ফখরুলের অভিযোগ খালেদা জিয়ার জামিন আটকে রেখেছে সরকার

0

নিজস্ব প্রতিবেদক :

খালেদা জিয়ার জামিন সরকার আটকে রেখেছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। শনিবার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপি আয়োজিত এক মানববন্ধন কর্মসূচিতে তিনি এ অভিযোগ করেন।

‌‘বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া ও যুগ্ম মহাসচিব হাবিব-উন-নবী-খান সোহেলসহ সকল নেতৃবৃন্দের নিঃশর্ত মুক্তির দাবি’ উপলক্ষে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

খালেদা জিয়ার জামিনের বিষয়ে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, বেগম জিয়ার মুক্তি আমরা চাচ্ছি, কারণ এটা মিথ্যা ও সাজানো মামলা। আর একই ধরণের মামলায় তাদের নেতা ও অনুসারীরা জামিনে রয়েছে, কিন্তু আমাদের নেত্রীকে জামিন দিচ্ছে না। এটা সম্পূর্ণ বেআইনি, অবৈধ এবং এই সরকার খালেদা জিয়ার জামিন আটকে রেখেছে। তাই আজকে আমরা বলতে চাই, যেটা আইনগতভাবে বেগম জিয়ার যে পাওনা, সেই জামিন আমরা চাই।

তিনি বলেন, বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি আজকে গণদাবি কারণ সবাই তার মুক্তি চায়। তাই এই ভয়াবহ সরকার, যারা মানুষের অধিকার কেড়ে নিয়েছে, তাদের সরাতে হলে জনগণের ঐক্যের কোন বিকল্প নেই। সেই ঐক্য আমাদেরকে সৃষ্টি করতে হবে। আজকে বেগম জিয়াকে মুক্ত করতে হলে আমাদেরকে অবশ্যই গণঐক্য ও জনগণের ঐক্য তৈরি করতে হবে। আর সমস্ত রাজনৈতিক দল ও জনগণকে ঐক্যবদ্ধ করে একটা গণ জোয়ারের মধ্যে দিয়ে এই সরকারকে পরাজিত ও অপসারণ করতে হবে।

সারাদেশে ক্ষমতাসীনরা নৈরাজ্য সৃষ্টি করছে বলেও মন্তব্য করেন মির্জা ফখরুল।

সারাদেশ একটা কারাগারে পরিণত হয়েছে মন্তব্য করে ফখরুল বলেন, আজকে সরকার বেগম জিয়াকে কারাগারে আটক রেখে গণতন্ত্রকে আটক রাখতে চায়। কারণ খালেদা জিয়া গণতন্ত্রের প্রতীক।

একদলীয় শাসন ব্যবস্থা প্রতিষ্ঠিত করার জন্য সরকার একে একে সমস্ত গণতান্ত্রিক প্রতিষ্ঠানগুলোকে ধ্বংস করে দিয়েছে বলেও অভিযোগ করেন বিএনপি মহাসচিব।

আয়োজক সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক কাজী আবুল বাশারের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে বিএনপি নেতা আব্দুস সালাম আজাদ, শামসুল হক, হাবিবুর রশিদ হাবিব প্রমুখ বক্তব্যে রাখেন।

সাব্বির=৬ই জুলাই, ২০১৯ ইং ২২শে আষাঢ়, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

Share.

About Author

Comments are closed.