জাদুঘর মেসির জন্মদিনে কষ্টার্জিত জয় বার্সেলোনার

0

ক্রীড়া প্রতবেদকঃ

লা লিগায় বার্সার প্রাণ ভোমরা মেসির জন্মদিনে আথলেতিক বিলবাওয়ের বিপক্ষে কঠিন লড়াইয়ে যাচ জিতে শীর্ষে ফিরলো বার্সেলোনা। মঙ্গলবার রাতে ১-০ গোলের জয় পেয়েছে সেতিয়ানের দল। বার্সার পক্ষে একমাত্র জয়সূচক গোলটি করেন ইভান রাকিতিচ।

প্রথামর্ধে গাঁ ছাড়া ভাব নিয়ে খেলতে থাকে বার্সা শিবির। চলতি মৌসুমে বার্সেলোনাকে দুইবার হারানো বিলবাও খেলেছে আক্রমনাত্মক খেলা। তৃতীয় মিনিটে লোপেসের নিচু ক্রস ঝাঁপিয়ে ব্যর্থ করে দেন টের স্টেগেন। পরের মিনিটে সুযোগ আসে বার্সেলোনার সামনে। বিপজ্জনক জায়গা থেকে ঠিকমতো শট নিতে পারেননি লুইস সুয়ারেজ। ফিরতি বলে বুস্কটেসের শট ডি বক্সে প্রতিহত হয়।

বল নিয়ন্ত্রণে এগিয়ে ছিল স্বাগতিক বার্সেলোনা। তবে সুযোগ তৈরিতে এগিয়ে ছিল অতিথি বিলবাও। সফরকারীদের রক্ষণ ছিল দুর্দান্ত। দারুণ চেষ্টা করেও জমাট রক্ষণ ভাঙতে পারেননি লিওনেল মেসি-অঁতোয়ান গ্রিজমানরা। উল্টো বার্সা রক্ষণের কঠিন পরিক্ষা নিয়েছে অতিথিরা। তবে গোল বারে দেয়াল হয়ে ছিলো জার্মান বয় টের স্টেগেন।

৬২তম মিনিটে মেসির ফ্রি কিকে সুযোগ পান ভিদাল। পা ছোঁয়াতে না পেরে সহজ সুযোগ হাত ছাড়া করেন তিনি। একটু পর আবার মেসির তৈরি সুযোগ মিস করেন ভিদাল। তবে বল ক্লিয়ার করতে পারেনি বিলবাও। মেসির পায়ের আলতো ছোঁয়ায় বল পাই রাকিতিচ। সেই সুযোগ দ্রুত গতিতে জালে জড়াতে ভুল করে নি বদলি হিসেবে নামা রাকিতিচ।

রাকিতিচের কল্যানে ৭১তম মিনিটের এই গোলে বিলবাওয়ের বিপক্ষে গোল খরা কাটাল বার্সেলোনা। ঘাম ঝাড়ানো ম্যাচে মেসির জন্মদিনে উপহার স্বরূপ হয়ে থাকে এই গোল। ১-০ গোলের জয় নিয়ে জন্মদিনে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে মেসিরা।

৭০০ তম গোলের জন্য অপেক্ষা বাড়লো বার্সা বয় মেসির। জন্মদিনে গোল পাই নি তিনি। ম্যাচ শেষের আগে নেওয়া জোড়ালো শট জাল খোঁজে পাই নি। তবে এক এসিস্টে রেখেছেন ভূমিকা।

৩১ ম্যাচে ২১ জয় ও ৫ ড্রয়ে ৬৮ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে ফিরেছে বার্সেলোনা। এক ম্যাচ কম খেলে টেবিলের দ্বিতীয় স্থানে আছে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী রিয়াল মাদ্রিদ।

 

Share.

About Author

Comments are closed.