চট্টগ্রামে পাসের হার ৭৫.৫৫, সেরা কলেজিয়েট স্কুল

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি :

চট্টগ্রাম শিক্ষাবোর্ডে মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট (এসএসসি) পরীক্ষায় এবারও সেরা হওয়ার গৌরব অর্জন করে কলেজিয়েট স্কুল।
চট্টগ্রাম বোর্ডের ১০২৩ টি স্কুলের মধ্যে শতভাগ পাস আর সর্বোচ্চসংখ্যক জিপিএ ৫ পেয়ে এবারও বোর্ডের তালিকায় প্রথম রয়েছে কলেজিয়েট স্কুল। বিগত বছরের মতো এবারও নিজেদের শ্রেষ্ঠত্ব প্রমান করেছে সরকারি এ বিদ্যালয়টি।
এ বছরে এসএসসি পরীক্ষায় এই বিদ্যালয় থেকে ৪২৫ জন পরীক্ষায় অংশ গ্রহণ করে জিপিএ ৫ পেয়েছে ৩৯৭ জন। এবং পাসের হার শতভাগ।
চট্টগ্রাম শিক্ষাবোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক (ভারপ্রাপ্ত) মো. তাওয়ারিক আলম চট্টগ্রাম শিক্ষাবোর্ডে রবিবার দুপুরে এক সংবাদ সম্মলনে পরীক্ষার ফল ঘোষণা করেন।
চট্টগ্রাম শিক্ষা বোর্ডে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় এবারের পাশের হার ৭৫.৫০ শতাংশ। এছাড়া জিপিএ ৫ পেয়েছে ৮০৯৪ জন। গতবার পাশের হার ছিল ৮৩.৯৯ শতাংশ। জিপিএ ৫ পেয়েছিল ৮৩৪৪ জন। সে হিসাবে চট্টগ্রাম বোর্ডে এবার পাসের হার ও জিপিএ ৫ উভয় কমেছে।
শতভাগ পাস স্কুলের সংখ্যাও কমেছে ৫০%। চট্টগ্রাম বোর্ডে এবার শতভাগ পাস স্কুলের সংখ্যা ২৭টি, যা গতবার ছিল ৫৬টি। তবে একজনও পাস করেনি এবার এরকম কোন স্কুল নেই, যা গতবার একটি ছিল।
গতবারের তুলনায় ফলাফল খারাপ হওয়া প্রসঙ্গে চট্টগ্রাম শিক্ষাবোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক (ভারপ্রাপ্ত) মো. তাওয়ারিক আলম মানবকণ্ঠকে বলেন, যারা রেজাল্ট খারাপ করেছে তাদের অধিকাংশ গণিতে খারাপ করেছে। আর বিজ্ঞান বিভাগে পাসের হার ৯০.০০ শতাংশ হলেও মানবিক বিভাগে মাত্র ৬০.১৩ শতাংশ। যা পুরো ফলাফলকে প্রভাবিত করেছে।
মো. তাওয়ারিক আলম আরো বলেন, পাসের হার জিপিএ ৫ এ চট্টগ্রাম শিক্ষা বোর্ডে এবারও কলেজিয়েট স্কুলের প্রথম স্থান অধিকার করেছে। এই বিদ্যালয় থেকে ৪২৫ জন পরীক্ষায় অংশ গ্রহণ করে জিপিএ ৫ পেয়েছে ৩৯৭ জন। এবং পাসের হার শতভাগ।
এছাড়া চট্টগ্রাম শিক্ষ্ বোর্ডে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে চট্টগ্রাম সরকারি মুসলিম হাই স্কুল। এ বিদ্যালয় থেকে ৪০৪ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে ৩২৬ জন জিপিএ ৫ পেয়ে শতভাগ পাস করেছে। তৃতীয় স্থানে রয়েছে বাংলাদেশ মহিলা সমিতি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় (বাওয়া) স্কুল। ৪৫৪ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে জিপিএ ৫ পেয়েছে ২৭৯ জন এবং পাসের হার ৯৯.১৩ শতাংশ।
এছাড়া চতুর্থ স্থানে রয়েছে ডা. খাস্তগীর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়। এ স্কুলে ৩২৮ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে শতভাগ পাসসহ জিপিএ ৫ পেয়েছে ২৭৩ জন। পঞ্চম স্থানে রয়েছে নাসিরাবাদ সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয়। এ স্কুলে পরীক্ষা দেওয়া ৩৮৬ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে জিপিএ ৫ পেয়েছে ২৬৫ জন এবং পাসের হার ৯৯.৭৪ শতাংশ। ষষ্ঠ স্থানে রয়েছে নৌবাহিনী স্কুল অ্যান্ড কলেজ। ৫৭৩ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে জিপিএ ৫ পেয়েছে ২৪৩ জন। এবং পাসের হার ৯৭.২৮ শতাংশ। সপ্তম স্থানে রয়েছে চট্টগ্রাম সরকারি (বালক) উচ্চ বিদ্যালয়। ২৮৬ জনের পরীক্ষার্থীর মধ্যে জিপিএ ৫ পেয়েছে ২৪২ জন। এবং পাসের হার ৯৩.৬৫ শতাংশ। অষ্টম স্থানে রয়েছে সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়। ২৫৫ জনের মধ্যে ১৭০ জন জিপিএ ৫ সহ ৯৮.০৮ শতাংশ পাসের হার। ২৮৯ জনের মধ্যে ১৪৫ জন জিপিএ ৫ পেয়ে নবম স্থান অর্জন করে বাকলিয়া সরকারি স্কুল। এবং দশম স্থান অর্জন করেন চট্টগ্রাম ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজ। এ স্কুল থেকে ১৯৫ জন পরীক্ষায় অংশ গ্রহণ করে শতভাগ পাসসহ ১৩৯ জন জিপিএ ৫ পায়।
বিষয়টি   নিশ্চিত করেন চট্টগ্রাম শিক্ষাবোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক (ভারপ্রাপ্ত) মো. তাওয়ারিক আলম।

সাইফুল//এসএমএইচ //৬ই মে, ২০১৮ ইং ২৩শে বৈশাখ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

Check Also

বিপদ জয় করে বিজয়ের দেশে ফিরে আসা

জার্নাল ডেস্ক : জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে অংশ নেওয়া বাংলাদেশ নৌ বাহিনীর জাহাজ ‘বিজয়’  সাক্ষাৎ বিপদ …

‘টাকা দিয়ে বিপদ কিনেছি’

জার্নাল ডেস্ক ‘টাকা দিয়ে বিপদ কিনেছি ‘।    এভাবেই নিজের হতাশার কথা  জানিয়েছেন বসনিয়ায় আটকে …