চট্টগ্রাম বন্দরে ১৩ কোটি টাকার সিগারেট আটক

চট্টগ্রাম ব্যূরো:

চট্টগ্রাম বন্দরে মিথ্যা ঘোষণায় আনা ‘৩০৩’ ও ‘মন্ড’ ব্রান্ডের ১ কোটি ৩০ লাখ শলাকার ৬৫০ কার্টন সিগারেটের একটি চালান আটক করেছে কাস্টম কর্তৃপক্ষ। যার বাজার মূল্য ১৩ কোটি টাকা, শুল্ক আসে ৯ কোটি।

সিঅ্যান্ডএফ এজেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের কাস্টম হাউসের ডেপুটি কমিশনার নূর উদ্দিন মিলন বলেন, গতকাল দুপুরে বন্দরের এনসিটি ইয়ার্ডে ২০ ফুট দীর্ঘ কনটেইনারটির পরীক্ষা সম্পন্ন করেন কাস্টম হাউস কর্মকর্তারা। এ সময় কাস্টম হাউসের গোয়েন্দা বিভাগ হিসেবে পরিচিত অডিট, ইনভেস্টিগেশন অ্যান্ড রিসার্চের ( এআইআর) কর্মকর্তারা গোপন সংবাদের ভিত্তিতে চালানটি আটক করেন।

ঢাকার পুরানা পল্টন এলাকার গ্রাম বাংলা করপোরেশনের নামে ‘এমভি ওয়েল স্ট্রেইটস’ নামের একটি জাহাজে সিঙ্গাপুর বন্দর থেকে গত বৃহস্পতিবার চট্টগ্রাম বন্দরে আসে ২০ ফুট লম্বা কনটেইনারটি (সিএনসিইউ ১৫০৪৬২০)। প্রতিষ্ঠানটির ঘোষণা ছিল ৫৮ দশমিক ৬৯ শতাংশ ডিউটির ৩৩৭ বেল (চাক্কি) ফেল্ট বা ফোম। কিন্তু কনটেইনারটি স্ক্যানিং করে দেখা যায় কার্টনে ভরা। তখন সিগারেট বলে সন্দেহ হয় এআইআর কর্মকর্তাদের। এরপর কনটেইনারটি বন্দরের নিরাপত্তা বিভাগের জিম্মায় দেওয়া হয়।

কায়িক পরীক্ষা শেষে কাস্টম হাউসের কমিশনার ড. একেএম নুরুজ্জামান বলেন, আমরা খোঁজ নিয়ে, বিআইএন নাম্বার তদন্ত করে দেখি আমদানিকারক প্রতিষ্ঠানটি ভুয়া। তারা আগে কখনো আমদানি করেনি। সিগারেট আমদানিতে ৪৫০ শতাংশ ডিউটি দিতে হয়। এটি দেশের সবচেয়ে বড় চোরাচালান। রাষ্ট্রের অনুকূলে সিগারেটগুলো বাজেয়াপ্ত করা হবে।

কাস্টম কর্তৃপক্ষ আরো বলেন সিগারেটগুলোর গুণগতমান ঠিক থাকলে পর্যটন করপোরেশনের কাছে বিক্রি করা হবে। নয়তো ধ্বংস করা হবে।

সাব্বির// এসএমএইচ//২৮শে এপ্রিল, ২০১৮ ইং ১৫ই বৈশাখ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

Check Also

বিপদ জয় করে বিজয়ের দেশে ফিরে আসা

জার্নাল ডেস্ক : জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে অংশ নেওয়া বাংলাদেশ নৌ বাহিনীর জাহাজ ‘বিজয়’  সাক্ষাৎ বিপদ …

‘টাকা দিয়ে বিপদ কিনেছি’

জার্নাল ডেস্ক ‘টাকা দিয়ে বিপদ কিনেছি ‘।    এভাবেই নিজের হতাশার কথা  জানিয়েছেন বসনিয়ায় আটকে …