বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে ভিসির অনিয়মের পাহাড়-৪

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি :

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে সরেজমিনে ঘুরে দেখা যায়, বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় ক্যাফেটেরিয়া ব্যবহারতি হচ্ছে নতুন ছাত্রী হল হিসেবে। সেখানে অসংখ্য ছাত্রী নানাবিধ সমস্যা এবং অসুস্থতার মধ্যে দিয়ে বর্তমানে দুর্বিষহ জীবনযাপন করছে। বিশ্ববিদ্যালয় গ্যারেজের কিয়দংশ টিনের বেষ্টনি দিয়ে করা হয়েছে অস্থায়ী বদ্ধ ছাত্রী হল এবং বাকি অংশে পরিবেশ বিজ্ঞান বিভাগের ক্লাস হয়।
বিশ্ববিদ্যালয় কার্যক্রম প্রায় আট বছর আরম্ভ হলেও বাঁশ ও কাঠ দিয়ে তৈরি কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারটি এখন ভঙ্গুর অবস্থায় পড়ে আছে। বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় মন্দিরটিও পড়ে আছে ভগ্ন অবস্থায়, ভগ্ন মন্দিরে পাশে বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠাকালীন সময়ের এটির ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন চোখে পড়ে। বিশ্ববিদ্যালয় স্কুল অ্যান্ড কলেজের টিনসেড ভবনটি ব্যবহারিত হচ্ছে বিভিন্ন বিভাগের শ্রেণীকক্ষ হিসেবে। সবচেয়ে আশ্চর্যজনক ব্যাপার যেটি দেখা যায় তা হচ্ছে, নির্মাণাধীন একাডেমিক ভবনের বিভিন্ন তলায় মেঝেতে বসে ঝুঁকি নিয়ে শিক্ষার্থীদের ক্লাস করার দৃশ্য। এছাড়া পুরাতন বিভাগ গুলোতে আসন সংখ্যা অত্যাধিক বৃদ্ধি করার দরুন ৫০ জন শিক্ষার্থী ধারণ ক্ষমতা সম্পন্ন শ্রেণী কক্ষে এখন এক’শ জন শিক্ষার্থীকে গাদাগাদি করে বসে ক্লাস করতে হচ্ছে। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের নতুন ইঞ্জিনিয়ারং বিভাগ গুলোর ল্যাব অবস্থা নাজুক।
নাম প্রকাশ না করার শর্তে কয়েকজন শিক্ষার্থীদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায, বিভিন্ন বহিরাগত প্রতিষ্ঠানে নিয়ে যেয়ে তাদের নাম মাত্র ল্যাবের কাজ করানো হচ্ছে। বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ক্রিকেট মাঠটি বছরের আট মাসই থাকে জলাবদ্ধ।
অনুসন্ধান কালে আরো অভিযোগ পাওয়া যায়, শিক্ষকদের ডরমিটরিতে বিদেশী শিক্ষার্থীদের রেখে শিক্ষকদের বাহিরে পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে। অবশ্য বিদেশী শিক্ষার্থীদের জন্য একটি হোস্টেল নির্মাণ প্রায় শেষ পর্যায়ে, কিন্তু বাস্তবে তা শিক্ষার্থীদের তুলনায় পর্যাপ্ত নয়। বিশ্ববিদ্যালয়ের অভ্যন্তরে দেখা যায় অধিকাংশ ভঙ্গুর কর্দমাক্ত ইটের রাস্তা। হলের পানি মাত্রাতিরিক্ত লবণাক্ত, নি¤œমানের খাবার। হলের চারজনের রুমে পাঁচ থেকে আট জন পর্যন্ত ছাত্রের বসবাস। হলের টিভি ইনডোর গেমরুমে করা হয়েছে গনরুম। সেখানে পড়াশুনার পরিবেশহীন মানবেতর জীবনযাপন করছেন অসংখ্য শিক্ষার্থী।
সবশেষ চোখে পড়ে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে ভিসি প্রফেসর ড. খোন্দকার নাসির উদ্দিনের বাস ভবনের দক্ষিন পাশে বিশ্ববিদ্যালয় স্কুল অ্যান্ড কলেজের শিশুদের ঝুঁকিপূর্ণ ছাপড়া তোলা লম্বা টিনসেড ঘরের মধ্যে ছোট ছোট কক্ষে ক্লাস করার দৃশ্য, যেখানে তাদের থাকার কথা ছিল বিদ্যালয় ভবনে।

সাব্বির// এসএমএইচ//৭ই জুন, ২০১৮ ইং ২৪শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

Check Also

বিপদ জয় করে বিজয়ের দেশে ফিরে আসা

জার্নাল ডেস্ক : জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে অংশ নেওয়া বাংলাদেশ নৌ বাহিনীর জাহাজ ‘বিজয়’  সাক্ষাৎ বিপদ …

‘টাকা দিয়ে বিপদ কিনেছি’

জার্নাল ডেস্ক ‘টাকা দিয়ে বিপদ কিনেছি ‘।    এভাবেই নিজের হতাশার কথা  জানিয়েছেন বসনিয়ায় আটকে …