ঈদের সিনেমা: মুক্তির আগেই এগিয়ে যারা

বিনোদন প্রতিবেদক

সিনেমার জন্য সবচেয়ে বড় মৌসুম দুই ঈদ। এই দুটি ঈদে জমে ওঠে সিনেমার বাজার। সিনেমা হলে দর্শকের ভীড় কিংবা প্রযোজকের লগ্নি তুলে নেয়ার স্বপ্ন, সবই আবর্তিত হয় ঈদ ঘিরে। তাইতো ঈদের জন্য বিশেষভাবে প্রস্তুতি নিতে থাকে সিনেমা সংশ্লিষ্টরা।

গত রোজার ঈদে দেশের প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পেয়েছে চারটি সিনেমা। এগুলো হলো- ‘সুপার হিরো’, ‘চিটাগাইঙ্গা পোয়া নোয়াখাইল্লা মাইয়া’, ‘পোড়ামন ২’ ও ‘পাঙ্কু জামাই’। এর মধ্যে প্রথম তিনটি ছবিই ভালো ব্যবসা করেছে। তাই আসন্ন ঈদ নিয়েও সবার মনে দারুণ প্রত্যাশা।

এদিকে আসন্ন কোরবানির ঈদকে উপলক্ষ করে এরইমধ্যে জমে উঠেছে সিনেমা পাড়া। বেশ কয়েকটি ছবিই মুক্তির প্রস্তুতি নিচ্ছে। এই পর্যন্ত ছয়টি ছবির মুক্তির কথা শোনা গেলেও চারটি সিনেমার প্রচারণাই চোখে পড়ছে। এগুলো হলো- ওয়াজেদ আলী সুমন পরিচালিত ‘ক্যাপ্টেন খান’,  মোস্তাফিজুর রহমান মানিক পরিচালিত ‘জান্নাত’, রাজা চন্দ পরিচালিত ‘বেপরোয়া’ ও শাহীন-সুমন পরিচালিত ‘মাতাল’।

মুক্তি পূর্ববর্তী লড়াইয়ে এগিয়ে আছে এই চারটি সিনেমা। বলাই বাহুল্য, আলোচনা কিংবা দর্শক আগ্রহের শীর্ষে রয়েছে ‘ক্যাপ্টেন খান’ ছবিটি। কারণ এতে অভিনয় করেছেন সুপারস্টার শাকিব খান ও বুবলী। ছবিটির তিনটি পোস্টার প্রকাশের পর রীতিমত ভাইরাল হয়ে যায়। এছাড়া হল বুকিংয়ের দিক দিয়েও অন্য সিনেমাগুলোর থেকে মাইলখানেক এগিয়ে রয়েছে ‘ক্যাপ্টেন খান’। তাই আসন্ন ঈদে এই ছবিটিই থাকছে প্রথম অবস্থানে।

জাজ মাল্টিমিডিয়া প্রযোজিত ‘বেপরোয়া’ ছবি নিয়েও আলোচনার কমতি নেই। অ্যাকশন ঘরানার এই ছবির ট্রেলার ও একটি গান প্রকাশ হয়েছে। আর তাতে একেবারে চমকে দিয়েছেন নায়ক জিয়াউল রোশান। তার দুর্দান্ত অ্যাকশন ও অভিনয় নিয়ে এরই মধ্যে সন্তুষ্টি প্রকাশ করেছেন চলচ্চিত্র সমালোচকরা। বলা হচ্ছে, এই ছবিটিই রোশানের ক্যারিয়ারে যোগ করবে অন্য মাত্রা। ছবিতে রোশানের সঙ্গে অভিনয় করেছেন চিত্রনায়িকা ববি।

এরপরই আলোচনার টেবিলে রয়েছে ‘জান্নাত’। সাইমন সাদিক ও মাহিয়া মাহি অভিনীত এই ছবির পোস্টার ও ট্রেলার দারুণভাবে প্রশংসিত হয়েছে। কিছুটা ভিন্ন ধাঁচে প্রেমের গল্প তুলে ধরা হয়েছে এই ছবিতে। যা দর্শককে আকৃষ্ট করবে বলেই বিশ্বাস করে ছবির টিম। মুক্তি উপলক্ষে ব্যাপক প্রচারণা চালাচ্ছে ‘জান্নাত’ সংশ্লিষ্টরা।

কেবল মাত্র একটি পোস্টার প্রকাশ করেই মুক্তি পূর্ববর্তী লড়াইয়ে অস্তিত্বের জানান দিয়েছে ‘মাতাল’। এই ছবিতে অভিনয় করেছেন সাইমন সাদিক ও অধরা খান। ছবিটির প্রথম পোস্টার বেশ আলোচিত হয়েছে। তাই ঈদের বাজারে এই ছবিটিও দর্শক আগ্রহে থাকবে বলে মনে করছেন এর কলাকুশলীরা।

এদিকে হার্টবিট প্রডাকশনের ছবি ‘মনে রেখো’ প্রচার-প্রচারণায় অনুপস্থিত। মাহিয়া মাহি ও কলকাতার নায়ক বনি সেনগুপ্ত অভিনীত এই ছবি পরিচালনা করেছেন ওয়াজেদ আলী সুমন। এই পর্যন্ত ছবিটির কোনো পোস্টার, টিজার বা ট্রেলার প্রকাশ্যে আসেনি।

প্রচার-প্রচারণায় চারটি ছবি এগিয়ে থাকলেও মুক্তির জন্য এই পর্যন্ত সেন্সর বোর্ডে জমা পড়েছে তিনটি ছবি। এগুলো হলো ‘ক্যাপ্টেন খান’, ‘মনে রেখো’ ও ‘মাতাল’। যথানিয়মে ছবিগুলো সেন্সর পাশ করে এলেই এর মুক্তি নিশ্চিত হবে। যদিও সেন্সর ছাড়পত্র পাওয়ার পরও প্রযোজক-পরিচালক চাইলে তাদের ছবির মুক্তি পেছাতে পারেন। তাই এখনো চূড়ান্তভাবে বলা যাচ্ছে না, কোরবানির ঈদে ঠিক কয়টি ছবি মুক্তি পায়।

প্রসঙ্গত, ‘মনে রেখো’ ছবিটি পরিচালনা করেছেন ওয়াজেদ আলী সুমন। এতে জুটি বেঁধে অভিনয় করেছেন মাহিয়া মাহি ও কলকাতার বনি সেনগুপ্ত। এটি প্রযোজনা করেছে হার্টবিট প্রডাকশন। সেন্সরে জমা দিলেও ছবিটির কোনো প্রচারণা দেখা যাচ্ছে না।

সাব্বির// এসএমএইচ//১৪ই আগস্ট, ২০১৮ ইং ৩০শে শ্রাবণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

Check Also

বিপদ জয় করে বিজয়ের দেশে ফিরে আসা

জার্নাল ডেস্ক : জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে অংশ নেওয়া বাংলাদেশ নৌ বাহিনীর জাহাজ ‘বিজয়’  সাক্ষাৎ বিপদ …

‘টাকা দিয়ে বিপদ কিনেছি’

জার্নাল ডেস্ক ‘টাকা দিয়ে বিপদ কিনেছি ‘।    এভাবেই নিজের হতাশার কথা  জানিয়েছেন বসনিয়ায় আটকে …