মাদকবিরোধী অভিযানে নীলফামারীতে আটক ২৩

নিজস্ব প্রতিবেদক :

চলমান মাদকবিরোধী অভিযানে নীলফামারীতে ২৩ জনকে আটক করেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। এর মধ্যে ডোমারে ১৩ জন, জলঢাকায় ২ জন এবং সৈয়দপুর উপজেলার ৭ জন রয়েছে।শুক্রবার সন্ধ্যা থেকে শনিবার ভোর পর্যন্ত বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে এসব মাদকাসক্তদের আটক করা হয়।আটকরা হলো ডোমারের পশ্চিম চিকনমাটি নাউয়াপাড়ার আব্দুস সামাদের ছেলে শাহিদুল ইসলাম, চিকনমাটি দোলাপাড়ার নগেন রায়ের ছেলে সুকুমার রায়, বড় রাউতা মাঝাপাড়ার শ্যাম রায়ের ছেলে স্বপন রায়, চিকনমাটি ছমির উদ্দিন পাড়ার আব্দুর রশিদের ছেলে মমিনুর ইসলাম, চিকনমাটি দোলাপাড়ার হযরত আলীর ছেলে শাহিন, চিকনমাটি ধনীপাড়ার জিকরুল ইসলামের ছেলে আবু কালাম, চিকনমাটি জুম্মাপাড়ার নুরুল হকের ছেলে রাশেদুল হক, বোড়াগাড়ি বাজার এলাকার ইসলাম আলীর ছেলে উমর ফারুক, পূর্ব ছোট রাউতা এলাকার দুলাল রায়ের ছেলে চন্দন রায়, ছোটরাউতা গুচ্ছগ্রাম এলাকার সফিকুল ইসলামের ছেলে শাহিনুল ইসলাম, একই এলাকার জাভেদ আলীর ছেলে হৃদয়, ডিমলা উপজেলার ডিমলা সদর ইউনিয়নের বাবুরহাট এলাকার কমলা চন্দ্র রায়ের ছেলে জয়চন্দ্র বর্মণ এবং ভোগডাবুড়ি ইউনিয়নের নিজ ভোগডাবুড়ি মাস্টারপাড়া এলাকার জমির উদ্দিনের ছেলে আব্দুস সালাম।পুলিশের ডোমার সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার জয়ব্রত পাল ও ডোমার থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) মোকছেদ আলীর নেতৃত্বে উপজেলার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়।এ ছাড়া জলঢাকা উপজেলায় আটকরা হলো ময়মনসিংহ জেলার ভালুকা উপজেলার খোলাবাড়ি এলাকার সুরুজ মিয়ার ছেলে ইসমাইল হোসেন ও রংপুর জেলার গঙ্গাচড়া উপজেলার বেতগাড়ি ইউনিয়নের কিসামত এলাকার আব্দুল জব্বারের ছেলে নজরুল ইসলাম।জলঢাকা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোস্তাফিজুর রহমান জানান, বড়ঘাট এলাকায় অভিযান চালিয়ে ৬’শ পিস ইয়াবাসহ তাদের আটক করা হয়। তারা ঠাকুরগাঁও থেকে আসছিল বলে জানান ওসি।এদিকে, র‌্যাব-১৩ ক্রাইম প্রিভেনশন কোম্পানী(সিপিসি-২) এর অভিযানে সৈয়দপুর উপজেলা থেকে সাতজনকে আটক করা হয়।আটকরা হলো কয়া রসুলপুর এলাকার ছাগিরের ছেলে তুহিন, ইসলামবাগ এলাকাকার আবুল হোসেনের ছেলে সাইদুল ইসলাম, আতিয়ার কলোনী এলাকার ইলিয়াস হোসেনের ছেলে আশরাফ হোসেন, রসুলপুর এলাকার মুসলিমের ছেলে মোন্না, নজরুল ইসলামের ছেলে রুবেল হোসেন, ইসলামবাগ এলাকার ইউসুফ আলীর ছেলে মগবুল আলম ও পুরাতন মুন্সিপাড়া এলাকার আজিজুল ইসলামের ছেলে আছাদ।র‌্যাব সূত্র জানায়, আটকদের ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক সৈয়দপুর উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) পরিমল কুমার সরকার আটক তুহিনকে সাতদিনের কারাদণ্ড এবং বাকি ছয়জনকে ১’শ করে টাকা জরিমানা করেন।র‌্যাব-১৩ নীলফামারী ক্যাম্প কমান্ডার ও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোতাহার হোসেন জানান, দণ্ডপ্রাপ্ত তুহিনকে জেলা কারাগারে এবং জরিমানার টাকা পরিশোধ করায় বাকিদের ছেড়ে দেয়া হয়।নীলফামারী পুলিশ সুপার মুহাম্মদ আশরাফ হোসেন জানান, চলমান মাদক বিরোধী অভিযানের অংশ হিসেবে নীলফামারীতে ‘ব্লক রেইড’ পরিচালিত হচ্ছে। কোনো অবস্থাতেই ছাড় পাবেন না মাদক ব্যবসায়ী, মাদক সেবী কিংবা এর সাথে জড়িতরা।শুক্রবার রাতে আটক হওয়া ব্যক্তিদের শনিবার আদালতের মাধ্যমে জেলা কারাগারে পাঠানো হবে বলে জানান এসপি আশরাফ

সাইফুল//এসএমএইচ//২রা জুন, ২০১৮ ইং ১৯শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

Check Also

বিপদ জয় করে বিজয়ের দেশে ফিরে আসা

জার্নাল ডেস্ক : জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে অংশ নেওয়া বাংলাদেশ নৌ বাহিনীর জাহাজ ‘বিজয়’  সাক্ষাৎ বিপদ …

‘টাকা দিয়ে বিপদ কিনেছি’

জার্নাল ডেস্ক ‘টাকা দিয়ে বিপদ কিনেছি ‘।    এভাবেই নিজের হতাশার কথা  জানিয়েছেন বসনিয়ায় আটকে …