চসিক মেয়র মো. রেজাউল করিম চৌধুরীর সাথে সৌজন্য সাক্ষাতে বাংলাদেশে নিযুক্ত কসোভার প্রথম রাষ্ট্রদূত।

চসিক মেয়রের সাথে কসোভোর রাষ্ট্রদূতের সাক্ষাৎ

জার্নাল ডেস্ক :

বাংলাদেশে নিযুক্ত কসোভোর প্রথম রাষ্ট্রদূত গুনার ইউরিয়াকে (Guner Ureya) চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের অস্থায়ী ভবনের মেয়র দপ্তরে স্বাগত জানান চসিক মেয়র মো. রেজাউল করিম চৌধুরী।

তিনি রাষ্ট্রদূতের উদ্দেশ্যে বলেন, কসোভো ইউরোপের একটি ক্ষুদ্র মুসলিম দেশ হলেও আমাদের বাংলাদেশের মতো দেশটির সমাজ অনেকটা ধর্মনিরেপেক্ষ। অন্যদিকে আমাদের ন্যায় মুক্তিযুদ্ধ করে দেশটি ২০০৮ সালে স্বাধীনতা পেয়েছে।

তিনি আরো জানান চট্টগ্রাম পৃথিবীর অন্যতম প্রধান প্রাকৃতিক সমুদ্র বন্দর এবং এই বন্দর নগরী বাষ্ট্রের অর্থনৈতিক হৃদপিন্ড।

চট্টগ্রাম বন্দর সম্প্রসারণ, বে-টার্মিনাল, গভীর সমুদ্র বন্দর নির্মাণ, কর্ণফুলী তলদেশ দিয়ে ট্যানেল নির্মাণ বাস্তবায়নের পথে। তাই চট্টগ্রাম নগরীর গুরুত্বও বহুমাত্রিক। বিশ্বের সকল প্রান্তে চট্টগ্রাম অপার সম্ভাবনাময় উর্বর অর্থনৈতিক শক্তি হিসেবে সমাদৃত। তিনি অতিথিকে অবগত করেন যে, দেশের ১২টি সিটি কর্পোরেশনের মধ্যে চট্টগ্রাম অন্যতম এবং শিক্ষা ও চিকিৎসা ক্ষেত্রে ব্যতিক্রমী অবদান রাখছে।

এখানে চসিকের পরিচালনায় ৬০টির বেশি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও ৫০টির বেশি স্বাস্থ্যসেবা কেন্দ্র রয়েছে। এছাড়া নাগরিক সেবা প্রদানে অর্থবহ একাধিক প্রকল্প বাস্তবায়িত হয়েছে, যা জাতীয় অর্থনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ প্রভাব ফেলেছে।

কসোভো স্বাধীন দেশ হিসেবে ইতোমধ্যে আমাদের সাথে কূটনৈতিক সম্পর্ক স্থাপন হয়েছে। যার মধ্যদিয়ে দুই দেশের মধ্যে চমৎকার দ্বিপক্ষীয় সম্পর্কে আরো ফলপ্রসূ হবে বলে তিনি আস্থা প্রকাশ করেন। তিনি বঙ্গবন্ধু তনয়া প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ২০৪১সালে উন্নত দেশে রূপান্তর হবে বলে প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।

কসোভার রাষ্ট্রদূত গুনার ইউরিয়া চট্টগ্রাম নগরীর প্রাকৃতিক সৌন্দর্যে মুগ্ধতা প্রকাশ করে বলেন, এখানে এসে চিত্তসুখ উপভোগ করেছি। তাই চট্টগ্রামের প্রতি আমার প্রাণের টান বেড়েছে। অন্যদিকে ২০১৭সালে ২৭ ফেব্রæয়ারী কসোভা প্রজাতন্ত্রকে স্বাধীন রাষ্ট্র হিসেবে স্বীকৃতি দেয় বাংলাদেশ। এজন্য আমরা এদেশের জনগণের প্রতি কৃতজ্ঞ। আমাদের দেশটিতে স্বাধীনভাবে মত প্রকাশের সুযোগ রয়েছে।

চট্টগ্রাম নগরীর মতো আমাদেরও ইসলামী ঐতিহ্যের অনেক স্থাপনা আছে যা পর্যটকদের আকৃষ্ট করে। মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ দেশ হলেও আমাদের দেশে বিভিন্ন সম্প্রদায় ও জাতি গোষ্ঠীর মানুষ সৌহার্দ্যপূর্ণ পরিবেশে বসবাস করে দেশে ধর্মনিরপেক্ষতা বজায় রেখে দেশকে উন্নয়ন ও অগ্রগতি পথে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছি। চট্টগ্রামের যে অর্থনৈতিক গুরুত্ব রয়েছে তার যথার্থ ব্যবহার শুধু বাংলাদেশ নয়, সারাবিশ্বের জন্যই যথেষ্ঠ অর্থবহ বলে তিনি অভিমত ব্যক্ত করেন।

এসময় উপস্থিত ছিলেন চসিক প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ শহীদুল আলম, প্যানেল মেয়র মো. গিয়াস উদ্দিন, কাউন্সিলর আব্দুস সালাম মাসুম, প্রধান রাজস্ব কর্মকর্তা মো. নজরুল ইসলাম, মেয়রের একান্ত সচিব মুহাম্মদ আবুল হাশেম, প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. সেলিম আখতার চৌধুরী প্রমুখ।

বিডিজা৩৬৫

Check Also

চন্দনাইশে ইয়াবা ট্যাবলেটসহ আটক ১

জার্নাল ডেস্ক চন্দনাইশে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বিশেষ অভিযান চালিয়ে ইয়াবাপাচারকারী এক যুবককে আটক করেছে পুলিশ। …

প্যারিস ফ্যাশন উইকে দীপিকার বাজিমাত

বিনোদন ডেস্ক এ বছর প্যারিস ফ্যাশন সপ্তাহের তৃতীয় দিনে বাজিমাত করেছেন দীপিকা পাড়ুকোন। ‘লুই ভিতোঁ’র …