উড়িষ্যা-অন্ধ্র উপকূলে আঘাত হেনেছে তিতলি

0

আর্ন্তজাতিক ডেস্ক :

ভারতের উড়িষ্যা ও অন্ধ্র প্রদেশের উপকূলীয় এলাকায় ঘণ্টায় সর্বোচ্চ ১৬৫ কিলোমিটার গতিতে আঘাত হেনেছে বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট ঘূর্ণিঝড় ‘তিতলি’। ঘূর্ণিঝড় আঘাত হানতেই অন্ধ্র প্রদেশের উত্তরাঞ্চল ও উড়িষ্যার দক্ষিণাঞ্চলে ভূমিধসের খবর পাওয়া গেছে। এতে দুই রাজ্যে প্রচুর ক্ষয়ক্ষতি হলেও তাৎক্ষণিকভাবে কোনো হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি।

প্রসঙ্গত ‘তিতলি’একটি হিন্দি শব্দ যার বাংলা অর্থ প্রজাপতি।

বৃহস্পতিবার স্থানীয় সময় ভোর সাড়ে পাঁচটার দিকে এই ঘূর্ণিঝড় ভারতের ওই দুই রাজ্যে আছড়ে পড়ে।

স্থানীয় আবহাওয়া দপ্তর জানিয়েছে, বঙ্গোপসাগরের উপরে ঘোরাফেরা করা গভীর নিম্নচাপটি ভারতে অঅঘাত হানার আগে শক্তি বাড়িয়ে ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হয়। অন্ধ্র প্রদেশের শ্রীকাকুলামে আঘাত হানার সময় ‘তিতলি’র গতিবেগ ছিল ঘণ্টা ১৪০ থেকে ১৬০ কিলোমিটার। উত্তরের দিকে এসে উড়িষ্যায় আছড়ে পড়ার সময় এর তীব্রতা কিছুটা কমে যায়। তখন এর গতিবেগ ছিল ঘণ্টায় ১০২ কিলোমিটার।

তিতলির আঘাতে দুই রাজ্যে প্রচুর ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে জানা গেছে। প্রচণ্ড বাতাস ও ভারী বৃষ্টিপাতের ফলে উড়িষ্যার ৫ জেলায় ভূমিধস দেখা দিয়েছে। ভেঙে প্রড়েছে বহু গাছপালা ও ঘরবাড়ি। ব্যাহত হচ্ছে সড়ক, রেল ও বিমান যোগাযোগ।

এর আগে উড়িষ্যার মুখ্যমন্ত্রী মুখ্যমন্ত্রী নবীন পট্টনায়কের নির্দেশে বুধবার রাজ্যের উপকূলীয় ৫ জেলার ৩ লাখের বেশি লোকজনকে সরিয়ে আনা হয়েছে। বন্ধ রয়েছে সেখানকার সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। ঘূর্ণিঝড়ের কারণে বুধবার রাতে ইন্ডিগো এয়ারলাইন্স তাদের কলকাতা থেকে ভুবনেশ্বরগামী সমকল ফ্লাইট বাতিল করেছে।

এদিকে ‘তিতলি’র কারণে বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তর চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, মংলা ও পায়রা সমুদ্র বন্দরগুলোকে চার নম্বর স্থানীয় হুঁশিয়ারি সংকেত দেখিয়ে যাওয়ার নির্দেশ দিয়েছে।

বৈরী আবহাওয়ার কারণে নিরাপত্তার জন্য অভ্যন্তরীণ রুটে নৌযান চলাচল বন্ধ করে দিয়েছে সরকার। ‘তিতলি’র প্রভাবে ঢাকাসহ দেশের দক্ষিণাঞ্চলে বৃষ্টি হচ্ছে।

সাব্বির// এসএমএইচ//১১ই অক্টোবর, ২০১৮ ইং ২৬শে আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

Share.

About Author

Comments are closed.