চট্টগ্রামে চলছে ট্রাফিক বিভাগের সাড়াশি অভিযান

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি:

দুই শিক্ষার্থী ঢাকায় বাস চাপায় নিহতের পর বিক্ষোভের মধ্যেই গত (৩১ জুলাই) মঙ্গলবার প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে ডিএমপি ও বিআরটিএকে ফিটনেসবিহীন যানবাহন ও অপ্রাপ্ত বয়স্ক-লাইসেন্সবিহীন চালকদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার আদেশ আসে।

ঠিক একদিন পরই গতকাল (১ আগস্ট) বুধবার থেকে অভিযান শুরু হয়েছে বন্দরনগরী চট্টগ্রামেও । অপ্রাপ্ত কিশোর ও লাইসেন্সবিহীন চালকদের বিরুদ্ধে অভিযান চালানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে সিএমপির ট্রাফিক বিভাগ। অতিরিক্ত কমিশনার (ট্রাফিক) কুসুম দেওয়ান বলেন, ‘অপ্রাপ্ত বয়স্ক চালক ও লাইসেন্সবিহীন চালকদের বিরুদ্ধে সিএমপির ট্রাফিক বিভাগ সাত দিনের বিশেষ অভিযান চালানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এ অভিযান শুরু হয়েছে। এটি টানা সাত দিন চলবে।’

নগরের বিভিন্ন রুটে নিয়মিত চলা লেগুনা-রাইডারসহ নানা নামে পরিচিত ছোট ও মাঝারি যানবাহনের বেশিরভাগই চালকই শিশু-কিশোর। নেই তাদের প্রশিক্ষণ আর ড্রাইভিং লাইসেন্স। এসব কিশোর চালকদের বেপরোয়া গাড়ি চালানোর কারণে প্রায়ই ঘটছে দুর্ঘটনা। অন্যদিকে গাড়ির পেছনে ঝুলন্ত অবস্থায় থাকে শিশু হেলপার। এনিয়ে নাগরিক সমাজে নানা সময়ে কথা উঠলেও কার্যকর পদক্ষেপ নেয়নি কর্তৃপক্ষ।

নগরের কালুরঘাট, বহদ্দারহাট, দুই নম্বর গেট, অক্সিজেন, জিইসি, আমবাগান, নতুন ব্রিজ, নিউমার্কেট, দেওয়ানহাট, নতুন বাজার, সিমেন্ট ক্রসিং, ইপিজেড মোড়ে গিয়ে দেখা যায়, এসব রুটের অধিকাংশ গাড়ি লক্কড়-ঝক্কর মার্কা ফিটনেসবিহীন। এসব গাড়ি ভোর থেকে রাত পর্যন্ত ছুটে চলে নগরের বিভিন্ন রাস্তায়। আর এসব ব্যস্ততম সড়কের যাত্রী বোঝাই এসব গাড়ির স্টিয়ারিংয়ের নিয়ন্ত্রণ হচ্ছে কিশোরদের দিয়ে। যাদের প্রত্যেকের বয়স ১২ থেকে ১৫ বছরের মধ্যে।

শিশু কিশোররা শত শত যাত্রীর প্রাণ হাতে নিয়ে খেলছে জানিয়ে নারী নেত্রী ও সাবেক কাউন্সিলর অ্যাডভোকেট রেহানা বেগম রানু বলেন, ‘এসব শিশু কিশোরদের হাতে যখন গাড়ির স্টিয়ারিংয়ের নিয়ন্ত্রণ থাকে। স্বাভাবিকভাবেই নিজের জীবন নিয়ে শংকা প্রকাশ করা স্বাভাবিক। ১৮ বছরের নীচে চালকের লাইসেন্স দেওয়ার কোনো আইন না থাকলেও তারা কীভাবে রাজপথে গাড়ি চালাচ্ছে? তাদের নিয়ন্ত্রণের জন্য যেসব বডি আছে তাদের দায়িত্ব কী তাহলে? শুধু ঢাকায় এধরণের অভিযানের কথা শুনি, কিন্তু চট্টগ্রামেও আমরা অভিযান চাই।’
নিরাপদ সড়ক চাই (নিসচা) চট্টগ্রাম মহানগরের সাধারণ সম্পাদক শফিক আহমেদ সাজিব বলেন, ‘শিশু কিশোর চালকদের বিষয়ে আমরা বারবার বিআরটিএ ও ট্রাফিক বিভাগের সঙ্গে বৈঠকে বিষয়টি জানিয়েছি। তবে তারা কার্যকর কোনও পদক্ষেপ নেয়নি। নগরে যত দুর্ঘটনা তার বেশিরভাগই এসব শিশু কিশোর চালকদের মাধ্যমেই সংঘটিত হচ্ছে। আমরা এসব চালকদের বিরুদ্ধে দ্রুত অভিযান চাই।’

সাব্বির// এসএমএইচ//২রা আগস্ট, ২০১৮ ইং ১৮ই শ্রাবণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

Check Also

বিপদ জয় করে বিজয়ের দেশে ফিরে আসা

জার্নাল ডেস্ক : জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে অংশ নেওয়া বাংলাদেশ নৌ বাহিনীর জাহাজ ‘বিজয়’  সাক্ষাৎ বিপদ …

‘টাকা দিয়ে বিপদ কিনেছি’

জার্নাল ডেস্ক ‘টাকা দিয়ে বিপদ কিনেছি ‘।    এভাবেই নিজের হতাশার কথা  জানিয়েছেন বসনিয়ায় আটকে …