এসএসসি ফেল করাই ঢাকার ধামরাই ও নড়াইলে দুই ছাত্রীর আত্মহত্যা 

0

নিজস্ব প্রতিবেদক:

 

ধামরাই:

ধামরাইয়ে এবারসহ মোট তিনবার এসএসসি পরীক্ষায় অকৃতকার্য হওয়ায় ফারজানা আক্তার (১৬) নামের এক শিক্ষার্থী গলায় ফাঁস নিয়ে আত্মহত্যা করেছে। সোমবার রাতে ধামরাইয়ের চাপিল গ্রামের নিজ বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। নিহত ফারজানা ধামরাইয়ের চাপিল গ্রামের ফারুক হোসেনের মেয়ে। সে শৈলান সুরমা উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নিয়েছিল। স্থানীয়রা জানায়, ফারজানা ২০১৭ ও ১৮ সালের এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নিয়ে গণিত বিষয়ে ফেল করে। এবারও একই বিষয়ে ফেল করায় নিজ ঘরের আড়ার সঙ্গে গলায় ফাঁস নেয় সে। পরিবারের সদস্যরা তাকে মুমূর্ষু অবস্থায় উদ্ধার করে স্থানীয় একটি হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। ধামরাই থানার এসআই আব্দুল লতিফ বলেন, পর পর তিনবার এসএসসিতে ফেল করার অভিমানে সে আত্মহত্যা করেছে। এ ঘটনায় কোনো অভিযোগ না থাকায় লাশটি পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

নড়াইল: 

নড়াইলে আত্মহত্যাকারী ছাত্রীর নাম ইলা খান। সে সদর উপজেলার শাহাবাদ ইউনিয়নের গারোচোরা গ্রামের আজিজার খানের মেয়ে। সোমবার ফলাফল প্রকাশের পর বিকেলে নিজ বাড়িতে গলায় ফাঁস নিয়ে আত্মহত্যা করে ইলা। এলাকাবাসী জানায়, ইলা এবার নড়াইল সরকারি উচ্চ বালিকা বিদ্যালয় থেকে বিজ্ঞান বিভাগ থেকে এসএসি পরীক্ষায় অংশ নেয়। সোমবার এ পরীক্ষার ফল প্রকাশ করা হয়। পরীক্ষায় ইলা পদার্থ বিজ্ঞানে ফেল করে। ফলাফল পেয়ে তার বাবা-মা তাকে বকাঝকা করে। এতে অভিমান করে ইলা প্রথমে বিষ পান করে। পরে বাড়ির ফ্যানের সঙ্গে ঝুলে আত্মহত্যা করে। শাহাবাদ ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান মাহবুবুর রহমান বাচ্চু জানান, সোমবার রাতে জানাজা শেষে ইলার লাশ স্থানীয় গোরস্থানে দাফন করা হয়।

নিলা চাকমা/এসএমএইচ/, মঙ্গলবার ০৭ মে ২০১৯, ২৪ বৈশাখ ১৪২৬

Share.

About Author

Comments are closed.