চট্টগ্রামে আইনজীবীর স্ত্রী খুন: তিন ইস্যুতে পুলিশের তদন্ত

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি:

গতকাল (১ আগস্ট) বুধবার চট্টগ্রামের চান্দগাঁও থানার ফরিদারপাড়া এলাকায় নিজ বাড়িতে খুন হন আইনজীবীর স্ত্রী। খুন হওয়া গৃহবধূ চট্টগ্রাম আদালতের আইনজীবী এহতেশামুল পারভেজ সিদ্দিকী জুয়েলের স্ত্রী। নাম বিবি রহিমার (২৮)। বিবি রহিমা চারমাসের অন্তঃসত্ত্বা ছিলেন।

বিবি রহিমার মরদেহ উদ্ধারের সময় তার হাত পিছন থেকে বাঁধা ছিল। গলায় ও শরীরের বিভিন্ন অংশে আঘাতের চিহ্ন ছিল বলে জানয়েছে পুলিশ সূত্র। মরদেহ উদ্ধারের পর পারিবারিক দ্বন্দ্ব, সম্পত্তি ও ব্যক্তিগত বিরোধ এ তিন বিষয়কে সামনে রেখে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার (উত্তর) মিজানুর রহমান এ তথ্য জানান। তিনি বলেন, হত্যাকাণ্ডের পর পুলিশের ইউনিট ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। এ হত্যার তদন্ত শুরু হয়েছে।

তিনি বলেন, তিনটি বিষয়কে সামনে রেখে আমরা কাজ শুরু করেছি। তাদের সঙ্গে কারও পারিবারিক দ্বন্দ্ব, সম্পত্তি নিয়ে দ্বন্দ্ব ও ব্যক্তিগত বিরোধ ছিল কি না তা খতিয়ে দেখছি। ডাকাতি বা লুটপাটের কোনো বিষয় বলে মনে হচ্ছে না। তবুও আমরা সব বিবেচনায় রাখছি।

ঘটনার সময় রহিমার সঙ্গে তার ২ বছর ৯ মাস বয়সী শিশু হৃদি ছিল। মাকে হত্যার পুরো ঘটনার একমাত্র প্রত্যক্ষদর্শী মেয়ে হৃদি।

যে বাড়িতে খুন হন বিবি রহিমা সে বাড়িতে আরিফ ও ইয়াছিন নামে দুইজন ব্যাচেলর ভাড়াটিয়া থাকতেন। তারা পেশায় রংমিস্ত্রি। হত্যাকাণ্ডের পর থেকে তাদের খুঁজে পাওয়া যাচ্ছিল না। পরে সন্ধ্যায় তারা বাসায় আসেন। পুলিশ তাদের দুইজনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য চান্দগাঁও থানায় নিয়ে যায়। বিবি রহিমার বাড়ির পাশে থাকেন তার দেবর সানাউল হাসনাত রাসেল ও তার পরিবার। তবে হত্যার বিষয়টি তারা টের পাননি বলে দাবি তাদের।

এহতেশামুল পারভেজ সিদ্দিকী জুয়েল বিকেল ৩টার দিকে আদালত থেকে এসে প্রথথে স্ত্রীর মরদেহ বিছানায় পড়ে থাকতে দেখেন বলে দাবি তার। তিনি বলেন, বাড়ির ভেতরে ঢুকে স্ত্রীকে হাত পেছন থেকে বাঁধা অবস্থায় বিছানায় পড়ে থাকতে দেখি। হাতগুলো ওড়না দিয়ে বাঁধা। বাড়ির জিনিসপত্র এলোমেলো ছিল। বাসায় একটি মনিটর ছিল, সেটি নেই।

এদিকে আইনজীবী এহতেশামুল পারভেজ সিদ্দিকী জুয়েল ও তার স্ত্রী বিবি রহিমার মধ্যে দাম্পত্য কলহ ছিল বলে স্থানীয় ও আত্মীয় সূত্রে জানা গেছে। সেদিন সকালেও তাদের মধ্যে ঝগড়া হয়েছিল বলে জানিয়েছে সূত্রগুলো।
২০১৩ সালের শেষের দিকে এহতেশামুল পারভেজ সিদ্দিকী জুয়েল আগেও একটি বিয়ে করেছিলেন বলে জানা গেছে। অন্তঃসত্ত্বা থাকাবস্থায় সেই স্ত্রীর সঙ্গে বিচ্ছেদ হয়ে যায় এহতেশামুল পারভেজ সিদ্দিকী জুয়েলের। সেই ঘরে ৫ বছর বয়সী একটি বাচ্চাও রয়েছে।

বিবি রহিমা হত্যার তদন্তে এ বিষয়টিও বিবেচনায় রয়েছে বলে জানিয়েছে তদন্তে থাকা এক পুলিশ কর্মকর্তা। বিবি রহিমার দেবর সানাউল হাসনাত রাসেল ও শামসুন্নাহারকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে বলে পুলিশ সূত্রে জানা গেছে।

এদিকে বিবি রহিমাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে বলে জানান চান্দগাঁও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকতা (ওসি) আবুল বশর।

সাব্বির// এসএমএইচ//২রা আগস্ট, ২০১৮ ইং ১৮ই শ্রাবণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

Check Also

বিপদ জয় করে বিজয়ের দেশে ফিরে আসা

জার্নাল ডেস্ক : জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে অংশ নেওয়া বাংলাদেশ নৌ বাহিনীর জাহাজ ‘বিজয়’  সাক্ষাৎ বিপদ …

‘টাকা দিয়ে বিপদ কিনেছি’

জার্নাল ডেস্ক ‘টাকা দিয়ে বিপদ কিনেছি ‘।    এভাবেই নিজের হতাশার কথা  জানিয়েছেন বসনিয়ায় আটকে …