জাতীয় ঐক্য ছাড়া ‘ভয়ঙ্কর’ অবস্থা থেকে মুক্তি পাওয়া কঠিন: ফখরুল

নিজস্ব প্রতিবেদক :

জাতীয় ঐক্য ছাড়া চলমান ‘ভয়ঙ্কর’ অবস্থা থেকে মুক্তি পাওয়া খুবই কঠিন বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।
সোমবার দুপুরে হাইকোর্ট প্রাঙ্গণে সাংবাদিকদের কাছে তিনি এ মন্তব্য করেন।
ফখরুল বলেন, জাতীয় ঐক্য ছাড়া এই ভয়ঙ্কর অবস্থা থেকে মুক্তি পাওয়া খুবই কঠিন। কোমলমতি শিক্ষার্থীরা আমাদের চোখ খুলে দিয়েছে। তাদের আন্দোলন আমাদের সবাইকে নাড়া দিয়েছে। ছেলেরা আমাদের এক জায়গায় আনার সুযোগ করে দিয়েছে।
‘এখন দায়িত্বটা সব রাজনৈতিক দলের। আমরা সেই ডাকে সাড়া দিয়ে জাতীয় প্রয়োজনে ঐক্যবদ্ধ প্রচেষ্টার মাধ্যমে সেই দায়িত্ব পালন করব।’
রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রের অভিযোগে করা মামলায় জামিন সংক্রান্ত বিষয়ে পরামর্শ নিতে আজ দুপুরে হাইকোর্টে যান মির্জা ফখরুল।

সেখানে তিনি সুপ্রিমকোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি জয়নুল আবেদীনের কার্যালয়ে বিএনপিপন্থী সিনিয়র আইনজীবীদের সঙ্গে দেখা করেন। তাদের সঙ্গে জামিন সংক্রান্ত আইনি বিষয়ে পরামর্শ নেন ফখরুল।
পরে সেখান থেকে বেরিয়ে আসার সময় সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন বিএনপি মহাসচিব।
তিনি বলেন, আমার বিরুদ্ধে একটি মামলা হয়েছে। মামলাকে খুব একটা কিছু মনে করি না। আমার বিরুদ্ধে এ পর্যন্ত ৮৬টি মামলা হয়েছে।
ফখরুল বলেন, আমাদের বেশিরভাগ নেতাদের বিরুদ্ধে ১০০-২০০ মামলা আছে। এটি আমাদের কাছে কোনো সমস্যা না।
উল্লেখ্য, নিরাপদ সড়কের দাবিতে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে উসকানি দেয়ার অভিযোগে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী ও জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীর বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে।

সোমবার সকালে ঢাকা মহানগর হাকিম এইচএম তোয়াহার আদালতে মামলাটি করেন জননেত্রী পরিষদের সভাপতি এবি সিদ্দিকী। মামলায় বিএনপির এ তিন নেতাকে রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রের জন্য অভিযুক্ত করা হয়েছে।
আদালত বাদীর জবানবন্দি গ্রহণের পর মামলাটি তদন্ত করে পুলিশকে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দিয়েছেন।

সাব্বির// এসএমএইচ//৬ই আগস্ট, ২০১৮ ইং ২২শে শ্রাবণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

Check Also

বিপদ জয় করে বিজয়ের দেশে ফিরে আসা

জার্নাল ডেস্ক : জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে অংশ নেওয়া বাংলাদেশ নৌ বাহিনীর জাহাজ ‘বিজয়’  সাক্ষাৎ বিপদ …

‘টাকা দিয়ে বিপদ কিনেছি’

জার্নাল ডেস্ক ‘টাকা দিয়ে বিপদ কিনেছি ‘।    এভাবেই নিজের হতাশার কথা  জানিয়েছেন বসনিয়ায় আটকে …