নওগাঁয় পুলিশের আঘাতে নিয়ন্ত্রন হারিয়ে ট্রাক চাপায় মোটরসাইকেল আরোহী নিহত

নওগাঁ প্রতিনিধি:

নওগাঁয় ট্রাফিক পুলিশের আঘাতে নিয়ন্ত্রন হারিয়ে ট্রাকের চাপায় আসাদুল ইসলাম(৪৫) নামে এক মোটরসাইকেল আরোহী নিহত হলেন। আজ সোমবার সকাল ৯টার দিকে নওগাঁ শহরের বাইপাস ইকড়তাড়া গ্রামের নওগাঁ-বগুড়া সড়কে এ দূর্ঘটনা ঘটে। নিহত আসাদুল ইসলাম সদরের মাদারমোল্লা বলিরঘাট গ্রামের মৃত দেওয়ান ছাত্তার এর ছেলে ও শহরের প্রত্যাশা ক্লিনিক মালিক।

ঘটনার পর ট্রাফিক পুলিশের সার্জন রমজান আলীর শাস্তির দাবীতে এলাকাবাসী প্রায় ১ ঘন্টা রাস্তা অবরোধ করে রাখে। অবরোধে সড়কের দুই পাশে শতাধিক যানবাহন আটকে যায়। সংবাদ পেয়ে পুলিশের উধ্বর্তন কর্তৃপক্ষ ঘটনাস্থলে এসে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের আশ্বাস দিলে অবরোধ তুলে নেয় বিক্ষুদ্ধ জনতা।

স্থানীয় ও ক্লিনিক সূত্রে জানা যায়, আসাদুল ইসলাম সকালে তিলকপুর থেকে রোগী দেখে নওগাঁ শহরের বাইপাস সড়ক হয়ে মোটরসাইকেল চালিয়ে নওগাঁয় ফিরছিলেন। পথিমধ্যে ইকরতাড়া গ্রামের নওগাঁ-বগুড়া সড়কে ট্রাফিক পুলিশের সার্জন রমজান আলী আসাদুল ইসলামকে থামার জন্য সংকেত দেন। আসাদুল ইসলাম থামার আগেই পুলিশ আসাদুল ইসলামের বাম হাতে লাঠি দিয়ে আঘাত করেন। এতে তিনি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার ডান পাশে পড়ে যান। অপরদিকে বিপরিতগামী একটি ট্রাক তাকে চাপা দিলে ট্রাকের পিছনের চাকায় পৃষ্ট হয়ে ঘটনাস্থলেই তিনি মারা যান। এ ঘটনার ট্রফিকের প্রতি ক্ষুব্ধ হয়ে এলাকাবাসী ওই ট্রাফিক পুলিশকে গ্রেফতার করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের দাবিতে ১ ঘন্টা সড়ক অবরোধ করে রাখেন।

প্রতক্ষ্যদর্শী রামভদ্রপুর গ্রামের বাবু খান ও ইকরতারা গ্রামের সিদ্দীক হোসেন জানান, প্রতিদিন এখানে ট্রাফিক পুলিশ গাড়ি থামিয়ে চাঁদা তোলেন। সকালে ট্রাফিক পুলিশ আসাদুল ইসলামকে থামার জন্য সংকেত দেন সে পুলিশের কাছাকাছি আসতেই পুলিশ লাঠি দিয়ে তাকে আঘাত করলে সে বিপরিত দিক থেকে আসা ট্রাকের নিচে চাপা পড়ে ঘটনাস্থলেই মারা যান।

সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শণ করেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রাশিদুল হক, সদর উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা মুশতানজিদা পারভীন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) লিমন রায়, নওগাঁ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আব্দুল হাই।

নওগাঁ ট্রাফিক পুলিশ পরিদর্শক (টিআই) সারোয়ার হোসেন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে, নিউজটি না করার জন্যে অনুরোধ করেন।

নওগাঁ সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আব্দুল হাই জানান, ওই ট্রাফিক পুলিশের ব্যবস্থা গ্রহণের আশ্বাস দিলে অবরোধ তুলে নেন বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসি। এরপর নওগাঁ ফায়ার সার্ভিসের একটি ইউনিট নিহতের লাশ উদ্ধার করে নওগাঁ সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়।

পুলিশ সুপার ইকবাল হোসেন জানান, ঘটনাটি তদন্তের জন্য অতিরিক্ত পুলিশ (সদর সার্কেল) লিমন রায়কে প্রধান করে তিন সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন করা হয়েছে।

সাব্বির// এসএমএইচ//২৬শে জুন, ২০১৮ ইং ১২ই আষাঢ়, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

Check Also

বিপদ জয় করে বিজয়ের দেশে ফিরে আসা

জার্নাল ডেস্ক : জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে অংশ নেওয়া বাংলাদেশ নৌ বাহিনীর জাহাজ ‘বিজয়’  সাক্ষাৎ বিপদ …

‘টাকা দিয়ে বিপদ কিনেছি’

জার্নাল ডেস্ক ‘টাকা দিয়ে বিপদ কিনেছি ‘।    এভাবেই নিজের হতাশার কথা  জানিয়েছেন বসনিয়ায় আটকে …