জাবি শিক্ষার্থীকে ছাত্রলীগ নেতার চড়-থাপ্পড়

নিজস্ব প্রতিবেদক :

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলে এক শিক্ষার্থীকে চড়-থাপ্পড় ও লাথি মারার অভিযোগ উঠেছে ছাত্রলীগের এক নেতার বিরুদ্ধে। গতকাল সোমবার বেলা আড়াইটার দিকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় হলের প্রাধ্যক্ষ বরাবর মৌখিক অভিযোগ দিয়েছেন মারধরের শিকার বিশ্ববিদ্যালয়ের পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের ৪৪তম ব্যাচের শিক্ষার্থী ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলের আবাসিক ছাত্র সারওয়ার হোসেন।

ছাত্রলীগের ওই নেতার নাম জার্মান আলী। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতœতত্ত্ব বিভাগের ৪২তম ব্যাচের শিক্ষার্থী ও একই হলের আবাসিক ছাত্র। তিনি বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি জুয়েল রানার অনুসারী এবং ছাত্রলীগের আসন্ন হল ইউনিট কমিটিতে সভাপতি পদপ্রার্থী।

কয়েকজন প্রত্যক্ষদর্শী জানান, বঙ্গবন্ধু হলের ‘এ’ ব্লকের বাইরের দিকে লোক দিয়ে মৌমাছির চাক থেকে মধু সংগ্রহ করাচ্ছিলেন জার্মান আলী। এ সময় সারওয়ারকে জানালা বন্ধ রাখতে বলেন তিনি। এর মধ্যেই কক্ষে মৌমাছি ঢুকে পড়লে সেগুলো বের করার জন্য জানালা খোলেন সারওয়ার। এ কারণে তাঁকে গালিগালাজ করতে থাকেন জার্মান আলী। সারওয়ার গালিগালাজ করতে নিষেধ বললে দুজনের মধ্যে বাগ্বিতণ্ডা হয়। পরে কক্ষে ঢুকে সারওয়ারকে এলোপাতাড়ি চড়-থাপ্পড় ও লাথি মারেন জার্মান আলী। এ বিষয়ে বাড়াবাড়ি করলে আরও মারধর করা হবে বলে হুমকিও দিয়েছেন জার্মান আলী ও তাঁর কয়েকজন বন্ধু।

জার্মান আলী বলেন, ‘এটি আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র। ছাত্রলীগের রাজনীতিতে প্রত্যেকটি হলে সভাপতি-সমর্থিত ও সাধারণ সম্পাদক-সমর্থিত দুটি পক্ষ আছে। আমার বিপরীত পক্ষ রাজনৈতিকভাবে হেয় করার জন্য আমার বিরুদ্ধে এমন অভিযোগ তুলেছে।’

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলের প্রাধ্যক্ষ ফরিদ আহমেদ গত রাতে গণমাধ্যমরক বলেন, ‘আমি ছাত্রদের সঙ্গে কথা বলে বিষয়টি জেনেছি। বিষয়টি মিটমাট করে দেওয়া হয়েছে।’

সাব্বির// এসএমএইচ//২৪শে এপ্রিল, ২০১৮ ইং ১১ই বৈশাখ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

Check Also

বিপদ জয় করে বিজয়ের দেশে ফিরে আসা

জার্নাল ডেস্ক : জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে অংশ নেওয়া বাংলাদেশ নৌ বাহিনীর জাহাজ ‘বিজয়’  সাক্ষাৎ বিপদ …

‘টাকা দিয়ে বিপদ কিনেছি’

জার্নাল ডেস্ক ‘টাকা দিয়ে বিপদ কিনেছি ‘।    এভাবেই নিজের হতাশার কথা  জানিয়েছেন বসনিয়ায় আটকে …