টি-টোয়েন্টিতে আফ্রিকার ইতিহাসের সর্বনিম্ন স্কোর

ক্রীড়া ডেস্ক :

শ্রীলংকার বিপক্ষে একমাত্র টি-টোয়েন্টি ম্যাচে ৯৮ রানে অলআউট সফরকারী দক্ষিণ আফ্রিকা। ক্রিকেটের এই সংক্ষিপ্ত ফর্মেটে এই প্রথম শতরানের নিচে অলআউট হয়ে গেল আফ্রিকা। টার্গেট তাড়া করতে নেমে ২৪ বল হাতে রেখে ৩ উইকেটের জয় নিশ্চিত করে স্বাগতিক শ্রীলংকা। এর আগে আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে দক্ষিণ আফ্রিকার সর্বনিম্ন স্কোর ছিল ১০০ রান। ২০১৩ সালে পাকিস্তানের করা ১৯৫ রানের জবাবে ব্যাটিংয়ে নেমে ১২.২ ওভারে ১০০ রানে অলআউট হয়েছিল ফাফ ডু প্লেসিসের নেতৃত্বাধীন আফ্রিকা।

শ্রীলংকা সফরে পাঁচ ম্যাচের তৃতীয় ওয়ানডে খেলায় ক্যাচ নিতে গিয়ে ইনজুরিতে আক্রান্ত হন আফ্রিকার নিয়মিত অধিনায়ক ডু প্লেসিস। তার পরিবর্তে ওয়ানডে সিরিজে দলের আপৎকালীন অধিনায়কের দায়িত্বপালন করেন ওপেনার কুইন্টন ডি কক। তার অধীনে ওয়ানডে সিরিজের শেষ দুই ম্যাচে বাজেভাবে পরাজিত হয় দক্ষিণ আফ্রিকা। যে কারণে শ্রীলংকার বিপক্ষে একমাত্র টি-টোয়েন্টি ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকা দলের অধিনায়কের দায়িত্ব দেয়া হয় জেপি ডুমিনিকে।

মঙ্গলবার কলম্বোর প্রেমাদাসা স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত টি-টোয়েন্টি ম্যাচে টসে জিতে আগে ব্যাটিং নেমে শুরু থেকেই বিপর্যয়ে পড়ে যায় সফরকারীরা। লক্ষণ সন্দাকান, আকিলা ধনাঞ্জয়া এবং ধনাঞ্জয়া ডি সিলভার ঘূর্ণিতে বলে বিভ্রান্ত হয়ে একের পর এক সাজঘরে ফেরেন আফ্রিকার ব্যাটসম্যানরা। সময়ের ব্যবধানে উইকেট পড়ে যাওয়ায় ১৬.৪ ওভারে ৯৮ রানেই অলআউট হয়ে যায় দক্ষিণ আফ্রিকা।

দলের হয়ে সর্বোচ্চ ২০ রান করেন ওপেনার ডি কক। এছাড়া ১৯ ও ১৮ রান করে করেন রেজা হেনরিক্স ও হেনরিচ ক্লাশেন। শ্রীলংকার হয়ে সন্দাকান ১৯ রানে নেন ৩ উইকেট। এছাড়া ২টি করে উইকেট ভাগাভাগি করেন আকিলা ও ডি সিলভা।

টার্গেট তাড়া করতে নেমে শ্রীলংকাও সময়ের ব্যবধানে উইকেট হারাতে থাকে। তবে দিনেশ চান্দিমালের অপরাজিত ৩৬ রানের সুবাদে ৭ উইকেট হারিয়ে ১৬ ওভারেই জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় স্বাগতিকরা।

সাব্বির// এসএমএইচ//১৫ই আগস্ট, ২০১৮ ইং ৩১শে শ্রাবণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

Check Also

বিপদ জয় করে বিজয়ের দেশে ফিরে আসা

জার্নাল ডেস্ক : জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে অংশ নেওয়া বাংলাদেশ নৌ বাহিনীর জাহাজ ‘বিজয়’  সাক্ষাৎ বিপদ …

‘টাকা দিয়ে বিপদ কিনেছি’

জার্নাল ডেস্ক ‘টাকা দিয়ে বিপদ কিনেছি ‘।    এভাবেই নিজের হতাশার কথা  জানিয়েছেন বসনিয়ায় আটকে …