করোনা মোকাবেলায় সার্বক্ষনিক প্রস্তুত বাঁশখালীর জলদী আধুনিক হাসপাতাল

জসীম উদ্দীন :

চট্টগ্রামের বাঁশখালী জলদী পৌরসদরে অবস্থিত বাঁশখালী আধুনিক হাসপাতাল। করোনা ভাইরাস মোকাবিলায় রোগীদের স্বাস্থ্য সেবায় সর্বক্ষনিকভাবে প্রস্তুত রয়েছে।

রোগীদের জন্য আলাদা আলাদা ভাবে ইউনিট করে করোনা সংকট মোকাবিলায় চিকিৎসা সেবার জন্য অন্য সময়ের চাইতে বর্তমান সময়ে ভিন্ন ভাবে পরিলক্ষিত হয়।

টেস্টের জন্য  আধুনিক যন্ত্রপাতি প্রস্তুত রাখা হয়েছে। করোনা আতংকে যখন সরকারি-বেসরকারি কিছু ডাক্তার গাঁ ঢাকা দিয়েছে ঠিক তখন তারা মনোবল শক্ত রেখে অনেকটা ঝুঁকি নিয়েও চিকিৎসা সেবা চালিয়ে যাচ্ছে বলে জানা যায়।

পুরুষ-মহিলা নার্স সহ ৪ জন এমবিবিএস ডাক্তার নিয়মিত চিকিৎসা সেবা দিয়ে যাচ্ছে। মার্চ,এপ্রিল,মে, জুন মাসগুলো ঋতু পরিবর্তনশীল হিসেবে সর্দি,কাঁশি,জ্বর এসব রোগের প্রাদুর্ভাব বেশি হওয়ায় রোগীর হার অন্যসময়ের তুলনায় বেশি।

এছাড়াও করোনা আতংকে নিজেকে নিরাপদ রাখতে বিভিন্ন বেসরকারি ক্লিনিক ও সরকারি হাসপাতালে গাফিলতির কারণেও রোগীর সংখ্যা এ হাসপাতালে বৃদ্ধিও পরিলক্ষিত হয়।

রোগীদের মধ্যে করোনা উপস্বর্গ পেয়ে সন্দেহ হলে টেস্ট করে রিপোর্টের জন্য দ্রুত পাঠানো হচ্ছে বলেও জানান কতৃপক্ষ। করোনা মোকাবিলায় ৫ বেটের আইসোলেশনের ব্যবস্থাও করে রাখা হয়েছে। সেই সাথে ফ্লু কর্ণার  ও দৃশ্যমান রয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শী কয়েকজন রোগীর সাথে কথা বলে তারা জানায় আমি আমার ছেলেকে জ্বর নিয়ে এই হাসপাতালে নিয়ে আসছি। সবার সচেতন এর কথা চিন্তা করে এবং মেডিকেল কতৃপক্ষ আমার ছেলেকে ফ্লু কর্ণারে দিয়েছে, কারণ আমার বাচ্ছার জ্বর।

মেডিকেলের নার্সরা জানায় আমরা নানা ঝুঁকি নিয়ে এই মেডিকেলে সেবা দিয়ে যাচ্ছি। তবে আমাদের নিজে বাঁচার জন্য মেডিকেল কতৃপক্ষ সব ধরনের ইন্সট্রুমেন্ট দিয়েছে।

জলদি আধুনিক হাসপাতালে কর্তব্যরত ডাক্তার আবু বকর বলেন আমি এই হাসপাতালে চার বছর যাবৎ সেবা দিয়ে যাচ্ছি। করোনা নিয়ে যখন ডাক্তার সহ বিভিন্ন চিকিৎসা সেবা কর্মীরা তাদের নিজস্ব আইসোলেশন গেছে।  আমার স্ত্রী ও ডাক্তার সেই হিসাবে মেডিকেল এর সাথে কথা বলে নিজের পরিবারকে ও এই চিকিৎসা সেবার সংকটে নিয়োজিত করেছি।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায় বাঁশখালীর জলদি আধুনিক হাসপাতালে প্রবেশ মুখে রয়েছে হেক্সিসল, যেটি দিয়ে রোগী সহ সকল মানুষকে হাত ধুয়ে প্রবেশ করা হচ্ছে। এখানে সরকারের নির্দেশ অনুযায়ী আইসোলেশন এবং ফ্লু কর্নার রয়েছে। চিকিৎসাসেবা কর্মী প্রত্যেকের রয়েছে সার্জিক্যাল গ্রাউন্ড সহ সব ধরনের নিরাপত্তার সাথে চিকিৎসা দিতে।

এবং দক্ষিণ বাঁশখালীর মধ্যে আগে যত গুলো এম বি বি এস  ডাক্তার তাদের নিজস্ব চেম্বার করত তারা সবাই চেম্বার বন্ধ করে দিয়েছে বলে ও জানা যায়।

হাসপাতালের পরিচালক মোহাম্মদ শোয়েবুর রহমান বলেন সরকারের নির্দেশ মোতাবেক আমাদের মেডিকেলের সকল ধরনের জিনিস পত্র মজুত রয়েছে। সেই সাথে মেডিকেল ডাক্তার সহ সকল কর্মকতা কর্মচারীদের সার্জিক্যাল গ্রাউন্ড,মার্কস, সহ সবাই সচেতন হয়ে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে চিকিৎসা সেবা দিয়ে যাচ্ছি।

আমাদের উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোমেনা আক্তার এর নির্দেশে ফ্লু কর্ণার এবং আইসোলেশন এর জন্য ৫ টি রুম বরাদ্দ আছে।

Check Also

বাতিল হচ্ছে পিইসি-জেএসসি পরীক্ষা

জার্নাল ডেস্ক : প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী (পিইসি) ও জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি) পরীক্ষা চলতি বছর …

২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ৩৩, শনাক্ত ২৯৯৬

জার্নাল ডেস্ক : করোনায় দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ৩৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে …