বই পড়ার অ্যাপ

প্রযুক্তি ডেস্ক :

বইপড়ুয়াদের জন্য এত দিনক্ষণ দেখার প্রয়োজন পড়ে না। সময়ের অভাবে এখন দুই মলাটে ঘেরা পাতাগুলোয় মুখ ঢাকতে না পারলেও চোখ বুলিয়ে নেয়া যায় স্মার্টফোন বা ল্যাপটপের স্ক্রিনে। এর জন্য প্রয়োজন কিছু অ্যাপ।
এমন সাতটি অ্যাপ নিয়ে আজকের আয়োজন-

>> গুডরিডস
বইপ্রেমীদের সামাজিক নেটওয়ার্কিং সাইট গুডরিডস। এর ব্যবহারকারীর সংখ্যা এরই মধ্যে চার কোটিতে পৌঁছেছে। বইপড়ুয়ারা হালের বেস্টসেলার্সের খোঁজ করতে পারেন এ ওয়েবসাইটে। অন্যদের সঙ্গে বই-সংক্রান্ত আলাপ-আলোচনাও চালিয়ে যাওয়া যায়। তাই বইপ্রেমীদের জন্য এটি একটি গুরুত্বপূর্ণ অ্যাপ।

>> অডিবল
অফিসের কাজ শেষে বা সময়ের অভাবে অনেক সময় বই পড়ার ইচ্ছা থাকলেও হয়ে ওঠে না। অডিবল অ্যাপটি এক্ষেত্রে সহজ সমাধান হতে পারে। হাতের ডিভাইসে এ অ্যাপ থাকলে বইপোকা নিজের পছন্দসই উপন্যাস শুনতে পারবেন। অর্থাৎ শ্রবণেই অধ্যয়ন যাকে বলে।

>> ওভারড্রাইভ
বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে থাকা হাজার হাজার সরকারি গ্রন্থাগারে বিচরণের সুযোগ দেবে ওভারড্রাইভ। এতে স্থানীয় গ্রন্থাগারের অনুসন্ধান করা যাবে। এছাড়া বিভিন্ন ক্যাটালগে থাকা ই-বুক, অডিওবুক ও ভিডিও ধারণ করার সুবিধা রয়েছে।

>> কিন্ডল
পৃথিবীজুড়ে অভাব নেই বই, সাময়িকী কিংবা সংবাদপত্রের। শুধু থাকতে হবে পড়ার ইচ্ছা ও সময়। মার্কিন ই-কমার্স জায়ান্ট অ্যামাজনের কিন্ডল অ্যাপ বইয়ের সমাহার নিয়ে বসে আছে বইপোকাদের জন্য। এতে অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইস ব্যবহারকারীদের জন্য একটি অভিধানও রয়েছে, যা দিয়ে গুগল ও উইকিপিডিয়ায় থাকা যেকোনো শব্দের অর্থ খুঁজে পেতে সুবিধা হয়। বই পড়ার সুবিধার্থেই স্মার্টফোনে ইনস্টল করা উচিত কিন্ডল।

>> পকেট
ইন্টারনেট ব্রাউজিংয়ের সময় হঠাৎ চোখে পড়ল একটি প্রবন্ধ বা ই-বুক। কিন্তু পড়ার সময় নেই একদমই। এক্ষেত্রে পকেটের চেয়ে ভালো সমাধান আর কিছু নেই। এ অ্যাপের মাধ্যমে পছন্দের প্রবন্ধটি সংরক্ষণ করে রাখা যাবে। অবসরে তা পড়ে নেয়া যাবে। প্রবন্ধের পাশাপাশি ভিডিও ও ওয়েবপেজও সেভ করে রাখা যায় এ অ্যাপে। অফলাইন কনটেন্ট পড়ার সুবিধা রয়েছে পকেটে।

>> গুগল প্লে বুকস
গুগলের নিজস্ব একটি অ্যাপ গুগল প্লে বুকস। লাখো বইয়ের ভিড়ে নিজের পছন্দের বইটি গুগল প্লে বুকসের মাধ্যমে বেছে নেয়া যায় সহজেই। অফলাইন বা অনলাইন সব উপায়েই পড়া যায় বই। এতে মনকাড়া কোনো লাইন, বুকমার্ক বা টেক্সট হাইলাইটের সুবিধাও আছে। ফন্টের আকার ছোট, বড়, মাঝারি ইচ্ছামতো করে নেয়া যায়। প্রকাশকের অনুমোদন থাকলে শুনেও বই পড়া যাবে গুগল প্লে বুকসে।

>> ওয়াটপ্যাড
৭ কোটি ৫০ লাখের বেশি গল্প পড়ার সুযোগ রয়েছে ওয়াটপ্যাডে। এ অ্যাপ গল্প বলার ওপর গুরুত্ব দিয়ে তৈরি করা। এছাড়া লেখকদের সঙ্গেও আলাপ জমানো যাবে। ওয়াটপ্যাডে কাজ চালিয়ে যাওয়ার পাশাপাশি চ্যাপ্টারের পর চ্যাপ্টার বই পড়া সম্ভব। ওয়াটপ্যাড ব্যবহারের মাধ্যমে নিজেও বই লিখতে পারেন।

সাব্বির// এসএমএইচ//২৮শে এপ্রিল, ২০১৮ ইং ১৫ই বৈশাখ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

Check Also

বিপদ জয় করে বিজয়ের দেশে ফিরে আসা

জার্নাল ডেস্ক : জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে অংশ নেওয়া বাংলাদেশ নৌ বাহিনীর জাহাজ ‘বিজয়’  সাক্ষাৎ বিপদ …

‘টাকা দিয়ে বিপদ কিনেছি’

জার্নাল ডেস্ক ‘টাকা দিয়ে বিপদ কিনেছি ‘।    এভাবেই নিজের হতাশার কথা  জানিয়েছেন বসনিয়ায় আটকে …