হুয়াওয়ের পাশে মাইক্রোসফট

0

অনলাইন ডেস্ক

হুয়াওয়ে থেকে উইন্ডোজ সফটওয়্যার সরবরাহ করতে আগ্রহ প্রকাশ করেছেন মাইক্রোসফটের প্রেসিডেন্ট ব্র্যাড স্মিথ।

চীনা প্রযুক্তিপণ্য নির্মাতা প্রতিষ্ঠানটি হুয়াওয়ের ওপর মার্কিন নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়ার আহ্বানও জানিয়েছেন তিনি।

বিবিসিকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে ব্র্যাড স্মিথ বলেন, আমেরিকার কম্পিউটার নির্মাতা চীনা প্রতিষ্ঠান থেকে উইন্ডোজ সফটওয়্যার সরবরাহ করতে আগ্রহী মাইক্রোসফট। এতে নিরাপত্তার কোনো হুমকি নেই।

তিনি বলেন, হুয়াওয়ের গ্রাহকদের মাইক্রোসফটের পণ্য ব্যবহারে নিরাপত্তাজনিত কোনো সমস্যা হবে বলে তিনি মনে করেন না। বরং নিষেধাজ্ঞার এই সিদ্ধান্তটি হবে ভুল এবং এর কারণে মার্কিন যুক্তরষ্ট্র অনেক পিছিয়ে পড়বে এবং বৈশ্বিক গণতন্ত্রও পশ্চাদমুখী হবে।

স্মিথ বলেন, হুয়াওয়ের বিভিন্ন ডিভাইস যেমন ল্যাপটপে আামাদের সফটওয়্যার সরবরাহ করতে অন্যান্য প্রতিষ্ঠানের মতো আমরাও আবেদন করেছি এবং যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে কাজ করে যাচ্ছি। ৫জি নিয়ে হয়তো কিছু সমস্যা তৈরি হতে পারে। কিন্তু আমাদের প্রশ্ন করা উচিত যে, প্রতিষ্ঠানের সব পণ্যের ক্ষেত্রেই একই পদক্ষেপ ঠিক কিনা?

স্মিথ তার লেখা বই নিয়ে বিবিসিকে দেয়া এক দীর্ঘ সাক্ষাৎকারে বলেন, তিনি যুক্তরাষ্ট্রের বাণিজ্য বিভাগকে পরামর্শ দিয়েছেন কোনো প্রতিষ্ঠানকে লাইসেন্স দেয়ার আগে প্রয়োজনীয় সময় নিয়ে বিবেচনা করতে।

তিনি বলেন, পৃথিবীর যেকোনো দেশেই আমাদের আউটলুক বা ওয়ার্ড এর মতো অ্যাপ্লিকেশন বা আমাদের সার্চ ইঞ্জিন ব্যবহারে সেই দেশের নিরাপত্তা কখনই বিঘ্নিত হবে না। আমরা মনে করি এতে জনগনের জন্য সম্ভাবনার দুয়ার আরো খুলে যাবে।

স্মিথ বলেন, অন্যান্য প্রতিষ্ঠানের মতো চীনে আমাদের ব্যাবসা খুব বড় নয়। মাইক্রসফটের আয়ের মাত্র ১.৮ শতাংশ আসে চীন থেকে। তবে এর প্রভাব নিয়েও আমরা চিন্তিত।”

স্মিথ অ্যাপলসহ আরো অন্যান্য প্রতিষ্ঠানকে এই নিষেধাজ্ঞার ব্যাপারে সতর্ক করেন। নিষেধাজ্ঞার ফলে সমন্বিত গবেষণায় কেমন প্রভাব পড়তে পারে তা নিয়েও সতর্ক করেছেন তিনি।

এদিকে মার্কিন বাণিজ্যিক নিষেধাজ্ঞা আসার আগেই ফেব্রুয়ারিতে উইন্ডোজচালিত মেইটবুক এক্স প্রো উন্মোচন করে হুয়াওয়ে।

বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম স্মার্টফোন নির্মাতা প্রতিষ্ঠানটির ওপর নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের জন্য একশোর বেশি প্রতিষ্ঠানের কাছ থেকে আবেদন এসেছে।

এ প্রসঙ্গে মার্কিন বাণিজ্য মন্ত্রী উইলবার রস জানিয়েছেন, তার মন্ত্রণালয় থেকে এই নিষেধাজ্ঞা বাতিল সংক্রান্ত একটি লাইসেন্স ইস্যু করা হতে পারে এবং বলা হয়েছে এতে যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় নিরাপত্তায় কোন সমস্যা হবে না।

তবে যুক্তরাষ্ট্রের বাণিজ্য মন্ত্রণালয় থেকে কোনো রকমের অনুমোদনের খবর পাওয়া যায়নি।

নিষেধাজ্ঞার ফলে গুগলে অ্যান্ড্রয়েড ওএসের বিকল্প নিয়ে এসেছে হুয়াওয়ে। মেট সিরিজে মেট ৩০ ও মেট ৩০ প্রো মডেলের স্মার্টফোনে থাকবে তাদের নিজস্ব অপারেটিং সিস্টেম। মেট ৩০ প্রোর একটি ৫-জি নেটওয়ার্ক-সমর্থিত সংস্করণেরও ঘোষণা এসেছে। আগামী অক্টোবর এ স্মার্টফোন দুটি বিভিন্ন দেশের বাজারে ছাড়বে হুয়াওয়ে।

সাব্বির=২১শে সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং ৬ই আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

Share.

About Author

Comments are closed.