কনের সাজে প্রেমিকের কবরে ফিরে গেলেন প্রেমিকা

আর্ন্তজাতিক ডেস্ক :

দীর্ঘদিনের প্রেম থেকেই বিয়ের তারিখ ঠিক হয়েছিল জেসিকা ও কেন্ডালের। কিন্তু এক মর্মান্তিক দুর্ঘটনা কেড়ে নেয় কেন্ডালের প্রাণ। মুহূর্তে ভেঙে যায় সাজানো স্বপ্ন। কিন্তু প্রেমও কি মানুষের সঙ্গে সঙ্গে মরে যায়? উত্তর হচ্ছে- না, এরপরও ভালোবাসা ফুরোয়নি একটুও।

জেসিকা যাকে নিয়ে ঘর বাঁধার স্বপ্ন দেখতেন তিনি না ফেরার দেশে চলে গেলেও ভালোবাসা একটুও কমেনি তার। তাইতো দীর্ঘ ১০ মাস পর বউয়ের সাজে সেজে জেসিকা গেলেন প্রিয়জনের কবরের পাশে।

প্রেমিকের মৃত্যুর পর ভেবেছিলেন সামলে নিয়েছেন নিজেকে। কিন্তু কবরের কাছে যাওয়ার পরপরই কান্নার বাঁধ আর ধরে রাখতে পারলেন না। ফুলের তোড়া পাশে রেখে অঝোরে কাঁদলেন জেসিকা।

এক মাতাল চালকের গাড়ির সঙ্গে দুর্ঘটনায় মারা জান কেন্ডাল মারফি। কেন্ডাল ছিলেন একজন দমকল কর্মী। সেপ্টেম্বরের ২৯ তারিখে ঘটে এই মর্মান্তিক ঘটনা। সেদিনই তাদের বিয়ের কথা ছিল। এই ঘটনার পর ১০ মাস কেটে গেছে।

কেন্ডালের কবরের পাশে ছবিও তোলেন জেসিকা। যুক্তরাষ্ট্রের ইন্ডিয়ানা অঙ্গরাজ্যের লাভিং লাইফ ফটোগ্রাফি থেকে এই সুন্দর মুহূর্তের ছবিগুলো তোলা হয়েছে।

জেসিকা বলেন, যদিও আমি আমার স্বপ্নের পুরুষকে বিয়ে করতে পারিনি। কিন্তু, এই দিনটা আমার জন্য বিশেষ একটা দিন। তার এই বিশেষ দিনটিকে সুন্দর করে তুলতে যারা সাহায্য করেছেন তাদের ধন্যবাদ দিয়েছেন জেসিকা। তিনি বলেন, আমি যা চেয়েছিলাম তা হয়তো পাইনি। কিন্তু সবাই মিলে আমাকে অনেক ভালোবাসায় পূর্ণ করেছেন।

চুল বেঁধে সাদা গাউন পরে খুব সেজে গিয়েছিলেন তিনি তার প্রেমিকের কবরে। কোনভাবেই যেন দিনটা নষ্ট না হয় সে চেষ্টা করেছেন তিনি। এমন নজির খুব একটা দেখা যায় না ইদানিং

সাব্বির// এসএমএইচ//১২ই অক্টোবর, ২০১৮ ইং ২৭শে আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

Check Also

বিপদ জয় করে বিজয়ের দেশে ফিরে আসা

জার্নাল ডেস্ক : জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে অংশ নেওয়া বাংলাদেশ নৌ বাহিনীর জাহাজ ‘বিজয়’  সাক্ষাৎ বিপদ …

‘টাকা দিয়ে বিপদ কিনেছি’

জার্নাল ডেস্ক ‘টাকা দিয়ে বিপদ কিনেছি ‘।    এভাবেই নিজের হতাশার কথা  জানিয়েছেন বসনিয়ায় আটকে …