সচল হয়েছে চট্টগ্রাম বন্দর

0

বিডিজার্নাল প্রতিনিধি :

কয়েক জন ট্রেইলার চালক ও সহকারীকে আটকের জের ধরে মঙ্গলবার বিকালে  চট্টগ্রাম বন্দরের পণ্য পরিবহনে দেখা  দেওয়া অচলবাস্থা তিন ঘন্টার মধ্যে সমাধান হয়েছে।

বন্দরের পরিচালক সিকিউরিটি আবদুল গাফফার জানিয়েছেন, এলোপাথাড়ী পার্কি এবং অনান্য কারনে কয়েকজন চালক ও সহকারীকে আটক করেছিলো বন্দরের ম্যাজিস্ট্রেট, পরে নিয়ম মেনে গাড়ী চালোনো ও পার্কিং এর নিশ্চয়তা দেওয়ায় তাদেরকে ছেড়ে দেওয়া হয়, এর ট্রেইলর চালকরা কিছুক্ষন বন্দর থেকে পণ্য পরিবহন বন্ধ রাখে।

তিনি আরো জানান, “ট্রেইলার চালক ও সংশ্লিষ্টদের সাথে বিকালে আমি কথা বলেছি, এই বিষয়ে একটা স্থায়ী সমাধানের জন্য শীঘ্্রই উদ্যোগ নেওয়ার সিদ্ধান্ত নৌযার পর বিকাল পাচটা থেকে তারা স্বাভাবিক কাজ কর্মে ফিরে যায়, এরপর থেকে বন্দর থেকে পণ্য পরিবহন স্বাভাবিক হয়।”

বন্দরে প্রতিদিন চার হাজার ট্রাক- ট্রেইলার প্রবেশ করে, এগুলোর শৃংখলা সাথে চলাচল এবং পার্কিং জরুরী, সেইজন্য কিছু ব্যবস্থা নিতে হচ্ছে, সবার সুবিধার্থে এই ব্যাপারে কিছু নিয়ম মেনে চলতে হবে, উল্লেখ করেন তিনি।

এদিকে, চট্টগ্রাম বন্দর ট্রাক মালিক সমিতির সাধারন সম্পাদক জহুর আহমদ জানিয়েছেন, “বন্দরে ইদানিং চালক ও হেলপারদের মারধর করা হতো, পার্কিং এর কোন স্থান না থাকায় গাড়ী অপেক্ষামানও রাখতে দেয়া হয়না, হয়রানি করা হয়,  আজ( মঙ্গলবার) বেশ কয়েকজন চালক- হেলপারকে আটক করে মারধর করা হয়, এই নিয়ে বিক্ষুদ্ধ হয়ে বন্দর থেকে পণ্য পরিবহন বন্ধ রাখা হয়।”

পরে কর্তৃপক্ষের সাথে আলোচনা সাপেক্ষে বন্দর থেকে পণ্য পরিবহন শুরু হয়, পরিবহন মালিক শ্রমিকরা বেশ কিছু দাবি জানিযেছি, এই সব দাবির বিষয়ে আলোচনার আশ্বাস দেয়া হয়েছে, উল্লেখ করেন তিনি।

ট্রেইলার চালক ও সহকারীদের আটকের খবরে বিক্ষুদ্ধ পরিবহন শ্রমিকরা বন্দর এলাকায় মিছিল ও সমাবেশ করেছে। বন্দরের কয়েকটি গেইটও এসময় বন্ধ করে দেয় তারা। শ্রমিকদের মিছিল সমাবেশের কারনে বন্দরের সামনের সড়কে তীব্র যানজট দেখা দেয়।

বিডিজার্নাল৩৬৫ডটকম// আরডি/ এসএমএইচ // ৩১ মে ২০১৬

Share.

About Author

Comments are closed.