অবশেষে ভারতের জয় হল !

0

চলমান বিশ্বকাপে সবচেয়ে বাজে পারফরম্যান্স আফগানিস্তানের। এর আগে পাঁচ মাচের একটিতেও জিতেতে পারেনি তারা। তবে নিজেদের ষষ্ঠ ম্যাচে ভারতের বিপক্ষে দারুণ সুযোগ পেয়েছিল তারা। কিন্তু কাজে লাগাতে পারেনি। জয়ের কাছাকাছি গিয়েও ১১ রানে হেরে গেছে আফগানরা।

ভারতের দেওয়া ২২৫ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে ২১৩ রানে ইনিংস গুটিয়ে নেয় আফগানিস্তান।

শেষ ওভারে জয়ের জন্য আফগানিস্তানের প্রয়োজন ছিল ১৬ রান। উইকেটে ছিলেন অভিজ্ঞ অলরাউন্ডার মোহাম্মদ নবী। তাখনও আশা ছিল আফগানিস্তানের। কিন্তু সব হিসেবে পাল্টে দিলেন ভারতীয় পেসার মোহাম্মদ শামি। শেষ ওভারের তৃতীয়, চতুর্থ ও পঞ্চম বলে তিন উইকেট তুলে নিয়ে শুধু দলকে হার থেকে রক্ষা করেননি, দারুণ কীর্তিও গড়েন। চলমান বিশ্বকাপে প্রথম হ্যাটট্রিক করলেন তিনি।

নবী ৫২ রানের চমৎকার একটি ইনিংস খেলেও দলকে জেতাতে পারেননি। রহমত শাহ করেন ৩৬ রান। শামি ৪০ রানে চার উইকেট নিয়ে দলের জয়ে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখেন। এছাড়া বুমরাহ, চাহাল ও পান্ডিয়া নেন দুটি করে উইকেট।

এর আগে ভারত নির্ধারিত ৫০ ওভারে আট উইকেট হারিয়ে করে ২২৪ রান। সাউথাম্পটনে ভারতের এই সংগ্রহে সর্বোচ্চ ইনিংস অধিনায়ক বিরাট কোহলির। তিনি করেন ৬৩ বলে ৬৭ রান।  এ ছাড়া কেদার যাদব ৫২, কে এল রাহুল ৩০, বিজয় শঙ্কর ২৯, বিরাট কোহলি ২৮ রান করেন।

মোহাম্মদ নবি ৩৩ এবং গুলবাদিন নাইব ৫১ রানে দুটি করে উইকেট পান। এ ছাড়া রশিদ খান, রহমত শাহ ও মুজিব-উর রহমান একটি করে উইকেট পান।

ভারতের একাদশে ভুবনেশ্বর কুমারের পরিবর্তে আনা হয়েছে মোহাম্মদ সামিকে। অন্যদিকে আফগান একাদশে এসেছে দুটি পরিবর্তন। নুর আলী জার্দান ও দৌলত জার্দানের জায়গায় এসেছেন হযরতুল্লাহ জাজাই ও আফতাব আলম।

এই জয়ে ছয় ম্যাচে ৯ পয়েন্ট নিয়ে ভারত রয়েছে তৃতীয় স্থানে। সমান ম্যাচে আফগানিস্তান কোনো পয়েন্ট ঝুলিতে পুরতে পারেনি।

ভারতের একাদশ : কেএল রাহুল, রোহিত শর্মা, বিরাট কোহলি (অধিনায়ক), বিজয় শঙ্কর, এম এস ধোনি (উইকেট রক্ষক), হার্দিক পান্ডিয়া, কেদার যাদব, কুলদীপ যাদব, মোহাম্মদ সামি, যুবেন্দ্র চাহাল ও যশপ্রীত বুমরাহ।

আফগানিস্তান একাদশ : হযরতুল্লাহ জাজাই, গুলবাদিন নাইব (অধিনায়ক), রহমত শাহ, হাসমতউল্লাহ শহীদী, আসগর আফগান, মোহাম্মদ নবি, ইকরাম আল খিল (উইকেট রক্ষক), নাজিবুল্লাহ জাদরান, রশিদ খান, আফতাব আলম ও মুজিব উর রহমান।

Share.

About Author

Comments are closed.