তামিম-সৌম্য-মাহমুদউল্লাহর উচ্চলম্ফ

0

ক্রীড়া ডেস্ক :

ওয়ানডেতে ব্যাটিং দুঃস্বপ্ন পেছনে ফেলে টেস্টে কিছুটা আলো ছড়িয়েছে বাংলাদেশের টপ অর্ডার। যদিও হ্যামিল্টন টেস্টে দল হেরেছে ইনিংস ব্যবধানে। তবুও নিউজিল্যান্ডের সেই আলোয় উজ্জ্বল তামিম ইকবাল, সৌম্য সরকার আর মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। ব্যাটসম্যানদের টেস্ট র‌্যাঙ্কিংয়ে তিনজনই এক লাফে অনেকটা এগিয়েছেন।
এই সিরিজ শুরুর আগে তামিম ছিলেন ৩৬ নম্বরে। ইনজুরিতে থাকায় ঘরের মাঠে জিম্বাবুয়ে আর উইন্ডিজের বিপক্ষে নামতে পারেননি, র‌্যাঙ্কিংয়েও উন্নতির সুযোগটা হাতছাড়া হয়েছিল তার। এবার নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে প্রথম টেস্টের দুই ইনিংসে ১২৬ আর ৭৪ রানের ইনিংস খেলে এক লাফে তিনি এগিয়েছেন ১১ ধাপ। পঁচিশে উঠা আসা তামিমই র‌্যাঙ্কিংয়ে সবার উপরে থাকা বাংলাদেশি ব্যাটসম্যান। টেস্ট দলের নিয়মিত অধিনায়ক সাকিব আল হাসান আছেন ২৮ নম্বরে। চোটের কারণে যিনি আছেন খেলার বাইরে।
মাহমুদউল্লাহর লাফ তামিমের চেয়ে এক ধাপ বেশি। জিম্বাবুয়ে সিরিজের আগে বেশ কিছুদিন রান খরায় থাকায় তার র‌্যাঙ্কিংও ছিল নিচের দিকে। ঘরের মাঠের শেষ দুই সিরিজে ভালো করে কিছুটা এগুনোর পর হ্যামিল্টনে নিজের প্রিয় মাঠে করেন আরেক সেঞ্চুরি। ৪০ নম্বরে উঠে এসে তিনি আছেন ক্যারিয়ারের সবচেয়ে ভালো অবস্থানে। বোলারদের র‌্যাঙ্কিংয়েও তিন ধাপ এগিয়ে ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক আছেন ৬৩ নম্বরে।
তবে এই দুজনের চেয়ে লাফালাফিতে এগিয়ে সৌম্য সরকার। শুরুতে নিউজিল্যান্ড সফরের টেস্ট দলেই ছিলেন না তিনি। সাকিব চোটের কারণে যেতে না পারায় বিকল্প হিসেবে ওয়ানডে সিরিজ পর থেকে যান সৌম্য। হ্যামিল্টনে দ্বিতীয় ইনিংসে খেলেছেন অবিস্মরনীয় এক ইনিংস। তামিমের সঙ্গে টেস্টে দেশের হয়ে দ্রুততম সেঞ্চুরিতে ভাগ বসিয়ে খেলেছেন ১৪৯ রানের ইনিংস। তাতে ২৫ ধাপ এগিয়ে তিনি আছেন ৬৭ নম্বরে। বাংলাদেশি ব্যাটসম্যানদের মধ্যে হ্যামিল্টনে ভালো না খেলা মুমিনুল হক আছেন ৩৫ নম্বরে। চোটের কারণে হ্যামিল্টন টেস্ট না খেলা মুশফিকুর রহিমের অবস্থান ৩২ নম্বরে।
টেস্ট র‌্যাঙ্কিংয়ে যথারীতি শীর্ষে আছেন ভারতের অধিনায়ক বিরাট কোহলি। ৯২২ রেটিং পয়েন্ট নিয়ে অবস্থান পোক্ত তার। বাংলাদেশের বিপক্ষেই হ্যামিল্টনে ডাবল সেঞ্চুরি করে দুইয়ে উঠে এসেছেন কেন উইলিয়ামসন। আর তাতেই ইতিহাসে নাম লিখিয়েছেন নিউজিল্যান্ড অধিনায়ক। প্রথম কিউই ব্যাটসম্যান হিসেবে পেলেন ৯শ’ রেটিং পয়েন্ট অর্জনের স্বাদ। ৮৯৭ থেকে বেড়ে নিউজিল্যান্ড অধিনায়কের রেটিং পয়েন্ট দাঁড়িয়েছে ৯১৫।
নিউজিল্যান্ডের ইতিহাসে সবচেয়ে বেশি ২০টি টেস্ট সেঞ্চুরি উইলিয়ামসনের। হ্যামিল্টনে ডাবল সেঞ্চুরির পথে দেশের ইতিহাসের দ্রুততম ব্যাটসম্যান হিসেবে ছুঁয়েছেন ৬ হাজার রানের মাইলফলক। নিউজিল্যান্ডের হয়ে ব্যাটিং-বোলিং মিলিয়েই এর আগে আইসিসি র‌্যাঙ্কিংয়ে ৯০০ ছুঁতে পেরেছিলেন কেবল একজন। বোলারদের র‌্যাঙ্কিংয়ে ৯০৯ রেটিং পয়েন্ট পেয়েছিলেন রিচার্ড হ্যাডলি। ১৯৮৫ সালের ডিসেম্বরে এই চূড়ায় উঠেছিলেন সর্বকালের সেরা বোলারদের একজন বলে বিবেচিত হ্যাডলি।

নিলা চাকমা/এসএমএইচ/  মঙ্গলবার, ৫ মার্চ ২০১৯, ২১ ফাল্গুন ১৪২৫

Share.

About Author

Comments are closed.