রিজভীর বক্তৃতা শুনে মনে হচ্ছে তিনি মওদুদ থেকেও বড় ব্যারিস্টার

0

নিজস্ব প্রতিবেদক :

বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার দুর্নীতি মামলার সাজা থেকে মুক্তির জন্য তার আইনজীবীরা আন্তরিক কিনা- সেই প্রশ্ন রেখেছেন আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ। তিনি বলেন, খালেদা জিয়ার সাজা হওয়াতে বিএনপির অনেক নেতাকে খুশি মনে হচ্ছে। কারণ মওদুদ আহমেদ বলেছেন, খালেদা জিয়া জেলে থাকলে নাকি প্রতিদিন বিএনপির ১০ লাখ ভোট বেড়ে যায়। মওদুদের বক্তব্যে বুঝা যায় তারা খালেদা জিয়াকে জেলে রেখেই আগামী নির্বাচন জিততে চায়।আজ বুধবার ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট আয়োজিত এক আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন। বিএনপি নেতা রিজভী আহমেদের সমালোচনা করে হাছান মাহমুদ বলেন, রিজভীর বক্তৃতা শুনে মনে হচ্ছে তিনি মওদুদ থেকেও বড় ব্যারিস্টার। তিনি এখন আইনের মতামতও দিচ্ছেন।

বিএনপির নেতা ব্যারিস্টার মওদুদ আহমেদকে কটাক্ষ করে আওয়ামী লীগের এই মুখপাত্র বলেন, মওদুদের মত এতো বড় ব্যারিস্টার বাংলাদেশে আসবে কিনা জানা নেই। কারণ তিনি মৃত ব্যক্তির কাছ থেকে স্বাক্ষর নিয়ে বাড়ি দখল করেছিলেন। আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক বলেন, আমাদের আইন মন্ত্রী ঠিকই বলেছেন, আইনজীবীদের ভুলের কারণে খালেদা কারাগারে। তাই বলব আপনারা (খালেদার আইনজীবীরা) এমন প্রচেষ্টা চালাবেন না যে, বেগম খালেদা জিয়া জেলে থাকুক।

হাছান মাহমুদ বলেন, খালেদা জিয়া রাজনৈতিক কারণে শাস্তিপ্রাপ্ত নয়। তিনি রাজবন্দী নন। তিনি দুর্নীতির দায়ে অভিযুক্ত আসামি। অন্যান্য দুর্নীতির মামলার আসামিরা যেমন শাস্তি পান তিনিও তেমন শাস্তি পেয়েছেন।

গতকাল চট্টগ্রামে ছাত্রলীগের সম্মেলনে সংঘর্ষের ঘটনায় সরকারের সাবেক এই মন্ত্রী বলেন, ছাত্রলীগে কিছু দুস্কৃতকারী ও বর্ণচোরা প্রবেশ করেছে। এসব দুস্কৃতকারী ও বর্ণচোরাদের শনাক্ত করে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের আহবান জানান তিনি।

আয়োজক সংগঠনের সহ-সভাপতি চিত্রনায়িকা দিলারা ইয়াসমিনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সাংস্কৃতিক জোটের সাধারণ সম্পাদক ফালগুনী হামিদ, লাইজু আক্তার প্রমূখ।

Share.

About Author

Comments are closed.