বিশ্বকাপ খেলে যতো টাকা পাচ্ছে বাংলাদেশ!

0

ক্রীড়া ডেস্ক :

আশা নয়, বলা চলে বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের প্রাথমিক লক্ষ্যই ছিলো বিশ্বকাপের সেমিফাইনাল খেলা। কিন্তু গত মঙ্গলবার ভারতের কাছে হেরে শেষ হয়ে যায় সে সম্ভাবনা। সেমির স্বপ্ন ভঙ্গ হওয়ার পর আশা ছিলো পাকিস্তানের বিপক্ষে জিতে অন্তত বিশ্বকাপের সমাপ্তিটা ইতিবাচকভাবে করা।

কিন্তু কিসের কি! ক্রিকেটের মক্কাখ্যাত ঐতিহাসিক লর্ডসে পাকিস্তানের কাছে যেন পাত্তাই পেল না মাশরাফি বিন মর্তুজার দল। পারলো না বিশ্বকাপের শেষটা মনের মতো করতে। হতাশাজনক বোলিং-ফিল্ডিংয়ের পর ব্যাটিংটাও আশানুরূপ না হওয়ায়, শেষ ম্যাচের ফলটাও এসেছে নেতিবাচক।

তবে এই বিশ্বকাপ থেকে একেবারে খালি হাতেও ফিরছেন না মাশরাফিরা। আট ম্যাচ খেলে তিনটিতে জয় পেয়েছে আর হেরেছে চারটিতে। একটি ম্যাচ বাতিল হয়েছে বৃষ্টিতে। বাংলাদেশের মোট পয়েন্ট সাত।

ক্রিকেট বিশ্বকাপের ইতিহাসে চলতি বিশ্বকাপেই দেওয়া হচ্ছে বড় অঙ্কের প্রাইজমানি। চ্যাম্পিয়ন দল পাবে চার মিলিয়ন ডলার আর রানার্স আপ দল পাবে দুই মিলিয়ন ডলার। এই টুর্নামেন্টের বাজেট ১০ মিলিয়ন ডলার।

বাংলাদেশও পাবে প্রায় ২ লাখ ৪০ হাজার ডলার। আইসিসির নিয়ম অনুযায়ী গ্রুপপর্বে প্রত্যেক ম্যাচে জয়ী দল পাবে ৪০ হাজার ডলার করে। বাংলাদেশ জিতেছে তিনটি ম্যাচ। এই তিন ম্যাচে ১ লাখ ২০ হাজার ডলার। একটি ম্যাচ বাতিল হয়েছে বৃষ্টিতে। ওই ম্যাচের ২০ হাজার ডলার যাবে বাংলাদেশের পকেটে। এছাড়া গ্রুপপর্ব থেকে বাদ পড়া দলের জন্য আইসিসির বরাদ্দ ১ লাখ ডলার। সব মিলিয়ে বাংলাদেশ পাবে ২ লাখ ৪০ হাজার ডলার, যা বাংলাদেশি টাকায় দুই কোটি ২৭ লাখ টাকা।

সেমিফাইনাল থেকে বাদ পড়া দুই দলকেও হতাশ করছে না আইসিসি। তাদের জন্য বরাদ্ধ করা হয়েছে বেশ বড় অঙ্কের টাকা। সেমিফাইনাল থেকে বাদ যাওয়া প্রত্যেক দল পাবে ৮ লাখ ডলার।

৩০ মে শুরু হয়েছে বিশ্বকাপ। ১৪ জুলাই ফাইনালের মধ্যে দিয়ে পর্দা নামবে ক্রিকেট বিশ্বের সবচেয়ে জমজমাট এই আসরের।

সাব্বির=৭ই জুলাই, ২০১৯ ইং ২৩শে আষাঢ়, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

Share.

About Author

Comments are closed.