শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে ব্যবসা করার দিন শেষ-শিক্ষামন্ত্রী

0

চট্টগ্রাম ব্যুরো:

শিক্ষা মন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেছেন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান নিয়ে বাণিজ্য বরদাস্ত করা হবেনা। ‘শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে ব্যবসা করার এখন দিন শেষ। টাকা আয়ের জন্য অন্য ব্যবসা করুন। মুনাফা করতে আসবেন না তাহলে টিকে থাকতে পারবেন না। যারা শর্ত মেনে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান চালাবে তারাই টিকে থাকবে। অন্যথায় বন্ধ করে দেওয়া হবে।’ গতকাল বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে নগরের খুলশীস্থ পোর্ট সিটি ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটিতে নবীনবরণ অনুষ্টানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি।
তিনি বলেন, ‘বর্তমানে ৪৪টি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় ও ১০৪টি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় আছে। অনেক বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা মনে করেন পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে না পড়ার কারণে পার্থক্য করা হয়। স্পষ্টভাবে বলছি, আমরা শিক্ষাক্ষেত্রে কোনো পার্থক্য করিনা। চাকরিসহ সবক্ষেত্রে সুযোগ-সুবিধা আমাদের কাছে সমান।’
তিনি বলেন, এ বছর ৩৫ কোটি ৯০ লাখেরও বেশি বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে বই বিতরণ করা হয়েছে। এ পর্যন্ত ২৬৫ কোটি ৯৬ লাখেরও বেশি বই বিতরণ করেছি। বিজ্ঞানী জাফর ইকবাল বলেছেন, আমরা যে পরিমাণ বই বিতরণ করেছি। এ পরিমাণ বইয়ের পৃষ্ঠা দিয়ে পুরো পৃথিবীকে সাড়ে তিনবার ঢেকে দেওয়া যেতো।
তিনি বলেন ‘২০০৮ সালে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের আমলে জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলাটি হয়েছিল। সেই মামলায় খালেদা জিয়া জেলে। এ জন্য বর্তমান সরকার নয়, তত্ত্বাবধায়ক সরকারই দায়ী।’নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেন, ‘বিচার কার্যক্রম স্বাধীনভাবে চলছে। বর্তমান সরকার বিচার বিভাগের ওপর কোনো ধরনের হস্তক্ষেপ ও প্রভাবিত করে না। খালেদা জিয়া জেলে থাকার জন্য বিএনপি সরকারকে দায়ী করে। এটি সম্পূর্ণ ভুল। তার মামলায় সরকারের কোনো হাত নেই।’
তিনি বলেন, বিএনপি সরকার নিজেকে ইসলাম প্রিয় বলে দাবি করেন। কই তাদের আমলে তেমনতো মাদরাসা, মসজিদ প্রতিষ্ঠা হয়নি। অথচ বর্তমান সরকারের আমলে ৩ হাজার মাদরাসা ভবন তৈরি হয়েছে। আধুনিক মসজিদ তৈরি করে দিয়েছে। এ থেকে বুঝা যায়, কারা ইসলাম প্রিয়।
বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. নূরল আনোয়ারের সভাপতিত্বে সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়টির প্রতিষ্ঠাতা একেএম এনামুল হক শামীম।

সাব্বির// এসএমএইচ//৬ই সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং ২২শে ভাদ্র, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

Share.

About Author

Comments are closed.