অবমাননার প্রতিকার চেয়ে অভিযোগ দায়ের

পটিয়া প্রতিনিধি :

কতিপয় উগ্রবাদীর সন্ত্রাসী হুমকি, মিথ্যা প্রচারণা ও অবমাননার প্রতিকার চেয়ে মোহাম্মদ এমদাদুল হক ও মোহাম্মদ নঈম উদ্দীন বাদী হয়ে চট্টগ্রাম ডবল মুরিং থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

গত শনিবার (২ই মে) দায়ের করা অভিযোগে বলা হয়েছে, বিশ্ব বরেণ্য পীর ইসলামের গবেষনায় একমাত্র একুশে পদক(২০২০) প্রাপ্ত তফসীরুল মাশাহেদুল ঈমদনের প্রণেতা আল্লামা সৈয়দ সাইফুর রহমান নিজামী শাহ এবং তাঁর বড় সাহেবজাদা সৈয়দ আল্লামা ইমাম হায়াতের বিরুদ্ধে বিদ্বেষ বশতঃ কিছু উগ্রবাদি লোক প্রকাশ্যে হামলার হুমকি দিয়ে যাচ্ছে এবং নানাবিধ ভিত্তিহীন মিথ্যা অপবাদ ছড়িয়ে সমাজে অশান্ত পরিবেশ তৈরি করছে।

এমদাদুল হক বলেন, হজরত নিজামী শাহ ও হজরত ইমাম হায়াত আহলে সুন্নাতের দিশারী হিসেবে যুগ যুগ ধরে শান্তিপূর্ণভাবে ইসলামের আধ্যাত্মিক ও মানবিক দিক তুলে ধরে আসছেন। তিনি বলেন, তাঁরা ধর্মের নামে অধর্ম উগ্রবাদ জংগিবাদের বিরদ্ধে সরকারের সহযোগিতায় বিভিন্ন কর্মসূচী পালন করে আসছেন যা তাঁদের বক্তব্যেই সুপষ্ট ভাবে প্রমানিত। অথচ বিবাদীগন প্রকাশিত ভিডিও বক্তব্যের মাধ্যমে হিংসা বিদ্বেষে লিপ্ত হয়ে পীর সাহেব কেবলা দ্বয়ের বিরুদ্ধে উদ্দেশ্য প্রনোদীত মিথ্যা অপবাদ দিয়ে ষড়যন্ত্র করছে এবং একজন রাষ্ট্রীয় একুশে পদক প্রাপ্ত সম্মানীত সুন্নী পীরকে মিথ্যা অপবাদে দেয়ার মাধ্যমে উনার মানহানী করার সাথে সাথে ধর্মীয় বিদ্বেষ সৃষ্টি, মিথ্যা অপপ্রচার, ধর্মীয় উস্কানী, সাম্প্রদায়ীক দাঙ্গা, সামাজিক গোলযোগের মাধ্যমে রাষ্ট্রীয় সংহতী বিনষ্টের চেষ্টা করছে।

এতে করে তাঁদের অনুসারি আহলে সুন্নাতের  শান্তিপ্রিয় লক্ষ লক্ষ সদস্য, মুরিদ ও ভক্তবৃন্দের মধ্যে চরম ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া তৈরি হচ্ছে। আমরা আশংকা করছি উগ্রবাদী সন্ত্রাসী গোষ্ঠী সমাজকে সংঘাতের দিকে ধাবিত করার মাধ্যমে জঙ্গিবাদী হীন ষড়যন্ত্রে লিপ্ত আছে। কেননা, তাদেরকে ফেইসবুকে লাইভে এসে মিথ্যাচার করার পাশাপাশি সরাসরি হামলা হত্যার হুমকি দেওয়ার প্রমাণ পাওয়া গেছে, ফেইসবুকে এবং আরো কিছু সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পোস্ট দিয়ে খুবই হিংসাত্মক ও হিংস্রভাবে সন্ত্রাসবাদী আচরণ বহিঃপ্রকাশের অসংখ্য প্রমাণও পাওয়া গেছে। এই সমস্ত কিছু জঙ্গিবাদি সন্ত্রাসী মহলের সাথেই মিল পাওয়া যায়।

তিনি আরো বলেন, আমরা সকল ভিডিও ফুটেজ, অডিও রেকর্ড এবং অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ তথ্যাদি প্রমাণস্বরুপ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর নিকট সোপর্দ করে মামলার ব্যবস্থা নিশ্চিত করেছি। আমরা মনে করি, আমাদের রাষ্ট্রব্যবস্থা যাবতীয় প্রোপাগান্ডা ও সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে যেভাবে শক্তিশালী বিচার ব্যবস্থা নিশ্চিত করে আসছে সেভাবে এই সন্ত্রাসবাদী মহল তার উপযুক্ত শাস্তিই পাবে।

এই বিষয়ে ডবল মুরিং থানার তদন্ত অফিসার আবদুল জব্বার  বলেন, কেউ কারো বিরুদ্ধে ইচ্ছা প্রনোদিত ভাবে মিথ্যাচার, হামলা হত্যার হুমকি দেওয়া চরম অন্যায় ও আইনত  অপরাধ। আমরা তদন্ত করে অপরাধীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিব

Check Also

বাতিল হচ্ছে পিইসি-জেএসসি পরীক্ষা

জার্নাল ডেস্ক : প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী (পিইসি) ও জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি) পরীক্ষা চলতি বছর …

২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ৩৩, শনাক্ত ২৯৯৬

জার্নাল ডেস্ক : করোনায় দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ৩৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে …