বিমান বাহিনীর বীজ ছিটানো কার্যক্রম

জার্নাল ডেস্ক

বাংলাদেশ বিমান বাহিনী বন অধিদপ্তরের সাথে প্রয়োজনীয় সমন্বয়ের মাধ্যমে দেশের উপকূলীয় এবং পার্বত্য চট্টগ্রাম অঞ্চলের দুর্গম এলাকায় বনায়ন কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। বনায়ন কর্মসূচির আওতায় দেশের উপকূলীয় অঞ্চলে গত রবিবার ও সোমবার বিমান বাহিনীর হেলিকপ্টার দ্বারা আকাশ হতে সীডবল নিক্ষেপের মাধ্যমে দুর্গম এলাকায় বীজ ছিটানো হয়। বাংলাদেশ বিমান বাহিনী প্রধান এয়ার চীফ মার্শাল মাসিহুজ্জামান সেরনিয়াবাত, বিবিপি, ওএসপি, এনডিইউ, পিএসসি এর নির্দেশনায় উক্ত বনায়ন কর্মসূচি পরিচালিত হয়। বাংলাদেশে এই প্রথম হেলিকপ্টারযোগে আকাশ হতে সীডবল নিক্ষেপের মাধ্যমে উপক‚লীয় অঞ্চলে বীজ ছিটানো হয়। এ লক্ষ্যে গত ৩ সেপ্টেম্বর পটুয়াখালী হতে প্রয়োজনীয় বীজ সংগ্রহ করে বিমান সদরে যথাযথ প্রক্রিয়া করে সীডবল তৈরি করা হয়। প্রক্রিয়াজাতকৃত সীডবলসমূহ বিমান বাহিনীর ২টি এমআই সিরিজ হেলিকপ্টারের মাধ্যমে আকাশ হতে নোয়াখালীর ডমার চর এলাকার উপক‚লীয় অঞ্চলে ছিটানো হয়। উল্লেখ্য বনায়নের জন্য নির্বাচিত স্থানসমূহ দুর্গম ও সড়কপথে যাতায়াতের অনুপযোগী হওয়ায় হেলিকপ্টারের মাধ্যমে এসকল এলাকায় বীজ ছিটানো কার্যক্রম পরিচালনা করা হয়। উল্লেখ্য বাংলাদেশ বিমান বাহিনী পরিচালিত উপরোক্ত বনায়ন কর্মসূচি গ্রিন হাউজের প্রভাবে সমুদ্রের পানির উচ্চতা বৃদ্ধি, বন উজাড় প্রভৃতি হতে বাংলাদেশের প্রাকৃতিক পরিবেশ রক্ষা ও প্রাকৃতিক দুর্যোগের ক্ষয়ক্ষতি হ্রাসকল্পে গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা পালন করবে। বনায়ন কর্মসূচির ফলে সৃষ্ট বনাঞ্চল ভবিষ্যতে উপক‚লীয় এলাকায় বসবাসরত জনগণের জীবন রক্ষাকারী ঢাল হিসেবে পরিণত হবে বলে আশা করা যায়।

বিডিজা৩৬৫/এনআর

Check Also

বিপদ জয় করে বিজয়ের দেশে ফিরে আসা

জার্নাল ডেস্ক : জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে অংশ নেওয়া বাংলাদেশ নৌ বাহিনীর জাহাজ ‘বিজয়’  সাক্ষাৎ বিপদ …

‘টাকা দিয়ে বিপদ কিনেছি’

জার্নাল ডেস্ক ‘টাকা দিয়ে বিপদ কিনেছি ‘।    এভাবেই নিজের হতাশার কথা  জানিয়েছেন বসনিয়ায় আটকে …